বিক্রি কমছে, তাই চীন থেকেও ১৫ শতাংশ কম স্মার্টফোন এল ভারতে

china-smartphone-brands-shipment-declined-15-percents-in-india-in-q2-2020

কোভিড – ১৯ পরিস্থিতি এবং চীন-ভারতের মধ্যে সংঘর্ষের কারণে ভারতে সবথেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে চীনের স্মার্টফোন কোম্পানিগুলি। সম্প্রতি একটি রিপোর্টে জানা গিয়েছে, চীন-ভারত সংঘর্ষের পরে, ভারতে চীনা স্মার্টফোনের বিক্রির পরিমান ১০ শতাংশের বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আর এই কারণেই চীন থেকে ভারতে স্মার্টফোন আসার পরিমান ও কমেছে অনেকটাই।

প্রত্যেক বছর ভারতে যে পরিমান চীনের স্মার্টফোন বিক্রি হত, সেই তুলনায় ২০২০ এই দ্বিতীয় কোয়ার্টারে বিক্রি এক ধাক্কায় অনেকটা কমে গেছে। এই সমস্যার মূল কারণ হিসেবে বিশেষজ্ঞরা করোনাভাইরাস পরিস্থিতিকে দায়ী করেছেন। তাদের মতামত, এই পরিস্থিতিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পাওয়ায়, স্মার্টফোনের রপ্তানি অনেকটা কমে গেছে। যেহেতু ভারতে সবথেকে বেশি চাহিদা থাকে চীনের স্মার্টফোনের, তাই সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত চীনের স্মার্টফোন নির্মাতারাই হয়েছেন। Digitimes এর রিপোর্টে উঠে এসেছে, এখনো অব্দি ২০২০ এর দ্বিতীয় কোয়ার্টারে স্মার্টফোনের শিপমেন্ট এর পরিমান ১৫.২% হ্রাস পেয়েছে।

তবে শুধু করোনা পরিস্থিতি নয়, চীনা স্মার্টফোনের বিক্রি কমার দ্বিতীয় কারণ হিসেবে উঠে এসেছে ভারতে চীন বিরোধী ক্যাম্পেইন। ভারত সরকারের তরফ থেকে বর্তমানে চীনের বেশ কিছু প্রোডাক্ট ব্যান করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যার ফলস্বরুপ, ভারতের জনগণের মধ্যে চীনের দ্রব্য বর্জন করার প্রবণতা আরো বেড়ে গিয়েছে।

এই কারণে, চীনের স্মার্টফোন কোম্পানিগুলির ওপর বেশ ভাল প্রভাব পড়েছে। এছাড়াও, বর্তমানে ভারতের সবথেকে বড় টেলিকম সংস্থা রিলায়েন্স জিও, গুগল এর সাথে যুক্ত হয়ে ভারতে অত্যন্ত সস্তা একটি অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন নিয়ে আসতে চলেছে। এই স্মার্টফোন চলে এলে, চীনের স্মার্টফোন কোম্পানিগুলির ওপর আরো চাপ সৃষ্টি হবে বলে ধারণা বিশেষজ্ঞদের। এই কারণেই চীনের স্মার্টফোন কোম্পানিগুলি এখন কম দামের মধ্যে ৫জি স্মার্টফোন লঞ্চ করে ভারতের স্মার্টফোন মার্কেটে পুনরায় আধিপত্য বিস্তার করার চেষ্টা করছে।