ফেসবুকে ‘নিশা জিন্দল’ আপনি নন‌ তো? ধরা পড়লে ৭ বছর পর্যন্ত জেল

Fake Facebook Profile

যদি আপনিও ফেসবুকে ফেক প্রোফাইল তৈরি করে ব্যবহার করেন তাহলে সাবধান হোন। ফেসবুকে ফেক প্রোফাইল নিয়ে সম্প্রতি একটি ঘটনা সামনে এসেছে, যেখানে রবি পূজার নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রবি একজন ইঞ্জিনিয়ারিং স্টুডেন্ট। সে ফেসবুকে নিশা জিন্দল নামে একটি ফেক প্রোফাইল চালাতেন।

প্রোফাইল পিকচারে সুন্দর ছবি দেখায় নিশা জিন্দলের ফলোয়ার শীঘ্রই পৌঁছে গিয়েছিল দশ হাজারে। রবি পূজার ওরফে নিশা জিন্দল ফেসবুকে ভয় ধরানো পোস্ট করতো। এরপর পুলিশ নিশা জিন্দালের আইপি ট্র্যাক করে তাকে গ্রেফতার করতে গেলে, দেখে যে এই প্রোফাইলের মালিক আর কেউ নন, তিনি রবি পূজার।

রবি পূজার ওরফে নিশা জিন্দলের ভুয়ো প্রোফাইলে ৪,০০০ বন্ধু ছিল। যার মধ্যে ব্যবসায়ী, পুলিশ কর্মী, সাংবাদিক সামিল ছিল। পুলিশ জানিয়েছে এই প্রোফাইলে একজন পাকিস্তানী মডেলের ছবি লাগানো ছিল। এই প্রোফাইল থেকে নিয়মিত সামাজিক বিশৃঙ্খলা ঘটানোর চেষ্টা করা হতো।

সাইবার ক্রাইম ল এক্সপার্ট পবন দুগ্গল জানিয়েছেন, ফেসবুকে ফেক প্রোফাইল তৈরি করা পরিচয় চুরির বিভাগে পড়ে। এই অপরাধে আইটি অ্যাক্ট ৬৬সি অনুযায়ী দোষী কে ৩ বছরের সাজা ও জরিমানা করা হবে। আবার এই কাজে যদি কোন ব্যক্তির সম্মানহানি হয় তাহলে ধারা ৪৬৮ এবং ৪৬৯ অনুযায়ী ৭ বছরের জেল হবে।

তাই আপনিও যদি রবি পূজারের মত ফেক প্রোফাইল তৈরি করে ফেসবুকে ব্যবহার করেন, তাহলে সতর্ক হোন এবং প্রোফাইল বন্ধ করুন।