Cyber fraud: ব্যাংক অ্যাকাউন্ট হোল্ডাররা সাবধান! SBI আধিকারিক পরিচয় দিয়ে টাকা হাতাচ্ছে জালিয়াতরা

সাইবার জালিয়াতরা এক মহিলার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে ৩.৩৮ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়

cyber-fraud-70-years-old-retired-rbi-employee-loss-rs-3-38-lakhs

ব্যাংকের কেওয়াইসি ফর্ম ফিলাপ করার নামে কল বা মেসেজ আসছে? তাহলে সাবধান! কেওয়াইসি ফর্ম ফিলাপ করার নামে জালিয়াতরা হাতিয়ে নিতে পারে আপনার কষ্টের রোজগার। সম্প্রতি, সাইবার জালিয়াতদের কবলে পড়ে প্রায় সাড়ে তিন লক্ষ টাকা খোয়ালেন রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার এক প্রাক্তন মহিলা কর্মী। ঘটনাটি ঘটেছে দেশের অর্থনীতির রাজধানী মুম্বাইতে। সাইবার জালিয়াতরা ওই মহিলার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে ৩.৩৮ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়। ৭০ বছরের ওই মহিলার এখন রোজগারের একমাত্র সূত্র পেনশন ও ব্যাংকে জমানো টাকা থেকে প্রাপ্ত সুদ। আর সামান্যতম ভুলের জন্য তাকে খোয়াতে হলো জমানো টাকা।

জানা গেছে, জালিয়াতরা ওই মহিলার কাছে নিজেদেরকে এসবিআই (SBI) এর কর্মী হিসেবে পরিচয় দিয়েছিল এবং তার কাছে অনলাইনে KYC ফিলাপ করবার জন্য জানিয়েছিল। গত ৮ নভেম্বর ওই মহিলা তার মোবাইল ফোনে একটি ম্যাসেজ পান। যেখানে তাকে বোঝানো হয় যে, তিনি ব্যাংকের কেওয়াইসি আপডেট করেননি। ওই মেসেজের সাথে তাকে একটি ফোন নম্বরও দেওয়া হয়েছিল। মহিলাকে জানানো হয়েছিল ওই ফোন নম্বরটি কোনও এক এসবিআই আধিকারিকের।

মেসেজে আসা নম্বরে ফোন করতেই জালিয়াতির খপ্পরে পড়েন ওই মহিলা। ফোনে জনৈক রাহুল নামে এক ব্যক্তি তাকে বলেন, এসবিআই ব্যাংক থেকে সিনিয়র সিটিজেনদের জন্য কেওয়াইসি ফর্ম ফিলাপ করার নতুন পদ্ধতি আনা হয়েছে। ওই ভুয়ো ব্যাংক আধিকারিকের সাথে কথা বলার পর, মুম্বাইয়ের ওই মহিলা তার ফোন নম্বরে একটি লিংক পান। লিংকটিকে অনুসরণ করে ভদ্রমহিলা অন্য একটি ওয়েব পেজে যান। যেখানে এসবিআইয়ের লোগো ব্যবহার করা হয়েছিল। সেই ভদ্রমহিলা সরল মনে ওয়েবসাইটে দেওয়া বিভিন্ন তথ্য পূরণ করতেই কিছুক্ষণের মধ্যে ছটি ট্রানজ্যাকশনের মাধ্যমে তার অ্যাকাউন্ট থেকে ৩.৩৮ লক্ষ টাকা তুলে নেওয়া হয়।

নিজের অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা তুলে নেওয়া হচ্ছে বুঝতে পারার পরই ওই মহিলা এক প্রতিবেশীর সাহায্য চান। তারপর তার পরামর্শ মতো দ্রুত নিজের ব্যাংকের এটিএম কার্ড ব্লক করেন। এরপর ভদ্রমহিলা গোটা ঘটনার কথা জানিয়ে নিজের ব্যাংকের ব্রাঞ্চ এবং স্থানীয় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

এই ঘটনার পর ব্যাংকের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, তারা কোনো কাস্টমারের অনলাইন কেওয়াইসি ফিলাপ করেন না। বিশেষ করে এসএমএস মাধ্যমে তো কখনই কেওয়াইসি ফর্ম ফিলাপ করা হয় না। তারা আরও জানিয়েছেন, যদি আপনি এসএমএসে বা ইমেলে এই ধরনের অনলাইনে কেওয়াইসি ফিলাপ করবার কোনও অনুরোধ পানহ সাথে সাথে সেই মেসেজ বা ইমেল ডিলিট করে ফেলুন। যদিওবা আপনি ভুল করে কোনও জালিয়াতকে ফোন করে ফেলেন, তাহলে কখনই তার সাথে আপনার ব্যাংকের ডিটেলস শেয়ার করবেন না। এর পাশাপাশি আপনার এটিএম কার্ডের ওটিপিও অন্য কারো সাথে শেয়ার না করার জন্য ব্যাংক থেকে বার বার করে অনুরোধ করা হচ্ছে গ্রাহকদেরকে।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।