একটি অ্যাপের মধ্যেই হোয়াটসঅ্যাপ, মেসেঞ্জার, টেলিগ্রাম, সিগন্যাল! চলে এল Beeper

beeper-all-in-one-app-with-15-messaging-platform-launched-all-you-need-to-know

চিঠি আদান প্রদানের যুগ গিয়েছে কবেই! ল্যান্ডলাইন পেরিয়ে মোবাইল ফিচার ফোন হয়ে এসেছে নানা ধরণের স্মার্টফোন। এদিকে মাত্র এক দশক আগে পর্যন্ত Nimbuzz, Trillian, Adium, Digsby ইত্যাদি অ্যাপ্লিকেশন চ্যাটিংয়ের জন্য ব্যবহৃত হলেও, বর্তমানে রমরমা বেড়েছে WhatsApp, Facebook Messenger, Telegram বা Signal-এর মত ইনস্ট্যান্ট মেসেজিং অ্যাপের। কিন্তু এই মেসেজিং প্ল্যাটফর্মগুলি ব্যবহার করতে হলে ডিভাইসে আলাদা আলাদা অ্যাপ ইনস্টল করতে হয়, কারণ একটি অ্যাপের সাহায্যে সমস্ত প্রয়োজন মেটেনা বললেই চলে! তবে আপনি যদি এখন একটি অ্যাপের মাধ্যমেই হোয়াটসঅ্যাপ, মেসেঞ্জার, টুইটার, টেলিগ্রাম, সিগন্যাল ইত্যাদি ব্যবহার করতে চান তাহলে কুছ পরোয়া নেই, মুস্কিল আসান করবে বিপার (Beeper) অ্যাপ্লিকেশন।

মাত্র ৪-৫ দিন আগে লঞ্চ হওয়া Beeper আদতে একটি সাবস্ক্রিপশন-ভিত্তিক অ্যাপ্লিকেশন যার মাধ্যমে ইউজাররা দুটি-তিনটি নয়, একসাথে ১৫টিরও বেশি মেসেজিং প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করতে পারবেন! আজ্ঞে হ্যাঁ, ঠিকই শুনেছেন। সম্প্রতি Pebble-এর প্রতিষ্ঠাতা এরিক মিজিকভস্কি একটি টুইট পোস্টের মাধ্যমে এই অ্যাপটির কথা আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করেছেন।

বিস্তারিতভাবে বললে, Beeper, আলাদা আলাদা মেসেজিং প্ল্যাটফর্মের জন্য ইউনিফায়েড (একক) ইনবক্স প্রদান করে। ফলে অ্যাপটির মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই WhatsApp, Telegram, Signal, iMessege , Instagram, Twitter Direct Message, Facebook Messenger, Skype, Hangouts, Slack এবং Discord-এর মত পরিষেবাগুলি ব্যবহার করতে পারবেন। আলাদা আলাদা অ্যাপ ডাউনলোড করার প্রয়োজন হবে না। এছাড়া বিপারের ইউনিফায়েড ইনবক্স ব্যবহার করে ইউজাররা মেসেজ সার্চ, স্নুজ, আর্কাইভ, রিমাইন্ডার সেট ইত্যাদি অপশন উপভোগ করতে পারবেন। তদুপরি, নির্মাতা সংস্থা বিপারে প্রতি সপ্তাহে নতুন চ্যাট নেটওয়ার্ক যুক্ত করবেন বলে জানিয়েছে।

প্রযুক্তির ভাষায় বলতে গেলে, বিপার অ্যাপ্লিকেশনটি ওপেন-সোর্স ফেডারেটেড মেসেজিং প্রোটোকল ম্যাট্রিক্সের ওপর নির্ভর করে তৈরি করা হয়েছে। তবে চিন্তার কারণ নেই অ্যাপটি নিজে ওপেন-সোর্স নয়। উল্লেখ্য, বিপার ইউজাররা চাইলে নিজস্ব সার্ভারে কোম্পানী ব্যাকেন্ড স্ট্যাক পরিচালনা করতে পারেন। তাছাড়া রয়েছে সংস্থার হোস্টেড অপশন ব্যবহারের সুবিধাও, তবে এর জন্য সংস্থাকে প্রতি মাসে নির্দিষ্ট পরিমাণ ফি দিতে হবে‌।

ডেটা সুরক্ষার ক্ষেত্রেও বিপার (Beeper) কোনোভাবেই নিরাশ করবেনা। কারণ অ্যাপটি কোম্পানীর সার্ভারে আসার আগেই ক্লায়েন্টের ডেটা এনক্রিপ্ট করে ফেলে। এক্ষেত্রে Gizmodo-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মিজিকভস্কি জানিয়েছেন যে, কোনোরকম পরিস্থিতিতেই এই এনক্রিপ্টেড মেসেজ কন্টেন্টগুলিকে পুনরায় ডিক্রিপ্ট করা সম্ভব নয়। আপাতত বিপার অ্যাপ্লিকেশনটি ইনভিটেশন-অনলি মোডে উপলব্ধ; ইউজাররা তাদের উইন্ডোজ, লিনাক্স, ম্যাকওএস, আইওএস এবং অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস থেকে এটি ব্যবহার করতে পারবেন।

One of the newest members of the Techgup Family. Soumo grew his liking for gadgets almost a decade back while searching for his first smartphone, and started writing about tech recently in 2020