সাবধান, ফোনে এই দুই ইঙ্গিত পেলেই হতে পারেন সিম সোয়াপ জালিয়াতির শিকার

beware-of-sim-swap-fraud-from-these-2-indications

বর্তমানে অনলাইন জালিয়াতির ঘটনা এতই বেড়েছে যে, দু-চার দিনের ব্যবধানে খবরের শিরোনামে উঠে আসে নতুন কোনো কেলেঙ্কারীর কথা। প্রতারকরা, সাধারণ মানুষকে বোকা বানাতে রোজ বিভিন্ন রকমের ফন্দি-ফিকির আঁটছে, যার সিকিভাগও আমরা আন্দাজ করতে পারিনা। সম্প্রতি, মোবাইল সিম কার্ড সংক্রান্ত এমনই একটি জালিয়াতি সম্পর্কে সচেতন করছে আইসিআইসিআই (ICICI) ব্যাংক। দেশের অন্যতম জনপ্রিয় ব্যাংকটি একটি টুইট পোস্টে, SIM Swap (সিম অদলবদল) জালিয়াতির শিকার হলে কিভাবে বোঝা যাবে তা শেয়ার করেছে।

এখন আপনাদের অনেকের মনেই প্রশ্ন উঠবে, ‘সিম সোয়াপ’ বা ‘সিম ক্লোন’ কী?

এটির মূল অর্থ নম্বর এক রেখে সিম কার্ড পরিবর্তন। এতে, হ্যাকাররা আপনার সিমটি ব্লক করে এবং তাদের কাছে ওই একই নম্বর অ্যাক্টিভ করে। আর এই নম্বর যদি আপনার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের সাথে লিঙ্ক থাকে, তবে হ্যাকাররা সুবিধা পেয়ে যায়। তারা ব্যাংকের অ্যাক্সেস নিয়ে ক্লোন করা সিমে ওটিপি পাঠায়। যেহেতু নম্বরটি তাদের কাছেই সক্রিয় আছে, তাই সহজেই সেই ওটিপি সাবমিট করে অ্যাকাউন্ট খালি করে দেয়।

আইসিআইসিআই, তার টুইট পোস্টে একটি লিঙ্ক শেয়ার করেছে, যেখানে সিম সোয়াপ সংক্রান্ত জালিয়াতি সম্পর্কে আরো বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। ওই লিঙ্ক থেকে জানা যায়, স্ক্যামাররা ইউজারের ব্যাঙ্কিং ডিটেইলস পেতে প্রথমে ফিশিং ইমেল পাঠায়। অনেক সময় তথ্য চুরি করতে তারা ট্রোজান বা ম্যালওয়্যার ব্যবহার করে। ভিক্টিমদের ব্যক্তিগত তথ্য হাতে পাওয়ার পর, তারা ওই ইউজারের নকল আইডি তৈরি করে এবং সিম কার্ডে অ্যাক্সেস পাওয়ার চেষ্টা করে।

কিভাবে বুঝবেন আপনার সিম অন্য কেউ ব্যবহার করছে?

ব্যাঙ্কের টুইট অনুযায়ী, যদি আচমকা আপনার ফোনে নেটওয়ার্ক সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়, এবং দীর্ঘ সময় ধরে আপনার মোবাইল নম্বরটিতে কোনো ফোন কল/মেসেজ/অ্যালার্ট নোটিফিকেশন না আসে, তাহলে হতে পারে আপনি সিম সোয়াপ জালিয়াতির শিকার। তাই এমন কোনো সমস্যা হলে খুব শীঘ্রই টেলিকম অপারেটরের সাথে যোগাযোগ করবেন।