Bajaj Chetak ইলেকট্রিক স্কুটার কিনলে পাওয়া যাবে কেন্দ্রীয় ভর্তুকি, কতটা দাম কমল?

ফেম-২ প্রকল্পের ভর্তুকি ধরে Bajaj Chetak-এর প্রিমিয়াম ভ্যারিয়েন্টের দাম পড়বে ১,৪২,৩৯০ টাকা৷ আগের থেকে ২,৫৯৭ টাকা কম

bajaj-chetak-fame-ii-scheme-allow-price-cut-by-rs-2597

Bajaj Chetak ইলেকট্রিক স্কুটার সংশোধিত ফেম-২ আর্থিক প্রকল্পের আওতায় এল। যার ফলে ই-স্কুটারটি এখন ৪৫,০০০ হাজার টাকা ভর্তুকি পাওয়ার জন্য যোগ্য বিবেচিত হয়েছে। তবে নয়া আর্থিক সুবিধা প্রযোজ্য হলেও Chetak-এর দামে বিশেষ কিছু ছাড় পাবেন না ক্রেতারা। কারণ বৈদ্যুতিক স্কুটারটির এক্স-শোরুম দাম বাড়ানো হয়েছে।

ফেম-২ প্রকল্পের ভর্তুকি ধরে Bajaj Chetak-এর প্রিমিয়াম ভ্যারিয়েন্টের দাম পড়বে ১,৪২,৩৯০ টাকা। আগের থেকে ২,৫৯৭ টাকা কম৷ উল্লেখ্য, এখন কেবলমাত্র প্রিমিয়াম মডেলটির বুকিং নেওয়া হচ্ছে। কম দামী Urbane ভার্সন বুকিংয়ের জন্য উপলব্ধ নয়।

Bajaj Chetak-এর প্রসঙ্গে আসলে, ই-স্কুটারটি এক চার্জে ৯০ কিলোমিটার পর্যন্ত যেতে পারে (ইকো মোড)। ব্যাটারি পুরো চার্জ হতে সময় লাগে পাঁচ-ছয় ঘন্টা। এলইডি হেডল্যাম্প, এলইডি ডিআরএল, স্টিলের বডি প্যানেল-সহ নানা ফিচার রয়েছে এতে। ব্যাটারির উপর তিন বছর বা ৫০,০০০ কিলোমিটারের ওয়ারেন্টি রয়েছে।

Fame II Scheme

ব্যাটারির ক্ষমতা হিসেবে দুই, তিন বা চার চাকার বৈদ্যুতিক গাড়ি কিনলে মেলে সরকারি ভর্তুকি। ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে নয়, কেন্দ্র সরাসরি গাড়ি নির্মাতাকে আর্থিক সুবিধা দেয়। গাড়ির এক্স-শোরুমের দামে সেই ভর্তুকি যোগ করা হয়। ফলে ভর্তুকির কারণে সংস্থার উৎপাদন ব্যয় কমে যায়। লাভবান হয় উৎপাদক ও ক্রেতা – দু’পক্ষই। গত জুনে সংশোধনী এনে কেন্দ্রীয় সরকার সেই প্রকল্প আর্থিক সুবিধার পরিমাণ বাড়িয়ে কিলোওয়াট পিছু ১৫,০০০ টাকা করেছে। 

টেকগাপে শুভ্রর প্রথম প্রযুক্তি বিষয়ক লেখায় হাতেখরি৷ স্নাতক স্তরের পড়াশোনার পাশাপাশি এখানেই চলতে থাকে শুভ্রর লেখালেখি৷ কলেজের অধ্যায় শেষ হওয়ার পর শুভ্র এখন টেকগাপের কনটেন্ট টিমের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য৷