Smartphones: দাম ২০ হাজার টাকার কম, ৮ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম ও ১২৮ জিবি মেমোরির ফোন দেখে নিন

২০,০০০ টাকার কমে Realme, Samsung, Oppo-এর মতো নামিদামি সংস্থাগুলির ফিচার ঠাসা মিড-রেঞ্জ স্মার্টফোনগুলি দেখে নিন

best-smartphones-under-rs-20000-with-8gb-ram-128gb-storage

আমাদের জীবনের নিত্যপ্রয়োজনীয় বস্তুগুলির মধ্যে এখন মোবাইলও নিজের জায়গা বানিয়ে নিয়েছে। বিশেষত লকডাউনকালীন যাদের কাজ বা পড়াশোনা স্মার্টফোন ভিত্তিক হয়ে উঠেছে, তাদের জন্য এই যন্ত্রটি কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা অনুমান সাপেক্ষ। তবে ফোন যদি অ্যাডভান্স ও শক্তিশালী না হয়, তবে কাজের সময় ভোগান্তির মুখে পড়তে হয়। তাই আজ আমরা এই প্রতিবেদনে ৮ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ যুক্ত স্মার্টফোনের প্রসঙ্গে জানাবো। স্টোরেজ বেশি হওয়ার পাশাপাশি এগুলির প্রসেসরও লেটেস্ট। সেক্ষেত্রে, এখানে উল্লেখিত প্রত্যেকটি স্মার্টফোনে আপনারা অক্টা কোর প্রসেসর পেয়ে যাবেন। সাথে ট্রিপল বা কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা এবং ৬,০০০ এমএএইচ পর্যন্ত ব্যাটারিও উপলব্ধ। আর দাম থাকবে ২০,০০০ টাকার মধ্যেই। তাহলে আসুন Realme, Samsung, Oppo-এর মতো নামিদামি সংস্থাগুলির ফিচার ঠাসা মিড-রেঞ্জ স্মার্টফোনগুলির উপর চোখ বুলিয়ে নিই…

২০,০০০ টাকার নিচে উপলব্ধ স্মার্টফোনের তালিকা

Realme narzo 30 : ১৫,৪৯৯ টাকা

এই দাম ফোনের ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের। রিয়েলমি নারজো ৩০, ৬.৫ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১০৮০ x ২৪০০ পিক্সেল) ডিসপ্লের সাথে এসেছে। এর রিফ্রেশ রেট ৯০ হার্টজ এবং পিক্সেল ডেনসিটি ৪০৫ পিপিআই। এতে মিডিয়াটেক হেলিও জি৯৫ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। এই ফোনে পাওয়া যাবে অ্যান্ড্রয়েড ১১ অপারেটিং সিস্টেম। ফটোগ্রাফির জন্য রিয়েলমির এই ফোনে ৪৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর যুক্ত কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ দেওয়া হয়েছে। আর, সেলফি তোলার জন্য থাকছে এফ/২.১ অ্যাপারচার সহ ১৬ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। আবার ফোনটি এসেছে ৫,০০০ এমএএইচ পাওয়ারের ব্যাটারি সাথে।

Oppo A74 5G : ১৭,৯৯০ টাকা

উল্লেখিত মূল্যটি ফোনের ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের। অপ্পো এ৭৪ ৫জি ফোনে আছে ৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের ৬.৫ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস (১০৮০ x ২৪০০ পিক্সেল) ডিসপ্লে। এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৪৮০ ৫জি প্রসেসর। ক্যামেরা ফ্রন্টের কথা বললে, এতে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এগুলি হল, ৪৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর এবং ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর। একই সাথে থাকছে ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি সেন্সর। সিকিউরিটির জন্য ফোনে সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর উপলব্ধ। আর, পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য উক্ত ফোনে ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে।

Redmi Note 10S : ১৬,৪৯৯ টাকা

এটি হল রেডমি নোট ১০এস ফোনের ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম। ফোনটি, ৬.৪৩ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস (১০৮০x২৪০০) পাঞ্চ হোল অ্যামোলেড ডট ডিসপ্লে সহ এসেছে। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক এমএআইইউআই ১২.৫ ওএস চালিত। ফাস্ট পারফরম্যান্সের জন্য এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে মালি জি৭৬ এমসি৪ জিপিইউ সমেত মিডিয়াটেক হেলিও জি৯৫ অক্টা কোর প্রসেসর। ফটোগ্রাফির জন্য এর ব্যাক কোয়াড ক্যামেরা বর্তমান। এগুলি হল, ৬৪ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স, ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর ও ২ মেগাপিক্সেল মাক্রো সেন্সর। সেলফি ও ভিডিও কলের জন্য এতে ১৩ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে। আবার, সিকিউরিটির জন্য পাওয়া যাবে সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। রেডমি নোট ১০এস ফোনে আছে ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি, যা ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে।

Samsung Galaxy M32 : ১৬,৯৯৯ টাকা

স্যামসাং গ্যালাক্সি এম৩২ ফোনের ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট কিনতে ১৬,৯৯৯ টাকা লাগবে। যদিও মাইক্রোএসডি কার্ড ব্যবহার করে ১ টেরাবাইট পর্যন্ত বাড়ানো যাবে এর স্টোরেজ ক্যাপাসিটি। এতে, ৬.৪ ইঞ্চির সুপার অ্যামোলেড ইনফিনিটি ইউ-কাট ডিসপ্লে দেখা যাবে। ফাস্ট পারফরম্যান্সের জন্য থাকছে, মিডিয়াটেক হেলিও জি৮০ অক্টা কোর প্রসেসর। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক ওয়ানইউআই ৩.১ কাস্টম স্কিনে রান করবে। ছবি তোলার সুবিধার্থে ফোনে দেওয়া হয়েছে কোয়াড-রিয়ার ক্যামেরা (৬৪ মেগাপিক্সেল, ৮ মেগাপিক্সেল, ২ মেগাপিক্সেল, ২ মেগাপিক্সেল) সেটআপ এবং ২০ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। আর পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য ৬,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি রয়েছে।

Vivo Y51A : ১৭,৯৯০ টাকা

উল্লেখিত মূল্যটি ফোনটির ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের। ভিভো ওয়াই ৫১এ ফোনে, ৬.৫৮ ইঞ্চির এইচডি প্লাস (২৪০৮x১০৮০ পিক্সেল) ডিউ ড্রপ নচ ডিসপ্লে দেখা যাবে। দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দিতে ভিভোর এই ফোনটি এড্রেনো ৬১০ জিপিইউ ও কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৬২ প্রসেসর সহ এসেছে। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক ফানটাচ ওএস -এ চলবে। আবার ফটোগ্রাফির জন্য এতে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ‌ বর্তমান। এই ক্যামেরাগুলি হল ৪৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স এবং ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর। সেলফি ও ভিডিও কলের জন্য থাকছে ১৬ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। সিকিউরিটির জন্য এতে সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর রয়েছে। আর পাওয়া যাবে ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি, যার সাথে ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে।

শুভেচ্ছা বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী। তিনি একদিকে যেমন ফটোগ্রাফার, তেমনি পাশাপাশি লেখিকাও। এছাড়াও তার শখের মধ্যে আছে বই পড়া, গান গাওয়া, ছবি আঁকা এবং ওয়েব ডিজাইন। শুভেচ্ছা আমাদের টেকগাপ পরিবারের একজন নতুন সদস্য।