অষ্টম শ্রেণি ফেল করেও ৪০০ মেয়ের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট হ্যাক! গ্রেপ্তার যুবক

class-8-fail-boy-hacks-400-women-social-accounts-and-blackmail-them

বর্তমান সময়ে ইন্টারনেট হয়ে উঠেছে নানা রকম জিনিস শেখার বা আয়ত্ত করার হাতিয়ার। মাত্র কয়েকটা ক্লিকেই এখন চোখের সামনে হাজির হয়ে যায় সারা দুনিয়া। কিন্তু এবার স্রেফ ইন্টারনেটের বলেই অষ্টম শ্রেণি অনুত্তীর্ণ যুবক হ্যাক করে ফেলল কয়েকশো সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট! শুনতে অবাক লাগলেও সম্প্রতি ঠিক এমনটাই ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের লখনউয়ে। রিপোর্ট অনুযায়ী, ২৬ বছর বয়সী এক যুবক ইউটিউব থেকে হ্যাকিং শিখে প্রায় ৪০০ মহিলার সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট হ্যাক করেছে এবং তারপরে টাকার জন্য তাদের ব্ল্যাকমেল করেছে।

পুঁথিগত বিদ্যাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে কেবল ইন্টারনেটকে ভরসা করে জালিয়াতি বাড়ছে এমন ঘটনা নতুন নয়! তাছাড়া বিগত কয়েক বছর ধরে হ্যাকিংয়ের ঘটনা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে, বদল আসছে হ্যাকিংয়ের কৌশলে। এমনকি ভারতসহ বিভিন্ন দেশে হ্যাকিং শেখার জন্য রয়েছে বিভিন্ন কোর্সও। সেক্ষেত্রে বিনিত মিশ্র নামের উক্ত অভিযুক্ত, কেবল ভিডিও স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম ইউটিউবের ভিডিও দেখে সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট হ্যাক করার কৌশল রপ্ত করেছে এবং একাধিক মহিলাকে ব্ল্যাকমেল করেছে বলে জানা গেছে। পুলিশ জানিয়েছে, সম্প্রতি একটি মেয়ে এক অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তি তার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে এবং তার আপত্তিজনক ছবি ব্যবহার করে টাকার জন্য ব্ল্যাকমেল করছে – এই মর্মে থানায় অভিযোগ দায়ের করে। এর পর, লখনউ পুলিশ ঘটনার তদন্তে নামে এবং গত মঙ্গলবার মিশ্রকে গ্রেপ্তার করে।

জিজ্ঞাসাবাদ চলাকালীন, বিনিত মিশ্র নামের ওই যুবক জানিয়েছে যে সে অষ্টম শ্রেণিতে ফেল করার পর আর পড়াশোনা করেনি। কিন্তু সে ইউটিউবে একটি ভিডিও দেখে হ্যাকিং শেখার পর, বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে মেয়েদের ওয়েব লিঙ্কগুলি পাঠাত। ওই লিঙ্কে ক্লিক করা মাত্রই ভিক্টিমদের মেইল আইডি ও পাসওয়ার্ড চাওয়া হত। উক্ত নথি পেলেই যুবকটি সহজেই তাদের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে অ্যাক্সেস করে ফেলত।

টাইমস অফ ইন্ডিয়ার একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী, মেয়েদের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টগুলিতে অ্যাক্সেস পাওয়ার পরে, মিশ্র টাকা উপার্জনের জন্য তাদের আপত্তিজনক ছবি, ভিডিও এবং চ্যাট ডাউনলোড করত এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় ওইসব অশ্লীল বিষয়বস্তু ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে টাকা চাইত। এই বিষয়ে একজন পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, মিশ্র সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে প্রায় ৪০০ মেয়েকে উত্যক্ত করেছে। আপাতত তার ল্যাপটপটি বাজেয়াপ্ত করে ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে বলেও জানান ওই কর্মকর্তা।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন