আত্মনির্ভর অ্যাপ চ্যালেঞ্জে দেশের সেরা হল টিকটকের বিকল্প Chingari

chingari-wins-title-of-aatmanirbhar-bharat-app-innovation-challenge-in-social.jpg

ভারত সরকার গত মাসে ৫৯টি চিনা অ্যাপ্লিকেশনকে সম্পূর্ণরূপে ব্যান করে দেয়। ভারত – চীন সীমান্তে সংঘর্ষের পরই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কেন্দ্র সরকার। তবে এই চিনা অ্যাপ ব্যান করার সাথে সাথে সরকার জোর দেয় আত্মনির্ভর ভারত অ্যাপ্লিকেশন লঞ্চ করার।

এই উদ্দেশ্যে গত মাসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি “আত্মনির্ভর ভারত অ্যাপ ইনোভেশন চ্যালেঞ্জ” এর ঘোষণা করেন। যেখানে টেক ডেভেলপারদের আবেদন জানানো হয়, যাতে তারা ভারতের জন্য নিজেদের অ্যাপ্লিকেশন নিয়ে আসে। এই চ্যালেঞ্জে মোট ৮টি ক্যাটাগরির মধ্যে প্রতিযোগিতা হয়েছিল, যার মধ্যে সোশ্যাল অ্যাপ ক্যাটাগরিতে সবাই কে পিছনে ফেলেছে Chingari। ফাইনালে Chingari অ্যাপের সঙ্গে আরও দুটি অ্যাপ ছিল, যেগুলি হল Koo এবং YourQuote। এই দুটি অ্যাপ যুগ্ম ভাবে দ্বিতীয় হয়েছে। এই দুটি অ্যাপ্লিকেশন ও ভারতে সমান ভাবে জনপ্রিয়। জানিয়ে রাখি এই অ্যাপ চ্যালেঞ্জ MyGov India, Atal Innovation Mission এবং Niti Aayog এর সাথে মিলে MeitY আয়োজন করেছিল।

এই প্রতিযোগীতায় আছে ২টি অংশ ছিল। প্রথম অংশে অ্যাপ ডেভেলপারদের এরকম একটি অ্যাপ বানাতে হবে, যা ভারত ছাড়াও অন্য অন্য দেশে চলবে। এরপর দ্বিতীয় অংশে ভারতীয় টেক ডেভেলপারদের ভারতের টেক স্টার্টআপ এবং অর্থনীতির দিকে ওয়াকিবহাল থাকতে হবে। এছাড়া দ্বিতীয়ত ধাপে ডেভেলপারদের তাদের আইডিয়া দিয়ে কোম্পানির লক্ষ্য বোঝাতে হবে। ভোটের মাধ্যমে প্রত্যেকটি ক্যাটাগরির বিজেতা অ্যাপ্লিকেশনকে বেছে নেওয়া হয়েছে।

শুধু সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং প্ল্যাটফর্ম নয়, এই ৮ টি বিভাগে আরো অনেক সেক্টরের অ্যাপ্লিকেশন আছে। এর মধ্যে আছে – অফিস প্রোডাক্টিভিটি এবং ওয়র্ক ফ্রম হোম, এ লার্নিং, হেলথ এবং ওয়েলনেস, এন্টারটেইনমেন্ট, ব্যবসা এবং এগ্রিকালচার , এবং fin-tech, নিউজ ও গেমস। এর মধ্যে এন্টারটেইনমেন্ট ক্যাটাগরিতে আছে – মিম চ্যাট, ক্যাপশন প্লাস, এবং FTC ট্যালেন্ট এর মত অ্যাপ। অন্যদিকে, গেমস ক্যাটাগরিতে আছে – HitWicket, ScatFall, এবং WCC2 ।

Chingari অ্যাপের ভারতীয় প্রতিযোগী শেয়ারচ্যাট, রোপোসো, এবং মিত্রৌঁ অ্যাপ্লিকেশনগুলো টপ ৩টি অ্যাপের মধ্যে জায়গা না করতে পারলেও, ভারতে TikTok ব্যান হয়ে যাওয়ার পরে এই অ্যাপগুলি ভারতে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।