১৫০০০ টাকার কমে এই ৫টি ফোন হবে আপনার প্রথম পছন্দ

এখনকার দিনে প্রায় সব স্মার্টফোনই অত্যাধুনিক ফিচারের সাথে লঞ্চ হয়। ফ্ল্যাগশিপ হোক বা বাজেট ফোন, ক্যামেরা থেকে পারফরম্যান্স সবকিছু দিনকে দিন উন্নত হচ্ছে। তবে এর মধ্যেও কিছু ফোন খুব জনপ্রিয়তা পাচ্ছে আবার কিছু ফোন সেভাবে নজর কাড়ছে না। একটু ভালোভাবে দেখলেই বুঝতে পারবো যেসমস্ত ফোন খুব বেশি জনপ্রিয়তা পাচ্ছে সেগুলো সব ‘ভ্যালু ফর মানি’ স্মার্টফোন। আজ আমরা আপনাদেরকে এইরকম ৫টি ভ্যালু ফর মানি স্মার্টফোনের কথা বলবো।

Samsung Galaxy M30 : দাম শুরু ১৪৯৯০ টাকা

Samsung Galaxy M30 তে পাওয়া যাবে একটি ৬.৩৮ ইঞ্চির সুপার অ্যামোলেড ইনফিনিটি U ডিসপ্লে। এটির স্ক্রিন রেজল্যুশন হবে ১০৮০×২২২০ পিক্সেল। ফোনটিকে প্রায় বেজেললেসই বলা চলে।নতুন এই স্মার্টফোনটিতে আছে ৪জিবি/ ৬জিবি র‌্যাম এবং ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। ফোনটি চলে স্যামসাং এর নিজস্ব এক্সিনোস ৭৯০৪ অক্টা-কোর প্রসেসরের দ্বারা। এই ফোনটির অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ৮.০ ওরিও এবং সাথে স্যামসাংয়ের এক্সপিরিয়েন্স ইউআই দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া ফোনটিতে আছে একটি ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ। যার প্রধান ক্যামেরাটি ১৩ মেগাপিক্সেলের (f/১.৯), দ্বিতীয়টি ৫ মেগাপিক্সেলের(f/২.২) এবং তৃতীয়টি ৫ মেগাপিক্সেলের (f/২.২) । মনে করা হচ্ছে তৃতীয় লেন্সটি হবে একটি ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স। এছাড়াও সামনে একটি ১৬ মেগাপিক্সেলের (f/২.০) সেলফি ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। ফোনটিতে আছে একটি ৫০০০ এমএএইচ এর বিশাল ব্যাটারি যা ১৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ।

Redmi Note 7 Pro : দাম শুরু ১৩৯৯৯ টাকা

এই ফোনে ৬.৩ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস LTPS ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে,যার আসপেক্ট রেশিও হলো ১৯.৫:৯ এবং স্ক্রিন রেজোলিউশন ১০৮০×২৩৪০ পিক্সেল।স্ক্রিনের সুরক্ষার জন্য কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫ আছে। এই ফোন ২.০ গিগাহার্টজ স্ন্যাপড্রাগন ৬৭৫ অক্টা কোর প্রসেসরের সাথে লঞ্চ হয়েছে .ফোনটি ৪ জিবি ও ৬ জিবি র‍্যামের সাথে এসেছে।এছাড়াও ফোনে ৬৪ জিবি ও ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ রয়েছে।

ফটোগ্রাফির জন্য এই ফোনে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরার দেওয়া হয়েছে।যার প্রাথমিক ক্যামেরাটি Sony IMX586 সেন্সরের সাথে ৪৮ মেগাপিক্সেলের(এফ/১.৮ অ্যাপারচার) এবং দ্বিতীয়টি LED ফ্লাশের সাথে ৫ মেগাপিক্সেলের।আবার সেলফির জন্য ১৩ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা আছে। ফোনটিতে কুইক চার্জ প্রযুক্তি যুক্ত ৪০০০ এমএএইচ ব্যাটারি রয়েছে।

Asus Zenfone Max Pro M2 : দাম শুরু ১২৯৯৯ টাকা

এই ফোনে ৬.২৬ ইঞ্চির একটি IPS LCD স্ক্রিন দেওয়া হয়েছে যার আসপেক্ট রেশিও ১৯:৯ এবং স্ক্রিন রেজল্যুশন ১০৮০×২২৮০ পিক্সেল। এই স্ক্রিনে গোরিলা গ্লাস ৬ ব্যবহার করা হয়েছে।এই স্মার্টফোনটি তিনটি স্টোরেজ বিকল্পের সাথে লঞ্চ হয়েছে- ৩ জিবি র‌্যাম + ৩২ জিবি স্টোরেজ, ৪ জিবি র‌্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজ এবং ৬ জিবি র‌্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজ।প্রসেসরের কথা বললে এই ফোনে অক্টা কোর ৬৪ বিট স্ন্যাপড্রাগন ৬৬০ প্রসেসর দেওয়া হয়েছে যার স্পিড ১.৯৫ গিগাহার্ত্জ।

