Aadhaar Card: কোনো ডকুমেন্ট ছাড়া আধার কার্ড বানানো যাবে?

আধার কার্ডের পরিচয়, ঠিকানা ও জন্মের প্রমাণ হিসেবে কোন নথিগুলি পেশ করা যেতে পারে

Can you apply Aadhaar card without documents is it mandatory in india

আজকের দিনে দাঁড়িয়ে আধার কার্ডের (Aadhaar Card) প্রয়োজনীয়তার কথা অস্বীকার করবেন, এমন মানুষ সমাজে বিরল। কারণ বৈধ পরিচয়পত্র হিসেবেই নয়, বরং সরকার ও প্রশাসনের একাধিক পরিষেবা প্রাপ্তি থেকে শুরু করে চাকরি, প্যান কার্ডের জন্য আবেদন, ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন দাখিল বা বেসরকারি বিভিন্ন ক্ষেত্রে সুবিধা আদায়ের জন্য আধার কার্ড থাকা আজ বাধ্যতামূলক। তাই কোনো অবস্থাতেই এই নথিকে হাতছাড়া করা চলে না। এমনকি মনের মধ্যে আধার কার্ড সংক্রান্ত কোন প্রশ্নের উদয় হলে, সামান্য পরিশ্রম করে তা সঠিকভাবে জেনে নেওয়া প্রয়োজন। নইলে এক্ষেত্রে কার্ড ব্যবহারের সময় অসুবিধেয় পড়তে হয়।

তাই পাঠকদের কথা চিন্তা করে আজকের প্রতিবেদনে আমরা আধার কার্ড সম্পর্কে উত্থাপিত কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নের জবাব দেওয়ার চেষ্টা করবো। ইন্টারনেটে প্রায়শই এই প্রশ্নগুলির উত্তর খোঁজার চেষ্টা করা হয়। এ সম্পর্কে ভুল তথ্য একজন ব্যক্তিকে বিপথে চালিত করতে পারে। সেজন্য নিয়মিতভাবে সামনে আসা এমন কিছু প্রশ্নের ব্যাপারে আমরা পাঠকদের অবগত করতে চাই।

  1. আধার কার্ডের জন্য আবেদন করতে গেলে কি আসল নথিপত্র পেশ জরুরি?

    আধারের তালিকায় নাম নথিভুক্ত করতে গেলে বৈধ পরিচয় পত্র, ঠিকানার প্রমাণ, প্রমাণপত্রের মতো ডকুমেন্টের দরকার পড়ে। কার্যক্ষেত্রে এদের আসল সংস্করণ প্রয়োজন পড়লেও তা জমা দেওয়ার দরকার নেই। এক্ষেত্রে আসল নথিপত্রের স্ক্যান করা কপি জমা দিলেই চলবে।

  2. আধার কার্ডের পরিচয়, ঠিকানা ও জন্মের প্রমাণ হিসেবে কোন নথিগুলি পেশ করা যেতে পারে?

    আধার কার্ডের পরিচয় প্রমাণ হিসেবে পাসপোর্ট, ভোটার আইডি, রেশন/পিডিএস (PDS) ফটো কার্ড, প্যান (PAN) কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্স ইত্যাদি নথি পেশ করা যেতে পারে।

    ঠিকানা প্রমাণ হিসেবে পাসপোর্ট, ড্রাইভিং লাইসেন্স, পোস্ট অফিস অ্যাকাউন্ট স্টেটমেন্ট/পাসবই, ইন্সুরেন্স পলিসি জাতীয় ডকুমেন্ট জমা করা যাবে।

    জন্ম প্রমাণ হিসেবে বার্থ সার্টিফিকেট, এসএসএলসি (SSLC) বুক/সার্টিফিকেট, পাসপোর্ট, সরকারি শিক্ষা বোর্ডের জারি করা অ্যাডমিন পেশ করা যাবে।

    এছাড়া সম্পর্কের প্রমাণ হিসেবে পাসপোর্ট, ম্যারেজ সার্টিফিকেট, আর্মি ক্যান্টিন কার্ড ইত্যাদি জমা করা যাবে।

  3. একজন নাগরিকের আধার কার্ড থাকা ঠিক কতটা দরকার?

    আগেই বলেছি যে আধার কার্ডের অনুপস্থিতিতে একজন নাগরিক কোনোরকম সরকারি পরিষেবার সুযোগ নিতে ব্যর্থ হবেন। তাই আধার কার্ড থাকা আজকের দিনে প্রায় বাধ্যতামূলক।

  4. কারো নামে ২টি আধার কার্ড থাকা কি সম্ভব?

    কারো পক্ষে একইসাথে ২টি আধার কার্ড রাখা সম্ভব নয়।

  5. আধার কার্ডের জন্য আবেদন করতে কত টাকা খরচ করতে হবে?

    আধার তালিকায় নাম নথিভুক্তকরণের জন্য কোনোরকম চার্জ প্রদানের দরকার নেই। তবে ডেমোগ্রাফিক ও বায়োমেট্রিক আপডেটের জন্য যথাক্রমে ৫০ এবং ১০০ টাকা মাশুল প্রদান আবশ্যক।

  6. আধার কার্ডের জন্য আবেদনের সর্বনিম্ন বয়স কত?

    আধার তালিকায় নাম নথিভুক্তকরণের ক্ষেত্রে বয়সের কোনো বিধিনিষেধ নেই। জন্মগ্রহণের পরেই একজন শিশু আধার কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারে।

  7. কোনোরকম ডকুমেন্ট ছাড়া কি আধার কার্ডের জন্য আবেদন করা যাবে?

    যাবে। এক্ষেত্রে আপনাকে একজন ইন্ট্রোডিউসার বা পরিবারের প্রধান মারফত আবেদন করতে হবে।

One of the newest members of the Techgup Family. Soumo grew his liking for gadgets almost a decade back while searching for his first smartphone, and started writing about tech recently in 2020