Fuel: গত বছরের তুলনায় চলতি বছরে পেট্রোল ও ডিজেল থেকে কেন্দ্রের আয় বাড়ল প্রায় দ্বিগুণ

২০২০-২১ অর্থবর্ষে পেট্রোল ও ডিজেল থেকে কেন্দ্রের আয় ৩.৭২ লক্ষ কোটি টাকা, যা গত কয়েক বছরের তুলনায় দ্বিগুণ

central-earning-excise-duty-collection-from-fuel-doubles-to-rs-3-72-lakh-crores

সম্প্রতি শুরু হয়েছে পার্লামেন্টের শীতকালীন অধিবেশন। চলতি অধিবেশনে কেন্দ্রের পেশ করা একটি বিলে বিস্ময়কর তথ্য উঠে এসেছে। যেখানে দেখা গেছে গত আর্থিক বর্ষে (২০২০-২১) পেট্রোল এবং ডিজেলের উপর ৩.৭২ লক্ষ কোটি টাকার কেন্দ্রীয় আবগারি শুল্ক জমা পড়েছে। যার পরিমাণ গত কয়েক বছরের তুলনায় দ্বিগুণ।

গতকাল অর্থাৎ মঙ্গলবার রাজ্যসভায় এক প্রশ্নের লিখিত উত্তরে কেন্দ্রীয় অর্থ প্রতিমন্ত্রী পঙ্কজ চৌধুরী (Pankaj Chaudhary) এই তথ্য সামনে এনেছেন। উল্লেখ্য, গত ২০১৬-১৭ আর্থিক বর্ষে পেট্রোল ও ডিজেলের উপর কেন্দ্রীয় আবগারি শুল্কের পরিমাণ ছিল ২.২২ লক্ষ কোটি টাকা, ২০১৭-১৮ -এ ছিল ২.২৫ লক্ষ কোটি টাকা, ২০১৮-১৯ -এ এর পরিমাণ ছিল ২.১৩ এবং ২০১৯-২০ অর্থবর্ষে রাজস্বের পরিমাণ ছিল ১.৭৮ লক্ষ কোটি টাকা।

পঙ্কজ চৌধুরী এ বিষয়ে বলেছেন, “২০২০-২১ অর্থবর্ষে আদায়কৃত কেন্দ্রীয় আবগারি রাজস্বের থেকে ১৯,৯৭২ কোটি টাকা রাজ্য সরকারগুলিকে হস্তান্তরিত করা হয়েছে।” রাজ্যগুলি এত কম পরিমাণ অর্থ পাওয়ার কারণ সংবিধান অনুযায়ী তারা কেবলমাত্র মূল আবগারি শুল্কের অংশ পাবে, প্রতি লিটার পেট্রোল ও ডিজেলের ক্ষেত্রে যা ১.৪০ টাকা এবং ১.৮০ টাকা।

প্রতি লিটার পেট্রোলের মূল আবগারি শুল্ক থেকে ১১ টাকা যায় স্পেশাল অ্যাডিশনাল এক্সাইজ ডিউটিতে, ১৩ টাকা যায় রাস্তা এবং পরিকাঠামো উন্নয়ন সেস-এ এবং কৃষি উন্নয়নের ক্ষেত্রে যায় ৪ টাকা। অন্যদিকে প্রতি লিটার ডিজেলের ক্ষেত্রে এগুলির পরিমান যথাক্রমে ৮ টাকা, ৪ টাকা ও ৪ টাকা।

প্রসঙ্গত, কেন্দ্রের ধার্য আবগারি শুল্কের উপর রাজ্যগুলি আবার ভ্যাট নেয়। এপ্রিল, ২০১৬ – মার্চ, ২০২১ পর্যন্ত রাজ্যগুলি মোট ৯.৫৭ লক্ষ কোটি টাকা ভ্যাট হিসেবে সংগ্রহ করেছিল। যেখানে উল্লেখিত সময়ে কেন্দ্রের সংগ্রহের পরিমাণ ছিল ১২.১১ লক্ষ কোটি টাকা। বর্তমানে পেট্রোলের ওপর কেন্দ্রের ধার্য করা শুল্কের পরিমান ৫ টাকা কমানোর ফলে দাঁড়িয়েছে ২৭.৯০ টাকা এবং ডিজেলের ক্ষেত্রে ১০ টাকা কমানোর ফলে শুল্কের পরিমান হয়েছে ২১.৮০ টাকা। অন্যদিকে পরিবহন ক্ষেত্রে ইথানল মেশানো পেট্রোল ব্যবহারের মাধ্যমে গত বছর বৈদেশিক বিনিময় ক্ষেত্রে ৯,৫৮০ কোটি টাকা সাশ্রয় করেছিল কেন্দ্র।

শুভদীপ টেকগাপে অটোকার বিষয়ক লেখালিখি করে। এর আগে বিভিন্ন পোর্টালের সাথে যুক্ত থাকলেও, অটোকার নিয়ে টেকগাপে তার হাতেখড়ি। দিনকে দিন সে টেকগাপের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হয়ে উঠেছে।