Bank: দেশজুড়ে ১০ নভেম্বর থেকে ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত বন্ধ থাকবে ব্যাঙ্ক, কবে কোথায় ছুটি দেখে নিন

দেশজুড়ে ১০ নভেম্বর থেকে ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত বন্ধ থাকবে ব্যাঙ্ক, কবে কোথায় ছুটি দেখে নিন

banks-to-remain-closed-for-5-days-starts-from-today-know-details

আপনার কি ব্যাঙ্কে কোনো কাজ রয়েছে? তাহলে ঝটপট মিটিয়ে নিন। আসলে এই সপ্তাহে টানা পাঁচ দিনের জন্য বিভিন্ন রাজ্য জুড়ে বেশ কয়েকটি সরকারী ও বেসরকারী ব্যাঙ্ক বন্ধ থাকবে। এখন চলছে ছট পুজো, আর সামনেই বিভিন্ন রাজ্যে অনুষ্ঠিত হবে তাদের নিজস্ব আঞ্চলিক উৎসব। আর তাই বিভিন্ন উৎসব এবং সপ্তাহান্তের ছুটির কারণে বিভিন্ন রাজ্য জুড়ে ১০ নভেম্বর থেকে ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত ব্যাঙ্ক বন্ধ থাকবে।

এর আগে গত সপ্তাহে দিওয়ালি, ভাইফোঁটা এবং অন্যান্য উৎসবের কারণে টানা পাঁচ দিন ব্যাঙ্ক বন্ধ ছিল। সব মিলিয়ে এই ফেস্টিভ সিজনে নভেম্বর মাসে বিভিন্ন রাজ্য জুড়ে ব্যাঙ্ককর্মীরা প্রায় ১৭ দিন ছুটি পাবেন বলে আশা করা হচ্ছে। তবে আপনার এইজন্য গভীর চিন্তায় পড়ে যাওয়ার কোনো কারণ নেই, কারণ ব্যাঙ্ক ছুটির দিনগুলিতে সম্পূর্ণ ২৪ ঘন্টার জন্য অনলাইন ব্যাঙ্কিং সুবিধা সচল থাকবে। এছাড়া হাতে টাকার দরকার হলে নিকটবর্তী এটিএম (ATM) থেকেও তা পাওয়া যাবে। তাহলে আসুন, কোন কোন রাজ্যে আগামী ছুটির দিনগুলিতে ব্যাঙ্ক বন্ধ থাকবে, সেগুলির উপর চোখ বুলিয়ে নেওয়া যাক।

কোন রাজ্যগুলি ছুটি ঘোষণা করেছে?

ছট পূজার কারণে, উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এবং দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীবাল ১০ নভেম্বর সরকারী ছুটি ঘোষণা করেছেন, অর্থাৎ দিল্লিতে সমস্ত ব্যাঙ্ক গতকাল বন্ধ ছিল।

দিল্লি এবং ইউপি ছাড়াও, বিহার এবং ঝাড়খন্ডও গতকাল তাদের সমস্ত ব্যাঙ্ক বন্ধ রেখেছিল, কারণ এই রাজ্যগুলিতেও বেশ ধুমধাম করে ছট পূজা উদযাপন করা হয়। পাশাপাশি ছট পূজার কারণে পাটনায় ব্যাঙ্ক কর্মীরা ১১ নভেম্বর ছুটি পাবেন। মেঘালয় সরকার ১২ নভেম্বরকে সরকারী ছুটি হিসেবে ঘোষণা করেছে, কারণ ওইদিন সেখানে ওয়াঙ্গালা উৎসব উৎযাপিত হবে।

এই সপ্তাহে ছুটির তালিকা

১০-১১ নভেম্বর: ছট পূজা

হিন্দু রীতি অনুযায়ী, ছট পূজায় ভক্তরা সূর্য দেবতা এবং তাঁর স্ত্রী ঊষার উপাসনা করেন। এই উৎসব বিহার, ঝাড়খন্ড এবং উত্তর প্রদেশের সীমান্তবর্তী অঞ্চল সহ এখন দিল্লিতেও ব্যাপকভাবে উৎযাপিত হয়।

১২ নভেম্বর: ওয়াঙ্গালা উৎসব

ওয়াঙ্গালা উৎসব হল উর্বরতার দেবতা সালজং-এর সম্মানে ফসল কাটার উদযাপন, যা মেঘালয়ে ব্যাপকভাবে পালিত হয়। এটি সকল পরিশ্রমের শেষে ভালো ফসল ফলার সময়কালকে চিহ্নিত করে।

১৩-১৪ নভেম্বর:

মাসের দ্বিতীয় শনিবার ও রবিবার উপলক্ষে এই দুদিন দেশের সমস্ত ব্যাঙ্ক বন্ধ থাকবে।

এ তো গেল টানা পাঁচ দিনের কথা, তবে ছুটি কিন্তু এখানেই শেষ নয়। কারণ এরপর গুরু নানক জয়ন্তীর জন্য ১৯ নভেম্বর ব্যাঙ্ক ছুটি থাকবে। আবার, ২২ নভেম্বর কানাকাদাসা জয়ন্তী, যা কর্নাটকে ব্যাপকভাবে উদযাপিত হয়; তাই ওইদিন সেখানকার সমস্ত ব্যাঙ্ক বন্ধ থাকবে। আবার মেঘালয়ের জনপ্রিয় উৎসব সেং কুট স্নেম উপলক্ষ্যে ২৩ নভেম্বর সেখানকার সমস্ত ব্যাঙ্কের দরজায় তালা দেখা যাবে।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।