‘টাকা পাঠান নইলে করোনা পাঠাবো,’ প্রতারকদের নতুন ফাঁদে ভুলেও পা দেবেন না

সাইবার ক্রিমিনালরা এবার করোনাভাইরাসের (Coronavirus) ভয় দেখিয়ে সারা বিশ্ববাসী কে ঠকাতে শুরু করলো। কখনও তারা WHO এর অফিসার হয়ে, কখনও কোভিড -১৯ নামে জাল ওয়েবসাইট তৈরি করে এবং মানুষকে তাদের শিকার বানানোর চেষ্টা করছে। মানুষ ঠকানোর জন্য তারা একটি নতুন উপায় বার করেছে। ব্রিটিশ সিকিউরিটি সফটওয়্যার এবং হার্ডওয়্যার কোম্পানি Sophos এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সাইবার ক্রিমিনালরা মানুষের কাছে হুমকীপূর্ণ ই-মেল পাঠাচ্ছে এবং অর্থ দাবি করছে। ই-মেলে লেখা থাকছে ব্যবহারকারী যদি তাদের অর্থ না দেয়, তবে তারা ব্যবহারকারীর পরিবারের কোনও সদস্যকে করোনার ভাইরাস দ্বারা সংক্রামিত করবে।

‘পয়সা দিন নইলে করোনা নিন’ :

প্রতারণার জন্য এতদিন প্রতারকরা বিশ্বব্যাপী সেক্সটরশান ইমেল ব্যবহার করতো। এতে প্রতারকরা দাবি করতো যে তার কাছে ব্যবহারকারীর কিছু আপত্তিজনক ছবি রয়েছে এবং ব্যবহারকারী যদি তাকে অর্থ না দেয়, তবে সেই ছবিগুলি তার পরিবার এবং সারা বিশ্ব ছড়িয়ে দেওয়া হবে।

তবে এখন নতুন ট্রেন্ডে প্রতারকরা করোনা ভাইরাসকে হাতিয়ার করেছে। সাইবার ক্রিমিনালরা ই-মেল পাঠিয়ে ৪,০০০ ডলার বিটকয়েনের হিসাবে দাবি করছে, অন্যথায় ব্যবহারকারীর গোপনীয়তা প্রকাশ এবং পরিবারের সকল সদস্যকে করোনা ভাইরাস দ্বারা সংক্রামিত করার হুমকি দিচ্ছে। ইমেলটিতে ব্যবহারকারীকে তার পুরানো পাসওয়ার্ডও বলা হচ্ছে। প্রতারকরা দাবি করছে যে তারা ব্যবহারকারীর সমস্ত পাসওয়ার্ড জানে এবং তারা দীর্ঘদিন ধরে ব্যবহারকারীর উপর নজরদারি চালাচ্ছে।

আপনার কাছে এই মেল আসলে কি করবেন :

যদি আপনার কাছে এই জাতীয় কোনও ই-মেল এসে থাকে তবে আপনাকে ভয় পাওয়ার কোনও দরকার নেই। গত কয়েক বছরে পাসওয়ার্ড ফাঁসের ঘটনায় আপনার পাসওয়ার্ড প্রতারকদের কাছে যেতেই পারে। Sophos এর মুখ্য গবেষক বিজ্ঞানী পল ডকলিন বলেছেন, “কোনো টাকা পাঠাবেন না ।” এই সব মিথ্যা। তাদের কাছে আপনার কোনও ডেটা নেই।

WhatsApp এ সব খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন।