Nitin Gadkari: দেশবাসীকে দূষণের হাত থেকে বাঁচাতে চেষ্টার কসুর করছে না মোদি সরকার, বার্তা কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর

centre-making-efforts-to-give-people-relief-from-pollution-nitin-gadkari

বায়ু, জল এবং শব্দ দূষণের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে দেশবাসীকে রক্ষা করার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ভারত সরকার৷ এমনটাই জানালেন কেন্দ্রীয় সড়ক ও পরিবহণ মন্ত্রী নিতিন গডকড়ী (Nitin Gadkari)। অনেকদিন ধরেই তিনি এই প্রসঙ্গে বার্তা দিয়ে আসছেন। এবার এই তিন ধরনের দূষণ নিয়ন্ত্রণের জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করেছেন তিনি।

বায়ু দূষণ নিয়ন্ত্রণের প্রসঙ্গে গডকড়ী বলেছেন, “পেট্রোলকে ইথানল দ্বারা প্রতিস্থাপিত করতে পারলে পরিবেশ হবে সতেজ এবং এর ফলে দেশের কৃষকদের উপার্জনও বৃদ্ধি পাবে।” হাফ ডজনের বেশি রাস্তার শিলান্যাসের একটি ভার্চুয়াল সভা থেকে তিনি একথা জানিয়েছেন।

ধানের খড় থেকে তৈরি হবে পরিবেশবান্ধব জ্বালানি সিএনজি, যা এর আগেও জানিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় পরিবহণ মন্ত্রী। পেট্রোল ও ডিজেল গাড়ির জায়গা দখল করবে জৈব জ্বালানি (Green Fuel) ও বিদ্যুৎ চালিত যানবাহন। ভারতে পরিবেশবান্ধব জ্বালানি (জল থেকে প্রস্তুত সবুজ হাইড্রোজেন) প্রস্তুত হলে পেট্রোল-ডিজেল আমদানির জন্য বরাদ্দ অর্থ বেঁচে যাবে, যা দেশের উন্নয়ন কার্যে লাগানো যাবে বলে মত গডকড়ীর।

অন্যদিকে শব্দ দূষণ কমাতে দেশের যানবাহনের হর্ন পরিবর্তিত করে শ্রুতিমধুর করার বার্তা অনেক আগেই দিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। ফের একবার এ বিষয়ে সুর চড়ালেন তিনি। গাড়িতে বিভিন্ন বাদ্যযন্ত্রের সুরেলা আওয়াজ, যেমন বাঁশি সহ আরো অন্যান্য শ্রুতিমধুর ধ্বনির প্রচলন খুব শীঘ্রই করবেন তিনি।

জল দূষণ নিয়ন্ত্রণের প্রসঙ্গে গডকড়ীর বর্ণনা করেছেন, যখন তিনি যমুনা নদীর সংশ্লিষ্ট দপ্তরের দায়িত্বে ছিলেন, তখন দূষণের সমস্যা সমাধানের জন্য প্রচেষ্টা করেছিলেন। এবং বর্তমানেও তা করে চলেছেন।

শুভদীপ টেকগাপে অটোকার বিষয়ক লেখালিখি করে। এর আগে বিভিন্ন পোর্টালের সাথে যুক্ত থাকলেও, অটোকার নিয়ে টেকগাপে তার হাতেখড়ি। দিনকে দিন সে টেকগাপের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হয়ে উঠেছে।