লকডাউনের মধ্যে দ্রুত বাড়ছে জালিয়াতের ঘটনা, স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের সতর্ক থাকার নির্দেশ

দেশ জুড়ে চলছে লকডাউন। ঘরবন্দি মানুষ সময় কাটাতে হাতে তুলে নিয়েছে স্মার্টফোন। আর তাই ভারতের ন্যাশনাল সাইবার সিকিউরিটি এজেন্সি, সমস্ত মোবাইল ফোনে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীকে স্পাইওয়্যার ও রেনসমওয়্যারের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকার নির্দেশ দিল। এজেন্সির তরফে বলা হয়েছে, কোভিড -১৯ মহামারীর সময় জালিয়াতরা আরও সক্রিয় হয়ে উঠেছে। এইসময় সাধারণ মানুষের থেকে সেইসব মানুষকে বেশি সতর্ক থাকতে হবে যারা মোবাইলে ইন্টারনেট ব্যবহার করে।

কম্পিউটার ইমার্জেন্সি রেসপন্স টিম অফ ইন্ডিয়া (CERT-In) এর তরফে বলা হয়েছে, করোনার কারণে এখন সবাই বাড়ি থেকেই কাজ করছে। কিন্তু অফিসের ডিভাইসের তুলনায় বাড়ির ডিভাইসের প্রটেকশন কম থাকে। আর সেকারণেই সাইবার অপরাধীরা এই সময়ের ফায়দা নিতে চাইছে। তারা মানুষের ফোনে বা কম্পিউটারে ভাইরাস, স্পাইওয়্যার ও রেনসমওয়্যার ঢুকিয়ে দিয়ে ডেটা চুরি, অর্থ চাওয়ার মত কাজ করছে। কম্পিউটার ইমার্জেন্সি রেসপন্স টিম অফ ইন্ডিয়া একারণে সবাই কে সতর্ক থাকতে বলেছে। এছাড়াও কয়েকটি উপদেশ দিয়েছে। আসুন এই উপদেশগুলি জেনে নিই।

অ্যাপ ইনস্টল :

অফিসিয়াল অ্যাপ স্টোর ছাড়া অন্য কোনো স্টোর থেকে অ্যাপ ডাউনলোড করবেন না। কারণ বাইরের অ্যাপে সুরক্ষা সংক্রান্ত প্রশ্ন থেকে যায়। কোনো থার্ড পার্টি সোর্স কে আপনার ফোনের কিছুর পারমিশন দেবেন না।

ফিসিং স্ক্যাম :

এইসময় এই স্ক্যাম খুব বেড়েছে। তাই ফোনে আসা কোনো লিংকে একদম ক্লিক করবেন না। আগে সেই লিংক সম্পর্কে ভালোভাবে জেনে তবে ক্লিক করুন। নচেৎ এই লিংকের মাধ্যমে আপনার ফোন হ্যাক হতে পারে।

পাসওয়ার্ড :

কোনো ওয়েবসাইটে পাসওয়ার্ড সেভ রাখবেন না। অনেক ওয়েবসাইট থাকে যারা লগইন এর ঝঞ্ঝাট দূর করতে পাসওয়ার্ড সেভ রাখতে বলে। তবে এটি কোনো সুরক্ষিত পদ্ধতি নয়।

WhatsApp এ সব খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন।