Bajaj Pulsar 250 নাকি Yamaha FZ 25 নাকি Suzuki Gixxer 250/SF 250, দামের দিক থেকে কে সাশ্রয়ী

Bajaj Pulsar F250, Pulsar N250 vs Yamaha FZ 25/FZS 25 vs Suzuki Gixxer 250/ SF 250: দামের বিচারে কারা এগিয়ে

Bajaj Pulsar 250

ভারতের বাজারে সদ্য লঞ্চ হয়েছে বাজাজ (Bajaj)-র ২৫০ সিসির নয়া দুটি বাইক – Bajaj Pulsar F250 ও Bajaj Pulsar N250। এর আগে Pulsar 220F সেমি-ফেয়ার্ড মোটরসাইকেলটি ছিল সর্বাধিক ডিসপ্লেসমেন্টের। কিন্তু ২৫০ সিসির বাইক দুটি বাজারে আসার পর Pulsar F220 ও Pulsar NS200-কে পিছনে ফেলেছে Bajaj Pulsar F250 ও Pulsar N250 (নেকেড স্পিড বাইক)। এদিকে নতুন বাইক দুটির দামও এই সেগমেন্টের অন্যান্য সংস্থার বাইকের তুলনায় কম রেখেছে বাজাজ (Bajaj)। আসুন জেনে নিই অন্যান্য সংস্থার প্রতিদ্বন্দী এর বাইকগুলির সাথে Pulsar F250 ও Pulsar N250 এর দামের ফারাক।

Bajaj Pulsar 250 vs Yamaha FZ 25/FZS 25

বাজাজ পালসার এন২৫০ ও বাজাজ পালসার এফ২৫০ এর দাম রাখা হয়েছে যথাক্রমে ১.৩৮ লক্ষ টাকা এবং ১.৪০ লক্ষ টাকা (এক্স-শোরুম)। যেখানে ইয়ামাহা এফজেড ২৫ এর এক্স শোরুম প্রাইস ১.৩৭ লক্ষ টাকা এবং ইয়ামাহা এফজেডএস ২৫ এর মূল্য ১.৪১ লক্ষ টাকা (এক্স-শোরুম)। ইয়ামাহা এফজেডএস ২৫ বাইকটিতে রয়েছে বৃহত্তর উইন্ড স্ক্রিন এবং নাকেল গার্ডস। দামের দিক থেকে ইয়ামাহা এফজেড ২৫, পালসার এন২৫০ এর থেকে সস্তা। তবে ইয়ামাহা এফজেডএস ২৫ এর দাম সেমি-ফেয়ার্ড বাজাজ পালসার এফ২৫০ এর চেয়ে সামান্য বেশি।

Bajaj Pulsar 250 vs Suzuki Gixxer 250/SF 250

নেকেড বাইক সেগমেন্টে সুজুকি জিক্সার ২৫০ এর দাম সবচেয়ে বেশি, ১.৭৩ লক্ষ টাকা (এক্স-শোরুম)। অর্থাৎ বাজাজ পালসার এন২৫০ ও বাজাজ পালসার এফ২৫০ এর তুলনায় দাম যথাক্রমে ৩৫,০০০ এবং ৩৩,০০০ টাকা বেশি। অন্যদিকে ভারতে সুজুকি জিক্সার এসএফ২৫০ ফুললি ফেয়ার্ড মোটরসাইকেলটির দাম ১.৮৩ লক্ষ টাকা (এক্স-শোরুম), যা বাজাজ পালসার এফ২৫০ এর তুলনায় ৪৩,০০০ টাকা বেশি।

তবে ফিচারের কথা বললে, উল্লেখিত সবকটি বাইকে প্রায় একইরকম ফিচার রয়েছে। যেমন এলইডি হেডলাইট ও টেললাইট, মাসকুলার ডিজাইন, স্পোর্টি স্প্লিট সিট, ডিস্ক ব্রেক (দুই চাকাতেই)। ইয়ামাহা এফজেডএস ২৫ ও সুজুকি জিক্সার এসএফ২৫০ বাইকে রয়েছে ২৪৯ সিসির সিঙ্গেল সিলিন্ডার ফুয়েল ইঞ্জেক্টেড ইঞ্জিন। অন্যদিকে পালসার ২৫০ সিসির দুটি ভার্সনে, সুজুকি জিক্সার ২৫০ ও ইয়ামাহা এফজেড ২৫-এ রয়েছে এয়ার কুল্ড ইঞ্জিন।

এদিকে জিক্সার ২৫০ ও এসএফ ২৫০ এর ৬-স্পিড গিয়ার বিশিষ্ট ইঞ্জিন থেকে সর্বাধিক ২৬ বিএইচপি শক্তি এবং সর্বোচ্চ ২২.২ এনএম টর্ক উৎপন্ন হয়। আবার পালসারের বাইক দুটি থেকে পাওয়া যায় ২৪ বিএইচপি শক্তি এবং ২১.৫ এনএম টর্ক এবং এর ইঞ্জিনটি ৫-স্পিড গিয়ার বিশিষ্ট। শক্তির দিকে সবথেকে কম ইয়ামাহা এফজেড ২৫, এর ৫-স্পিড গিয়ার বক্স যুক্ত ইঞ্জিনটি থেকে সর্বোচ্চ ২০.৫ বিএইচপি শক্তি এবং সর্বাধিক ২০.১ এনএম টর্ক পাওয়া যায়। তাই উপরিউক্ত তুলনা থেকে বোঝা যাচ্ছে যদি দামের বিষয়টি বিবেচনা করা হয়, তবে বাজাজ পালসার ২৫০ হবে সাশ্রয়ী বাইক।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।