দেশের প্রথম 5G ক্লাউড গেমিং পরীক্ষায় সফল Airtel, অবিশ্বাস্য ফলাফলে বাকরুদ্ধ টেলিকম-মহল

Airtel সম্প্রতি 5G নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে ভারতের প্রথম ক্লাউড-গেমিং সেশন আয়োজন করেছিল

bharti-airtel-gets-super-results-in-india-first-5g-cloud-gaming-test

5G সংক্রান্ত পরীক্ষা-নিরীক্ষায় দেশের অন্যতম প্রধান টেলিকম অপারেটর এয়ারটেল (Airtel) অনেকটাই এগিয়ে গেলো। অন্যান্য টেলিকম অপারেটর সংস্থাগুলি যখন 5G নেটওয়ার্কের জন্য দরকারি পরিকাঠামো নির্মাণে ব্যস্ত, ঠিক সেইসময় Airtel সফলভাবে 5G ক্লাউড গেমিংয়ের প্রচেষ্টা সম্পূর্ণ করলো। এক্ষেত্রে মর্টাল (নমন মাথুর) ও মাম্বা (সালমান আহমেদ) নামক দেশের শীর্ষস্থানীয় দু’জন ই-স্পোর্টস গেমার তাদের সঙ্গ দিয়েছে। 5G পরিষেবা ব্যবহার করে ক্লাউড গেমিংয়ের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পাশাপাশি যে ফলাফল সামনে এসেছে তা এয়ারটেল অনুরাগীদের হৃৎস্পন্দন বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট। সুতরাং দেরী না করে আসুন এই বিষয়ে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

5G নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে ভারতের প্রথম ক্লাউড-গেমিং সেশন আয়োজন করলো Airtel

এয়ারটেলের উদ্যোগ প্রথমবারের জন্য দেশে 5G ক্লাউড গেমিংয়ের স্বপ্নকে বাস্তবে রূপায়িত করেছে। এক্ষেত্রে গেমারদের সঙ্গে নিয়ে সংস্থা প্রায় অসাধ্য সাধন করে দেখিয়েছে। ফলাফল এসেছে হাতেনাতে। আপাতত পরিষেবায় কোনোরকম খুঁত সংস্থার নজরে আসেনি। গুরগাঁও শহরে 5G ক্লাউড গেমিং ইভেন্টের পরীক্ষামূলক আয়োজনের শেষে এই নিখুঁত পরিষেবার দাবী সংস্থার শীর্ষস্থানীয়দের মুখে মুখে ফিরছে। অত্যন্ত কম ল্যাটেন্সি এবং দুর্দান্ত ডাউনলোড গতি এয়ারটেলের পরিকল্পনাকে প্রত্যাশার থেকে বেশী সফল করেছে।

আলোচ্য পরীক্ষার সময় এয়ারটেলের নিজস্ব 5G নেটওয়ার্ক মাত্র ১০ এমএসের (ms) ল্যাটেন্সি এবং প্রায় ১ জিবিপিএস (Gbps) ডাউনলোড গতি প্রদান করেছে বলে সংস্থা জানিয়েছে। এই অসাধারণ ফলাফলের উপরে ভিত্তি করে সংস্থার মুখ্য প্রযুক্তি অফিসার (Chief Technology Officer) রণদীপ সেখন ভবিষ্যতে পূর্বের থেকে ভালো গেমিং অভিজ্ঞতা সরবরাহের ব্যাপারে নিশ্চয়তা দিয়েছেন। বিশেষ করে গত দুই বছরে মোবাইল গেমিং ব্যবসায় যে বৃদ্ধি লক্ষ্য করা গেছে, তাদের 5G পরিষেবার উত্থানে সেটি আরো উঁচু শিখর স্পর্শ করবে বলে সেখনের দাবী।

সবথেকে বড় কথা 5G নেটওয়ার্কের ব্যবহারের ফলে মাল্টিপ্লেয়ার অর্থাৎ একাধিক প্লেয়ারযুক্ত গেমিংয়ের আস্বাদ পুরোপুরি বদলে যাবে। এর ফলে মোবাইল গেমিং আগের থেকেও জনপ্রিয় হবে বলে অভিজ্ঞ মহলের বক্তব্য। তাছাড়া এয়ারটেলের পরীক্ষামূলক প্রযুক্তি ভবিষ্যতে সত্যিই ভালো পরিষেবার স্বপ্ন দেখাচ্ছে। উল্লেখ্য, হায়দ্রাবাদে এয়ারটেল ডায়নামিক স্পেক্ট্রাম শেয়ারিং (Dynamic Spectrum Sharing) বা ডিএসএস (DSS) প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়েছে যা ১৮০০ মেগাহার্টজের (MHz) স্পেক্ট্রাম ব্যবহারের মাধ্যমে সম্পন্ন হয়েছে।

দেশের বিভিন্ন প্রান্তে Airtel তাদের 5G পরিকাঠামোকে খতিয়ে দেখছে। এক্ষেত্রে ইক্যুইপমেন্ট ভেন্ডর হিসেবে তাদের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করছে অতিপরিচিত সংস্থা নোকিয়া (Nokia) ও সোনি এরিকসন (Sony Ericsson)। Airtel ও উক্ত সংস্থাদ্বয়ের তত্ত্বাবধানে গ্রাহকেরা আগামীদিনে দমদার পরিষেবা প্রাপ্তির আশা করতেই পারেন। 5G ক্লাউড গেমিংয়ের পরীক্ষা সফল হওয়ায় এই আশা আরো দৃঢ় ভিত্তির উপরে পোক্ত হলো।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

One of the newest members of the Techgup Family. Soumo grew his liking for gadgets almost a decade back while searching for his first smartphone, and started writing about tech recently in 2020