সস্তায় 5G স্মার্টফোন খুঁজছেন?Xiaomi, Realme, Samsung-এর সেরা পাঁচটি বিকল্প দেখে নিন

২১,০০০ টাকা থেকে কয়েকটি সেরা 5G স্মার্টফোনের তালিকা দেখে নিন

best-cheapest-5g-smartphones-price-starting-rs-21000

ভারতে 5G পরিষেবা কবে চালু হবে সে প্রশ্নের সঠিক জবাব আপাতত কারো কাছে নেই। কারণ এখনো পরীক্ষা-নিরীক্ষার স্তর পুরোপুরি ভাবে অতিক্রম করতে পারেনি টেলিকম সংস্থাগুলি। যদিও 5G নেটওয়ার্ক ব্যবহার করার জন্য ভারতবাসী অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন। আর সেইজন্যই তারা ইতিমধ্যেই 5G স্মার্টফোন কিনতে শুরু করেছে। চাহিদা থাকায় স্মার্টফোন ব্র্যান্ডগুলিও সাশ্রয়ী দামে ধারাবাহিক ভাবে 5G স্মার্টফোন লঞ্চ করে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে, পঞ্চম প্রজন্মের সেলুলার নেটওয়ার্কের সাথে আসা ভাল মানের ফোন এখন অনেক কমে কেনা যাবে। এই ফোনগুলিতে 5G কানেক্টিভিটির সাথে ফাস্ট পারফরম্যান্স, উন্নত ক্যামেরা ফ্রন্ট, শক্তিশালী ব্যাটারি পাওয়া যাবে। আজ আমরা লেটেস্ট লঞ্চ হওয়া কয়েকটি সেরা 5G স্মার্টফোনের প্রসঙ্গে আপনাদের জানাবো আপনাদের।

২১,০০০ টাকা থেকে শুরু সেরা ৫টি 5G স্মার্টফোন

iQOO Z5 5G: আইকো জেড৫ ৫জি স্মার্টফোনের ৮ জিবি র‌্যাম এবং ১২৮ জিবি স্টোরেজের দাম রাখা হয়েছে ২৩,৯৯০ টাকা। আবার, ১২ জিবি র‌্যাম এবং ২৫৬ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম পড়বে ২৬,৯৯০ টাকা।

ফিচার : iQOO Z5 5G ফোনে পাওয়া যাবে ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের ৬.৬৭ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস পাঞ্চ-হোল ডিসপ্লে। এতে স্ন্যাপড্রাগন ৭৭৮জি প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। এছাড়া, এই ফোনে এক্সটেন্ডেড র‌্যাম সাপোর্ট করবে। ফটোগ্রাফির জন্য উক্ত ৫জি হ্যান্ডসেটে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এগুলি হল, ৬৪ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড লেন্স, এবং ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর। আবার, সামনে রয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা। সিকিউরিটির জন্য এতে সাইড-ফেসিং ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর উপলব্ধ। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য ফোনে ৪৪ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে।

Motorola Edge 20 Fusion: মোটোরোলা এজ ২০ ফিউশন স্মার্টফোনের প্রারম্ভিক মূল্য ২১,৪৯৯ টাকা। এই দাম ফোনের ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের। আবার এর ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ধার্য করা হয়েছে ২২,৯৯৯ টাকা।

ফিচার : Motorola Edge 20 Fusion স্মার্টফোনে, ৬.৭ ইঞ্চির এইচডি প্লাস (১,০৮০x২,৪০০ পিক্সেল) OLED ম্যাক্স ভিশন অ্যামোলেড ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। এই ডিসপ্লের, এসপেক্ট রেশিও ২০:৯ এবং রিফ্রেশ রেট ৯০ হার্টজ। ফাস্ট-পারফরম্যান্সের জন্য এতে অক্টা-কোর মিডিয়াটেক ৮০০ইউ ৫জি প্রসেসর রয়েছে। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক মাইইউএক্স (MyUX) কাস্টম ওএস স্কিনে চলবে। এই স্মার্টফোনে, ১০৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড লেন্স এবং ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর সমেত ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। একই সাথে, সেলফি বা ভিডিও কলিংয়ের সুবিধার্থে থাকছে ৩২ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট-ফেসিং ক্যামেরা। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এতে ৩০ ওয়াট টার্বোপাওয়ার চার্জিং টেকনোলজি সহ ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে। জানিয়ে রাখি, এই ফোন ১৩টি ৫জি ব্যান্ড সাপোর্ট করবে।

Samsung Galaxy M52 5G: স্যামসাং গ্যালাক্সি এম৫২ ৫জি স্মার্টফোনের প্রারম্ভিক মূল্য ২৫,৯৯৯ টাকা। ফোনের ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টকে এখন উল্লেখিত দামে বিক্রি করা হচ্ছে।

