বড়সড় ভুল চীনা স্মার্টফোন কোম্পানির, এক IMEI নম্বরে ভারতে বিক্রি হয়েছে ১৩৫০০ মোবাইল

চীনা স্মার্টফোন কোম্পানির একটি বড়সড় সুরক্ষা সংক্রান্ত ভুল সামনে এল। যেখানে ১৩,৫০০ মোবাইলের IMEI নম্বর এক হয়ে গেছে বলে দাবি করা হচ্ছে। চীনা ফোন প্রস্তুতকারকের বিরুদ্ধে এই কারণে একটি জালিয়াতির মামলা করা হয়েছে। মীরাট পুলিশের এসপি (সিটি) অখিলেশ এন সিংহ জানিয়েছেন, একটি মোবাইল ফোন উৎপাদনকারী সংস্থা এবং তাদের সার্ভিস সেন্টারের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। তিনি বলেন যে, বিষয়টি যথেষ্ট উদ্যেগের কারণ। মোবাইল সংস্থাটির গাফিলতির সুযোগ নিয়ে অপরাধীরা এর অপব্যবহার করতে পারে।

কিভাবে সামনে এল এই ঘটনা :

আসলে, মীরাট পুলিশের সাব ইন্সপেক্টর আশারামের কাছে একটি চীনা কোম্পানির মোবাইল ছিল। স্ক্রিন ভেঙে যাওয়ার কারণে তিনি গতবছরের ২৪ শে সেপ্টেম্বর মোবাইলটিকে মিরাটের দিল্লি রোডে অবস্থিত ভিভোর সার্ভিস সেন্টারে দিয়ে আসে। এরপর ব্যাটারি, স্ক্রিন পরিবর্তন করে সার্ভিস সেন্টার থেকে ফোন ফেরত পাঠানো হয়।

কিছু দিন পরে, ডিসপ্লেতে আবার সমস্যা শুরু হয়। ফোনে বারবার ত্রুটি হওয়ার পরে আশারাম ফোনটি সাইবার সেলের হাতে তুলে দেয়। এরপর সাইবার ক্রাইম সেলের তদন্তে দেখা যায় যে প্রায় ১৩,৫০০ মোবাইল ফোন একই ইন্টারন্যাশনাল মোবাইল ইকুইপমেন্ট আইডেন্টিফিকেশন (IMEI) এ চলছে।

কি এই IMEI নম্বর :

আপনার যদি আইএমইআই নম্বর সম্পর্কে না জানেন, তবে জানিয়ে রাখি আন্তর্জাতিকভাবে প্রতিটি মোবাইল নম্বরের আলাদা আইএমইআই নম্বর রয়েছে। এটি ফোনটিকে সনাক্ত করে। IMEI হলো ডিভাইসের একটি ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন নম্বর। যখনই কোনও ইউজার কল করেন তখন কল রেকর্ডার থেকে কলারের নম্বর এবং হ্যান্ডসেটটির আইএমইআই নম্বর জানা যায়। সিম বদল করলেও আইএমইআই নম্বর বদল হয়না। ফলে চুরি যাওয়া মোবাইলের খোঁজ পাওয়া যায়।