অ্যান্ড্রয়েডকে আসতে দেওয়াই তার জীবনের সবচেয়ে বড় ভুল, জানালেন বিল গেটস

টেকনোলজি কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতারা সকলেই তাদের কোম্পানি প্রতিষ্ঠার সময় কিছু না কিছু ভুল করেছেন। তবে তারা কখনোই তো স্বীকার করতে রাজি হন না। হয়তো সেটা তাদের কোম্পানি স্ট্র্যাটেজি ছিল যা কোনো কারণে ভুল হয়ে গেছে অথবা হয়তো সেগুলি বললে তাদের কোন সমস্যায় পড়তে হতে পারে। গতকাল এ রকমই মন্তব্য করলেন মাইক্রোসফট কর্পোরেশনের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস। ভিলেজ গ্লোবাল এর দ্বারা আয়োজিত একটি প্রেস কনফারেন্সে টিকেটিং এবং ইভেন্ট টেকনোলজি প্ল্যাটফর্ম ইভেন্ট ব্রাইটের সিইও শ্রীমতি জুলিয়া হার্ৎজের সঙ্গে কথোপকথনের সময়ে তিনি এই কথাগুলি বলেন। বিল জানান তিনিও নিজে প্রথম জীবনে অর্থাৎ মাইক্রোসফট প্রতিষ্ঠাকালে এরকমই কিছু ভুল করেছিলেন।

আলোচনায় গেটস মাইক্রোসফট প্রতিষ্ঠাকালে নিজের এক্সপেরিয়েন্স এর কথা আমাদের শেয়ার করেন। তিনি জানান,” আমাকে এই প্রতিষ্ঠান শুরু করার সময় বারংবার অনেক কঠিন পদক্ষেপ নিতে হয়েছিল।” গেটস আরো যোগ করেন,” প্রত্যেকটি কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতাকেই প্রথম দিকে অনেক বড় বড় উৎসর্গ করতে হয়। এগুলো আরো বেশি হয় যদি কোম্পানিটি সফটওয়্যার, মহাকাশ অথবা ইঞ্জিনিয়ারিং সেক্টরের হয়।

বিল গেটসের কিছু ভুল-

গেট জানান যে তার সবচেয়ে বড় ভুল ছিল অ্যান্ড্রয়েডের থেকে মাইক্রোসফটের স্মার্টফোন মার্কেটে হেরে যাওয়া। তিনি জানান যেকোন সেক্টরে রাজত্ব করা মানে সব দিকে সমানভাবে রাজত্ব করা। তিনি বলেন তারই কিছু ভুলের কারণে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপেলকে পিছনে ফেলে সবচেয়ে বড় স্মার্টফোন প্ল্যাটফর্ম হয়ে গেছে এখন, যে জায়গাটা খুব সহজেই মাইক্রোসফটের হতে পারত।

গেটস আরো জানান অ্যান্ড্রয়েড হল প্রায় 400 বিলিয়ন মার্কিন ডলারের একটি কোম্পানি, যেটা মাইক্রোসফটও হতে পারতো, তবে তার ভুলের জন্য হয়নি। কিন্তু তিনি আরো বলেন এত ভুল করা সত্ত্বেও মাইক্রোসফটের অগ্রগতি দেখে তিনি অবাক। তিনি আরো জানান উইন্ডোজ এবং মাইক্রোসফট অফিস এখনো মার্কেটে বেশ শক্তিশালী জায়গা দখল করে রয়েছে। তবে তিনি জানান যে যদি মাইক্রোসফট সেই সময় কোন ভুল না করত তাহলে মাইক্রোসফটই টেক জগতে এক মাত্র কোম্পানি হত।

পড়ুন : মোবাইল ব্যাবহারে ক্যান্সার সহ এই মারণরোগ বাসা বাঁধছে আমাদের শরীরে

সব খবর পড়তে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন – এখানে ক্লিক করুন

টেক ভিডিও দেখার জন্য আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন – এখানে ক্লিক করুন

সমস্ত খবরের আপডেট পেতে এখানে লাইক দিন!