Canon EOS R3: পেশাদার ফটোগ্রাফারদের জন্য চলে এল ক্যাননের নতুন ক্যামেরা

চলতি বছর টোকিও অলিম্পিক চলাকালীন Canon EOS R3 ক্যামেরার সামান্য ঝলক দেখা যায়

canon-eos-r3-mirror-less-camera-launched-in-india-price-rs-499995-specifications

বাজারে এলো ক্যাননের এযাবৎকালের সবথেকে আধুনিক ও সক্ষম ক্যামেরা ক্যানন ইওএস আর৩ (Canon EOS R3)। বলার অপেক্ষা রাখে না এই ক্যামেরার দাম রাখা হয়েছে সাধারণ মানুষের ধরাছোঁয়ার বাইরে। চলতি বছর টোকিও অলিম্পিক চলাকালীন এই ক্যামেরার সামান্য ঝলক দেখা যায়। এটি একটি ফুল-ফ্রেম মিররলেস ক্যামেরা যা অত্যাধুনিক সিএমওএস (CMOS) সেন্সর সহ এসেছে। আসুন Canon EOS R3 ক্যামেরার দাম ও স্পেসিফিকেশন জেনে নেওয়া যাক।

ভারতে Canon EOS R3 ক্যামেরার দাম

কোম্পানীর দাবী অনুযায়ী অগ্রগামী ও পেশাদার ব্যবহারকারীদের জন্য নির্মিত এই ক্যামেরা হাইব্রিড শ্যুটিংয়ের পক্ষেও উপযুক্ত। প্রস্তুতকারীরা একে গতবছর সামনে আসা Canon EOS R5 ও R6 ক্যামেরাদ্বয়ের চেয়ে উপরে স্থান দিতে আগ্রহী। ভারতের বাজারে Canon EOS R3 -এর দাম রাখা হয়েছে ৪,৯৯,৯৯৫ টাকা। যদিও এখনো এর সেলের তারিখ জানা যায়নি। তবে আগামী নভেম্বর থেকে ক্যাননের স্টোরে ক্যামেরাটি উপলব্ধ হতে পারে।

Canon EOS R3 ক্যামেরার ফিচার ও স্পেসিফিকেশন

Canon EOS R3 ২৪.১ মেগাপিক্সেল ক্ষমতা সম্পন্ন ব্যাক-ইলিউমিনেটেড সিএমওএস (CMOS) সেন্সর সহ এসেছে। এতে আছে ডিজিক এক্স (Digic X) ইমেজ প্রসেসর। ক্যামেরাটি স্বল্প আলোয় কাজের পক্ষে উপযুক্ত। এর দ্রুত অটোফোকাস ও অন্যান্য কার্যকারিতা একে ক্যাননের পূর্বতন ক্যামেরাগুলির তুলনায় এগিয়ে রাখবে। কোম্পানীর বক্তব্য এতে ইলেক্ট্রনিক ও মেকানিকাল শাটার – উভয়ের উপস্থিতি লক্ষ্য করা যাবে। এতে ৬০ এফপিএসে (fps) ৬কে (6k) ভিডিও এবং ১২০ এফপিএসে (fps) ১০-বিট ৪কে (10-bit 4K) ভিডিও রেকর্ড করা যাবে বলে প্রস্তুতকারকেরা জানিয়েছে। এছাড়া এর ৩.২ ইঞ্চির টাচস্ক্রিনে মেনু ও অন্যান্য সেটিংস অ্যাক্সেস করা যাবে।

এছাড়া কোম্পানির দাবি EOS R3 ক্যামেরার ই-ইলেক্ট্রনিক ও মেকানিকাল শাটার দুটি অটোফোকাস ও অটো এক্সপোজারের সুবিধা সহ যথাক্রমে ৩০ ও ১২ এফপিএস (fps) সক্ষমতায় পৌঁছতে পারে। এতে সর্বোচ্চ ১/৬৪০০০ সেকেণ্ডের শাটার স্পিড লক্ষ্য করা যেতে পারে। Canon EOS R3 ডুয়াল-কার্ড স্লটের সঙ্গে এসেছে যার মধ্যে একটি সিএফএক্সপ্রেস (CFexpress) টাইপ-বি (Type-B) এবং অন্যটি এসডি ইউএইচএস-II (SD UHS-II) কার্ডের জন্য উপযুক্ত।

এখানেই শেষ নয়, বরং আলোচ্য ক্যামেরায় ইন-বডি ইমেজ স্টেবিলাইজেশনের প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। কানেক্টিভিটির দিক থেকে এটি স্ট্যান্ডার্ড মোডে ব্লুটুথ, ওয়াই-ফাই ও জিপিএস সুবিধার সঙ্গে এসেছে। তাছাড়া এতে রয়েছে ডুয়াল-ব্যান্ড ওয়াইফাই যা এফটিপি (FTP) ও এফটিপিএস (FTPS) প্রযুক্তির সঙ্গে উপলব্ধ।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

One of the newest members of the Techgup Family. Soumo grew his liking for gadgets almost a decade back while searching for his first smartphone, and started writing about tech recently in 2020