BSNL গ্রাহকদের জন্য বিরাট সুখবর, ৬ মাসের মধ্যে চালু হতে পারে 4G পরিষেবা

bsnl-may-roll-out-4g-service-with-in-6-months1

জল্পনা চলছে, আর মাত্র কয়েক মাসের মধ্যেই ভারতে চালু হবে ৫ম প্রজন্মের মোবাইল নেটওয়ার্ক (5G) পরিষেবা। কে আগে এই পরিষেবা চালু করবে – সেই নিয়ে ইতিমধ্যেই কোমর বেঁধে মাঠে নেমেছে Airtel, Reliance Jio-র মত জনপ্রিয় প্রাইভেট টেলকো-গুলি। এদিকে রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিকম সংস্থা ভারত সঞ্চার নিগম লিমিটেড (BSNL) এখনো পর্যন্ত ৪জি পরিষেবাই চালু করে উঠতে পারেনি, যে কারণে দেশীয় গ্রাহকদের মধ্যে অসন্তোষের শেষ নেই! সেক্ষেত্রে এবার বিএসএনএল গ্রাহকদের জন্য রয়েছে একটি সুখবর; রিপোর্ট বলছে, আগামী ছয় মাসের মধ্যে 4G পরিষেবা রোল আউট করতে পারে BSNL। জানা গিয়েছে, রাষ্ট্রের মালিকানাধীন টেলিকম অপারেটরটি, ভারতের ৪৯,৩০০-রও বেশি অঞ্চলে আপগ্রেডেশন আনার সংকল্প নিয়েছে। ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেসের এই রিপোর্টে বলা হয়েছে, বিএসএনএল আপাতত পরবর্তী নিলামের জন্য অপেক্ষা করছে।

প্রসঙ্গত কিছুদিন আগে BSNL তার ৪জি টেন্ডার রোলআউটের প্রয়োজনীয়তা এবং সেই প্রয়োজন মেটানোর অক্ষমতা প্রকাশ করে জানিয়েছিল যে, সব ঠিকঠাক না থাকলে সংস্থার ৪জি পরিষেবা রোল আউট হতে আরও দুবছর সময় লাগতে পারে।

বিএসএনএলের ৪জি পরিষেবা রোলআউটে এত বিড়ম্বনা কেন?

গতবছর TEPC (টেলিকম ইকুইপমেন্ট অ্যান্ড সার্ভিস এক্সপোর্ট প্রোমোশন কাউন্সিল)-এর উদ্বেগের জন্য বিএসএনএলকে তার ৪জি টেন্ডার বাতিল করতে হয়েছিল। বর্তমান পরিস্থিতির কথা বললে, এত তাড়াতাড়ি এবং স্বল্প সময়ের মধ্যে সমস্ত প্রয়োজনীয় প্যারামিটারসহ ফের নতুন টেন্ডার অর্জন করা সংস্থার পক্ষে মোটেও সহজ বিষয় নয়। সেক্ষেত্রে টেলিকম বিভাগ (DoT) এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে (PMO) এই অসুবিধার কথা জানিয়েছে বিএসএনএল।

সংস্থাটি চাইছে যে নতুন টেন্ডার কিছু বাণিজ্যিক বিকল্পসহ আসুক যাতে ওপেন বিডিং (নিলাম) সম্ভব হয়। এদিকে টেক মাহিন্দ্রা, মাভেনির, এইচএফসিএলের মত বড় প্রযুক্তি সংস্থাগুলি মনে করছে যে কনসেপ্ট প্রুফ (PoC) প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হতে কমপক্ষে ৬ থেকে ৮ মাস সময় লাগবে।

ফলে প্রত্যাশিত সময়সীমার মধ্যে উক্ত প্রক্রিয়াটি সফলভাবে সম্পন্ন হলে, তবেই বিএসএনএল আগামী ছয় মাসের মধ্যে ৪জি রোলআউট করতে পারবে বলে মনে হচ্ছে। অন্যথায়, সংস্থার ৪জি পরিষেবা উপভোগ করতে আরও বিলম্ব হতে পারে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন