এক চার্জে চলবে ৯০ কিমি, লঞ্চ হল ছ’টি কমার্শিয়াল ইলেকট্রিক গাড়ি

balan-engineering-launches-six-commercial-electric-cars-in-india-price-range.jpg

পরিবেশবান্ধব হওয়ার জন্য বৈদ্যুতিন গাড়ি যে সংখ্যার বিচারে আগামী কয়েক বছরের মধ্যে জীবাশ্ম জ্বালানি দ্বারা চালিত গাড়িকেও অতিক্রম করে যাবে, সেই সম্ভাবনার কথা বিশেষজ্ঞরা বারবার বলে আসছেন। বৈদ্যুতিন গাড়িই যে ভবিষ্যৎ, তা অনুমান করে বহু নতুন সংস্থা প্যাসেঞ্জার ও কমার্শিয়াল ইলেকট্রিক মোবিলিটি সেগমেন্টে পা রাখছে। বেঙ্গালুর ভিত্তিক এমনই একটি স্টার্টআপ সংস্থা, বালান ইঞ্জিনিয়ারিং (Balan Engineering) একসাথে এখন ছ’টি কমার্শিয়াল ভিহকেল লঞ্চ করার কথা ঘোষণা করলো।

সংস্থাটির দাবি, তারা দেশের নামী ব্যাটারি ও মোটর নির্মাতাদের সঙ্গে জোট বেঁধে বানিজ্যিক গাড়িগুলিকে তৈরি করেছে। তারা আরও বলছে এগুলি ভারতের প্রতিটি শহরের প্রশাসনের জন্য খুব দরকারী হবে। পণ্যগুলি রফতানি বাজারে প্রেরণের যোগ্য বলেও বালান ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের তরফে জানানো হয়েছে। সর্বোপরি এগুলি ভারতে রোড টেস্ট করার মাধ্যমে শংসাপত্রের পাশাপাশি বৈধতাও অর্জন করেছে বলে জানা গিয়েছে।

বাণিজ্যিক গাড়িগুলি বর্তমানে বেঙ্গালুরুতে সংস্থার ম্যানুফ্যাকচারিং ফেসিলিটিতে তৈরি হচ্ছে। কারখানাটির মাসিক উৎপাদন ক্ষমতা ৩০০০-৪০০০ ইউনিট। তবে সংস্থাটি এখন কর্ণাটকের বাঘালকোটে একটি নতুন কারখানা গড়ে তোলার জন্য লাইসেন্স পেয়েছে। যার জন্য সেখানে ২৫ একর জমি অধিগ্রহন করা হয়েছে। কারখানাটি আগামী ছয়-নয় মাসের মধ্যে প্রোডাকশান রেডি হয়ে যাবে। বালান ইঞ্জিনিয়ারিং ৫০ কোটি টাকার বেশী লগ্নিও পেয়েছে। কনট্রাক্ট ম্যানুফ্যাকচারিংয়ের জন্য সংস্থাটি বেশ কিছু OEM (Original Equipment Manufacturer)-এর সাথে আলোচনারত বলে জানা গিয়েছে।

সংস্থাটির লঞ্চ করা গাড়িগুলির মধ্যে রয়েছে Kamala পুল কার্ট গাড়ি (দাম- ৩৫০০০-৪০০০০ টাকা), ৩ লক্ষ টাকা মূল্যের একটি Fumigator, ২.৫ লক্ষ টাকা দামের Sanitiser ছড়ানোর গাড়ি, আবর্জনা পরিস্কারের জন্য E-Garbage Swach Rath (দাম- ১.৭৫ লক্ষ টাকা) এবং ১.৮৭ লক্ষ টাকা মূল্যের একটি Cargo Loader গাড়ি। এই গাড়িগুলির বেশীরভাগই একটি ৫.১ kW লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি প্যাক সহ একটি ১.৯ kWh মোটরে চলে। এতে থাকবে ২ স্পিড গিয়ারবক্স ও সম্পূর্ণ চার্জে এদের পরিসীমা ৯০ কিমি। মোটর, কন্ট্রোলার, ব্যাটারি, এবং গিয়ারবক্সের ওপর সংস্থাটি দিচ্ছে ৪ বছরের ওয়্যারেন্টি।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপে শুভ্রর প্রথম প্রযুক্তি বিষয়ক লেখায় হাতেখরি৷ স্নাতক স্তরের পড়াশোনার পাশাপাশি এখানেই চলতে থাকে শুভ্রর লেখালেখি৷ কলেজের অধ্যায় শেষ হওয়ার পর শুভ্র এখন টেকগাপের কনটেন্ট টিমের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য৷