১০০০০ টাকার মধ্যে ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজের সেরা ফোনগুলির তালিকা

  

এই মুহূর্তে বাজারে স্মার্টফোনের ছড়াছড়ি।কোনটা ছেড়ে কোনটা কিনবেন সেটাই বুঝে ওঠা দায়। প্রায় প্রতিদিন নতুন নতুন ফিচারের সাথে ফোন লঞ্চ হচ্ছে।তবে বাজেট রেঞ্জে ভালো ফোন পাওয়া তুলনামূলক ভাবে কঠিন। আজ আমরা ১০০০০ টাকার মধ্যে ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজের সেরা স্মার্টফোনগুলো সম্পর্কে কথা বলবো।

InFocus Vison 3 Pro :

এই ফোনটিকে গত বছর ভারতে লঞ্চ করা হয়েছিল।ভারতে InFocus Vison 3 Pro এর মূল্য ৮৪৮৮ টাকা।ফোনটি কেবলমাত্র ফ্লিপকার্টে পাওয়া যাবে।

InFocus Vison 3 Pro ফোনে ৫.৭ ইঞ্চি এইচডিপ্লাস ডিসপ্লে আছে।যার স্ক্র্রিন রেজল্যুশন ৭২০×১৪৪০ এবং আসপেক্ট রেশিও ১৮:৯।এই ফোনে মিডিয়াটেক এমটি ৬৭৫০ অক্টা কোর প্রসেসর ও ৪ জিবি র‌্যাম দেওয়া হয়েছে।

ফটোগ্রাফির জন্য এই ফোনে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা আছে যার প্রাইমারি সেন্সর ১৩ মেগাপিক্সেল ও সেকেন্ডারি সেন্সর ৮ মেগাপিক্সেল।এছাড়াও আছে ১৩ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা।ফোনে ৪০০০ এমএএইচ এর শক্তিশালী ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে।

Micromax Canvas Infinity Pro :

৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজের সাথে আসা মাইক্রোম্যাক্স ক্যানভাস ইনফিনিটি প্রো -র ভারতে দাম ৯৯৯৯ টাকা।এই ফোনটিও কেবল ফ্লিপকার্টে পাওয়া যাবে।

InFocus Vison 3 Pro এর মতো এই ফোনেও ৫.৭ ইঞ্চি এইচডিপ্লাস ডিসপ্লে আছে।যার স্ক্র্রিন রেজল্যুশন ৭২০×১৪৪০ এবং আসপেক্ট রেশিও ১৮:৯।ফোনটিকে শক্তিশালী করতে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৪৩০ প্রসেসর দেওয়া হয়েছে।মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এই ফোনের স্টোরেজ ২৫৬ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যায়।

এই ফোনেও ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে যার প্রাইমারি সেন্সর ২০ মেগাপিক্সেল এবং সেকেন্ডারি সেন্সর ৮ মেগাপিক্সেল।এছাড়াও সেলফির জন্য ১৬ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা আছে। মাইক্রোম্যাক্স ক্যানভাস ইনফিনিটি প্রো ফোনে ৩০০০ এমএএইচ ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে।

এছাড়াও আপনি যদি ১০০০০ টাকার মধ্যে ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজের আরও কয়েকটি ফোন চান তবে Lenovo K8 Note, Coolpad Note 6, InFocus Snap 4 আপনার জন্য ভালো বিকল্প হবে।

পড়ুন : ভারতে লঞ্চ হওয়ার আগেই ২৮ দিনে ১০ লক্ষ রেডমি নোট ৭ বিক্রি