বিনিয়োগের আগে সাবধান! এই কারণে আরও কমতে পারে Bitcoin-র মূল্য

অজ্ঞাতপরিচয় দুটি ওয়ালেটের মধ্যে বিটকয়েনের বিপুল পরিমাণ মূল্য স্থানান্তকরণের ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে

bitcoins-worth-nearly-1-billion-dollar-transferred-into-anonymous-wallet

একটানা ট্রেডমূল্যের উর্ধ্বমুখী ট্রেন্ড ধরে রাখার পর হঠাৎই বাজারদরে বেশ কিছুটা পতন ঘটিয়ে সম্প্রতি খবরে উঠে এসেছে বিশ্বের প্রাচীনতম ক্রিপ্টো মুদ্রা, বিটকয়েন (Bitcoin)। এবার, অজ্ঞাতপরিচয় দুটি ওয়ালেটের মধ্যে বিটকয়েনের বিপুল পরিমাণ মূল্য স্থানান্তকরণের ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই, ফের টোকেনের মূল্য হ্রাসের সম্ভাবনা নিয়ে শুরু হল জল্পনা।

মোট ১৫,০৭৮ সংখ্যক বিটকয়েন (Bitcoin) একটি বেনামি ওয়ালেট থেকে আরেকটি ওয়ালেটে স্থানান্তিরত হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। যদিও,ওয়ালেট দুটির মালিকের কোনো পরিচয় এখনও পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। সূত্র মারফত খবর, স্থানান্তরিত হওয়া বিটকয়েনগুলির সর্বমোট মূল্য ৯৯৩,১৯১,০৮৮ ডলারের (প্রায় ৭,৩৯৫ কোটি টাকা ) আশেপাশে।’হোয়েল'(Whale) অ্যাকাউন্টগুলি (যেগুলি বিপুল পরিমাণ ক্রিপ্টো মুদ্রা ধারণ করে) একাই টোকেনের বাজার মূল্যে বড়সড় পরিবর্তন আনতে সক্ষম। তাই খুব স্বাভাবিকভাবেই, খবরটি প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই বিটকয়েনের বাজারমূল্যে পতনের সম্ভাবনা নিয়ে বিশিষ্ট মহলে আশঙ্কা দানা বাঁধতে শুরু করেছে।

Blockchain. Com-এর তথ্য অনুযায়ী, বিটকয়েন নেটওয়ার্কে সর্বপ্রথম এই স্থানান্তকরণটি ব্রডকাস্ট হয়েছিল নভেম্বর ১৫ তারিখে। সেই সময় ১৫,০৭৮.২০৭৬৮১৫০ সংখ্যক বিটকয়েনের বাজার মূল্য ছিল ৯৯১,৮২০,৫৬৩.৬৭ ডলারের (প্রায় ৭,৩৮৫ কোটি টাকা) কাছাকাছি। বর্তমান হিসেবে যার মোট বাজার মূল্য ৯১২,৫৬৪,১৮৯.৯৯ ডলারে (প্রায় ৬,৭৯৪ কোটি টাকা) এসে দাঁড়িয়েছে।

যেহেতু, মুদ্রাগুলি কোনো এক্সচেঞ্জ প্ল্যার্টফর্মে স্থানান্তরিত হয়নি, কাজেই সম্ভবত বাজারি লেনদেনের কারণে নয়, বরং নিরাপত্তাজনিত কারণেই এধরনের স্থানান্তর ঘটানো হয়েছে বলে অনুমান ক্রিপ্টো জগতের একাংশের।

এ সম্পর্কে প্রকাশিত একটি রিপোর্টে, স্টক রিসার্চ মার্কেট কোম্পানি, Benzinga-জানায়, এটি সম্ভবত মুদ্রাগুলির নিরাপত্তা সুনিশ্চিতকরণের উদ্দেশ্যেই নেওয়া একটি পদক্ষেপ। শুধু তাই নয়, যে কোনো এক্সচেঞ্জ প্ল্যার্টফর্মে বিটকয়েনের মূল্য ২% হ্রাস করার জন্যও কমপক্ষে ১৫ মিলিয়ন ডলার (প্রায় ১১১ কোটি টাকা) থেকে ৩০ মিলিয়ন ডলার (প্রায় ২২৩ কোটি টাকা) পর্যন্ত ক্রয় সম্পর্কিত চাপের প্রয়োজন, যা এক্ষেত্রে হয়নি।

Glassnode-এর একটি সাম্প্রতিক রিপোর্ট অনুযায়ী, বর্তমানে বাজারে মোট ৫২২,৯৫২ টি বিটকয়েন ওয়ালেটের অস্থিত্ব রয়েছে, যার সর্বমোট অ্যাসেটের মূল্য ১০০,০০০ ডলার (প্রায় ৭৫ লাখ টাকা) এবং তা যেকোনো সময় ক্রিপ্টোবাজারে মূল্য ওঠানামায় উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন আনতে সক্ষম।

উল্লেখ্য, এর আগেও চলতি বছরের মে মাস নাগাদ মোট ১৯,০০০ টোকেন বিটকয়েন ওয়ালেটে স্থানান্তর করা হয়েছিল। বর্তমান হিসেব অনুযায়ী, এটির বাজারমূল্য ১.১ বিলিয়ন (প্রায় ৮,২৩৫ কোটি টাকা)।

বিশ্বের সবচেয়ে মূল্যবান ও সর্বাপেক্ষা প্রাচীন ক্রিপ্টো মুদ্রা বিটকয়েন এই মুহূর্তে টোকেন প্রতি ৬৮,০৯৬ ডলারে (প্রায় ৫০ লাখ টাকা) ট্রেড করছে। বর্তমানে মার্কেটে মোট ক্রিপ্টো সরবরাহের পরিমাণ ১৮.৮ মিলিয়নেরও বেশী, যেটি সাতোশি নাকামোতোর (Satashi Nakamoto) (প্রচলিতভাবে যিনি বিটকয়েন প্রথম তৈরি করেন) পূর্ব নির্ধারিত ভাবে তৈরি করে রাখা ২১ মিলিয়ন টোকেনের ৯০ শতাংশ প্রায়।

সম্প্রতি রিসার্চ ফার্ম Glassnode-এর একটি গবেষণায় উঠে এসেছে আরেকটি চমকপ্রদ তথ্য। রিপোর্ট বলছে, বাজারে সর্বমোট ক্রিপ্টো টোকেনের মাত্র ১২.৯ % লেনদেনের জন্য প্রবাহিত হয় যেটি স্পষ্টতই বিনিয়োগকারীদের মুদ্রা সঞ্চয়ের প্রতি অধিক ঝোঁক কে নির্দেশ করে।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।