ফিচার : Samsung Galaxy M52 5G ফোনে, কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫ প্রটেকশন সহ একটি ৬.৭ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস (১,০৮০x২,৪০০ পিক্সেল) সুপার অ্যামোলেড প্লাস ডিসপ্লে রয়েছে। এর, এসপেক্ট রেশিও ২০:৯ ও রিফ্রেশ রেট ১২০ হার্টজ। পাঞ্চ হোল ডিজাইনের এই ডিসপ্লের কাট আউটের মধ্যে দেখা যাবে ৩২ মেগাপিক্সেলের সেলফি শুটার। আর ফোনের পিছনে দেওয়া হয়েছে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা (৬৪+১২+৫ মেগাপিক্সেল) সেটআপ। এই ৫জি স্মার্টফোনে ব্যবহার করা হয়েছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৭৮জি প্রসেসর। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক ওয়ান ইউআই ৩.১ কাস্টম স্কিনে রান করবে। তদুপরি, সিকিউরিটির জন্য ফোনে থাকছে সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এতে, ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে, যা ২৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজি সহ এসেছে। এই ফোনে ১১টি ৫জি ব্যান্ড সাপোর্ট করবে।

Xiaomi Mi 10i: শাওমি এমআই ১০আই স্মার্টফোনের ৬ জিবি র‍্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ২০,৯৯৯ টাকা। অন্যদিকে, ৬ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ এবং ৮ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের মূল্য যথাক্রমে, ২১,৯৯৯ টাকা ও ২৩,৯৯৯ টাকা থাকছে।

ফিচার : Xiaomi Mi 10i ফোনে, একটি ৬.৬৭ ইঞ্চির ফুল-এইচডি প্লাস LCD ডিসপ্লে সহ এসেছে, যার রিফ্রেশ রেট ১২০ হার্টজ। ফোনটি কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৫০জি ৫জি প্রসেসরে কাজ করবে। আর এতে অ্যান্ড্রয়েড ১০ ভিত্তিক এমআইইউআই ১২ কাস্টম ওএস পাওয়া যাবে। ফটোগ্রাফির জন্য ফোনে, ১০৮ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি সেন্সর সমেত একটি কোয়াড-রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ দেওয়া হয়েছে। একই সাথে, ফোনের সামনে থাকছে একটি ১৬ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা। এই হ্যান্ডসেটে, ৪,৮২০ এমএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে, যা ৩৩ ওয়াট ফাস্ট-চার্জিং সাপোর্ট করবে।

Realme GT Master Edition: রিয়েলমি জিটি মাস্টার এডিশনের প্রারম্ভিক মূল্য ২৫,৯৯৯ টাকা। এই দাম ফোনের ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ যুক্ত বেস ভ্যারিয়েন্টের।

ফিচার : স্যুটকেস সারফেস অনুপ্রাণিত ‘horizontal grid’ স্টাইল ডিজাইনের সাথে আসা Realme GT Master Edition ফোনে রয়েছে, একটি ৬.৪৩ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে। এই ডিসপ্লের রিফ্রেশ রেট ১২০ হার্টজ এবং টাচ স্যাম্পলিং রেট ৩৬০ হার্টজ। উক্ত ফোনে, ২.৪ গিগাহার্টজ ক্লক রেটের অক্টা-কোর কোয়ালকম স্ন‌্যাপড্রাগন ৭৭৮জি প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক রিয়েলমি ইউআই ২.০ (Realme UI 2.0) কাস্টম স্কিনে চলবে। ফোনের ব্যাক প্যানেলে থাকছে ট্রিপল ক্যামেরা (৬৪+৮+২ মেগাপিক্সেল) সেটআপ। এছাড়া, ৩২ মেগাপিক্সেলের একটি সেলফি ক্যামেরাও দেওয়া হয়েছে ফোনে। তদুপরি, সিকিউরিটির জন্য ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরের সুবিধা মিলবে। ফ্ল্যাগশিপ গ্রেডের এই স্মার্টফোন ৪,৩০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি সহ এসেছে, যা ৬৫ ওয়াট সুপারডার্ট চার্জিং সাপোর্ট করে।

শুভেচ্ছা বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী। তিনি একদিকে যেমন ফটোগ্রাফার, তেমনি পাশাপাশি লেখিকাও। এছাড়াও তার শখের মধ্যে আছে বই পড়া, গান গাওয়া, ছবি আঁকা এবং ওয়েব ডিজাইন। শুভেচ্ছা আমাদের টেকগাপ পরিবারের একজন নতুন সদস্য।