ফটোগ্রাফির জন্য এই স্মার্টফোনে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা আছে যার প্রধান টি ১২ মেগাপিক্সেল ও অপরটি EXMOR-RS CMO সেন্সরের সাথে ৫ মেগাপিক্সেল।এই ক্যামেরায় অটোফোকাস, ফেস ডিটেকশান, HDR মোড রয়েছে। পিছনের ক্যামেরায় LED ফ্ল্যাশ ও রয়েছে।সামনে ১৩ মেগাপিক্সেল এর ২.০ অ্যাপারচার এর লেন্স ব্যবহার করা হয়েছে।আপনি এতে ১৯২০X১০৮০ পিক্সেল @30fps ভিডিও রেকর্ডিংও করতে পারবেন।

আসুস জেনফোন ম্যাক্স প্রো M2 ফোনে কোয়ালকম কুইক চার্জের সাথে ৫০০০ এমএএইচ এর ব্যাটারি আছে যেটি আপনাকে ৪০ ঘন্টার 3G কলিং টকটাইম দেবে।এই স্মার্টফোনটিতে আপনি OTG কেবিল সাপোর্ট পাবেন।এতে মাইক্রো ইউএসবি ২.০ পোর্ট এবং ব্লুটুথ ভার্সান ৫.০ দেওয়া হয়েছে।

Realme 3 : দাম শুরু ৮৯৯৯ টাকা

এই ফোনে গরিলা গ্লাসের সুরক্ষার সাথে ৬.২ ইঞ্চি নচ ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে।প্রসেসর,র‌্যাম ও স্টোরেজের কথা বললে এতে আপনি পাবেন মিডিয়াটেক Helio P70 প্রসেসর,৩ ও ৪ জিবি র‌্যাম এবং ৩২ ও ৬৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড পাইয়ের সাথে ColorOS 6.0 অপারেটিং সিস্টেমে চলে।

৪২৩০ এমএএইচ ব্যাটারির সাথে আসা এই ফোনে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। যার প্রথমটি ১৩ মেগাপিক্সেলের (এফ/১.৩ অ্যাপারচার) এবং দ্বিতীয়টি ২ মেগাপিক্সেলের।রিয়ার ক্যামেরার সাথে ৫পি লেন্স,নাইটস্ক্যাপ,হাইব্রিড এচডিআর,ক্রোমা বুস্ট,পোর্ট্রেট মোড ইত্যাদি ফিচার আছে। আবার সেলফির জন্য দেওয়া হয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা।ফ্রন্ট ক্যামেরার সাথে এআই বেয়াউটিফিকেশন, এইচডিআর এবং এআই ফেসিয়াল আনলক-র মতো ফিচার ও আছে।

Vivo Y91i : দাম শুরু ৭৯৯৯ টাকা

ডুয়াল ন্যানো সিমের সাথে আসা Vivo Y91i ফোনে ৬.২২ ইঞ্চি এইচডি প্লাস ফুল ইন সেল ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে।যার আসপেক্ট রেশিও ১৯:৯ ও স্ক্রিন রেজল্যুশন ১৫২০x৭২০ পিক্সেল। প্রসেসর ও র‌্যামের কথা বললে এতে পাবেন অক্টা কোর মিডিয়াটেক হেলিও পি ২২ চিপসেট ও ২ জিবি র‌্যাম।ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ৮.১ ওরিও অপারেটিং সিস্টেমে চলবে।

ফটোগ্রাফির জন্য এই ফোনে পাবেন এলইডি প্লাসের সাথে ১৩ মেগাপিক্সেলের (এফ/২.২ অ্যাপারচার) রিয়ার ক্যামেরা ও ৫ মেগাপিক্সেল (এফ/২.২ অ্যাপারচার) ফ্রন্ট ক্যামেরা।ভালো ছবির জন্য আগে থেকেই এই ফোনে বিউটি ফেস লোড করা আছে। এছাড়াও এই ফোনে পাবেন শক্তিশালী ৪০৩০ এমএএইচ-র ব্যাটারি।

ফোনগুলি কিনতে নিচের লিংকে ক্লিক করুন :

Vivo Y91i

Realme 3

Asus Zenfone Max Pro M2

Samsung Galaxy M30

পড়ুন : ১০০০০ টাকার মধ্যে ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজের সেরা ফোনগুলির তালিকা