Bounce Infinity: পেট্রোলকে গুডবাই জানিয়ে ঘরে আনুন ই-স্কুটার, পাবেন প্রায় ৪০% কম দামে

ব্যাটারি ছাড়াই কিনতে পারবেন বাউন্সের ইনফিনিটি ই-স্কুটার৷ খরচ কমে যাবে প্রায় অর্ধেক

bounce-infinity-electric-scooter-announced-ahead-of-launch-price

বৈদ্যুতিক গাড়ি যে ব্যাটারি দিয়ে চলে, তার দর আকাশছোঁয়া। মোট দামের ব্যাটারির খরচ প্রায় ৩০-৪০%। স্বভাবতই পেট্রোলচালিত গাড়ির চেয়ে বিদ্যুৎচালিত গাড়ির দামও বেশি। বৈদ্যুতিক দু’চাকা গাড়ি বা ইলেকট্রিক স্কুটার কেনার আগে এই বিষয়টিই সবচেয়ে বেশি ভাবায়। যে কারণে ক্রেতাদের অনেকেই ইচ্ছুক থাকলেও ভরসা পাচ্ছেন না। তবে স্কুটার ভাড়া দেওয়া (scooter rental) সংস্থা হিসেবে পরিচিত বাউন্স (Bounce)-এর উদ্যোগে আপনি নিশ্চিন্ত মনে ই-স্কুটার কেনা মনস্থির করে ফেলতে পারবেন।

ওলা (OlA)-র পদাঙ্ক অনুসরণ করেই বেঙ্গালুরুস্থিত স্টার্টআপ সংস্থা বাউন্স ই-স্কুটারের বাজারে পা রাখছে। সেটির রোড টেস্টিংয়ের কয়েকটি ছবি সম্প্রতি লিক হয়েছিল। বাজারে আসার আগেই আজ তার চেহারা সম্পর্কে ধারণা দিল বাউন্স। একটি ছবি প্রকাশ করে জানানো হয়েছে, আসন্ন ই-স্কুটারটির নাম বাউন্স ইনফিনিটি (Bounce Infinity)। একইসঙ্গে বাউন্স প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, Infinity e-scooter বিশ্বমানের ইক্যুইপমেন্ট এবং ইন্টেলিজেন্ট ফিচার সহযোগে আসবে।

Bounce Infinity Electric Scooter announced launch

বাউন্স ইনফিনিটি: দাম ও ফিচার্স (Bounce Infinity: price ও features)

বাউন্স তাদের ইনফিনিটি ইলেকট্রিক স্কুটারের দাম ডিসেম্বরের প্রথমে ঘোষণা করবে। দু’চাকা বৈদ্যুতিক গাড়িটি ব্যাটারি সমেত অথবা ব্যাটারি ছাড়া ক্রয়ের সুবিধা থাকবে। ব্যাটারিটি হবে রিমুভেবল। অর্থাৎ এটি খুলে সুবিধামতো বাড়ি চার্জ দেওয়া যাবে। ব্যাটারি না কিনতে চাইলে সংস্থার থেকে ভাড়ায় নেওয়া যাবে। এতে গাড়ি কেনার খরচ অনেকটাই কমবে, কারণ একটি বৈদ্যুতিক গাড়ির মোট দামে ব্যাটারির খরচ প্রায় ৩০-৪০ শতাংশ।

বাউন্স তাদের রেন্টাল এবং রিটেল উভয় ব্যবসাকে সাপোর্ট দেওয়ার লক্ষ্যে ব্যাটারি সোয়াপিং স্টেশন গড়ে তুলবে। সোয়াপিং পয়েন্টগুলিতে ব্যাটারি মাসিক বা বার্ষিক সাবস্ক্রিপশন প্ল্যানের ভিত্তিতে ভাড়া নেওয়া যাবে। সেখানে ফুরিয়ে যাওয়া ব্যাটারির সঙ্গে ফুল চার্জড ব্যাটারি এক্সচেঞ্জ করে নেওয়ার সুবিধা মিলবে। গাড়ি চার্জ দেওয়া সময়সাপেক্ষ ব্যাপার৷ সেখানে ব্যাটারি সোয়াপিং সময়ের অপচয় কমাবে।

উল্লেখ্য, Bounce Infinity ই-স্কুটারের স্পেসিফিকেশনগুলির বিষয়ে এখনও কোনও তথ্য প্রকাশ করা হয়নি।

বাউন্স ইনফিনিটি: লঞ্চ ডেলিভারি, বুকিং (Bounce Infinity: launch, delivery, booking)

চলতি মাসের শেষেই বাউন্স ইনফিনিটি লঞ্চ হওয়ার কথা ছিল। ই-স্কুটারটি খুঁটিনাটি ও দাম সে দিনই জানানো হবে বলে আশা করা যায়। প্রি-বুকিং আর কয়েকদিনের মধ্যেই চালু করে দেওয়া হবে৷ ২০২২-এর জানুয়ারি থেকে শুরু হবে ডেলিভারি।

Bounce এর ইলেকট্রিক স্কুটার রাজস্থানের ভিওয়ান্ডিতে তৈরি হবে। প্রসঙ্গত, Bounce এক মাস আগেই ৫২ কোটি টাকা খরচ করে 22Motors বলে একটি ই-মোবিলিটি সংস্থা কিনে নিয়েছিল। কারখানাটি তাদেরই৷ এর বার্ষিক উৎপাদন ক্ষমতা ১.৮০ লাখ ইউনিট। বাউন্স একইসঙ্গে দক্ষিণ ভারতে একটি ই-স্কুটার কারখানা গড়ে তুলবে বলেও ঠিক করেছে।

টেকগাপে শুভ্রর প্রথম প্রযুক্তি বিষয়ক লেখায় হাতেখরি৷ স্নাতক স্তরের পড়াশোনার পাশাপাশি এখানেই চলতে থাকে শুভ্রর লেখালেখি৷ কলেজের অধ্যায় শেষ হওয়ার পর শুভ্র এখন টেকগাপের কনটেন্ট টিমের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য৷