বৃষ্টির ফোঁটা থেকে তৈরি হবে সংরক্ষণযোগ্য বিদ্যুৎ! গোটা বিশ্ব কে তাক লাগিয়ে দিল দিল্লি আইআইটি

IIT-এর গবেষকরা এমন একটি যন্ত্র তৈরি করেছেন যা 'ট্রাইবো ইলেক্ট্রিক ইফেক্ট' এবং 'ইলেক্ট্রোস্ট্যাটিক ইনডাকশন' পদ্ধতি ব্যবহার করে জলের ফোঁটা, বৃষ্টির ফোঁটা, জলের ধারা এমনকি সমুদ্রের তরঙ্গ থেকে বিদ্যুৎ তৈরি করতে পারে

delhi-iit-researchers-develop-device-that-generates-electricity-from-raindrops

সভ্যতার পর থেকেই প্রকৃতির নানাবিধ রহস্য ভেদ করে তা নিজের করায়ত্ত করেছে মানবজাতি। বিজ্ঞান এবং প্রযুক্তির বলে বলীয়ান হয়ে তারা বহু অসাধ্য সাধন করেছে। বিশ্বের অন্যান্য স্থানের মত ভারতেরও এই জাতীয় বিষয় কৃতিত্বের শেষ নেই! কিন্তু এবার, বৃষ্টি ফোঁটা থেকে বিদ্যুৎ তৈরির কৌশল আবিষ্কার করে ‘ডিজিটাল ইন্ডিয়া’ নয়া নজির গড়ল। এমনিতে, জলবিদ্যুৎ বা তাপবিদ্যুৎ-এর মত শব্দের পরিভাষা আমাদের কাছে অপরিচিত নয়। তবে সম্প্রতি দিল্লির ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি (IIT)-এর গবেষকরা এমন একটি যন্ত্র তৈরি করেছেন যা ‘ট্রাইবো ইলেক্ট্রিক ইফেক্ট’ এবং ‘ইলেক্ট্রোস্ট্যাটিক ইনডাকশন’ পদ্ধতি ব্যবহার করে জলের ফোঁটা, বৃষ্টির ফোঁটা, জলের ধারা এমনকি সমুদ্রের তরঙ্গ থেকে বিদ্যুৎ তৈরি করতে পারে। শুধু তাই নয়, ‘লিকুইড-সলিড ইন্টারফেস ট্রাইবো ইলেক্ট্রিক ন্যানোজেনারেটর’ (Liquid-solid Interface Triboelectric Nanogenerator) নামক এই যন্ত্রের দ্বারা উৎপন্ন বিদ্যুৎ, ব্যবহারের জন্য ব্যাটারিতে সংরক্ষণ করা যায় বলেও জানা গিয়েছে।

কীভাবে কাজ করে নতুন বিস্ময়কর ন্যানোজেনারেটর যন্ত্র

আইআইটি (IIT) দিল্লির তরফে বলা হয়েছে, নতুন লিকুইড-সলিড ইন্টারফেস ট্রাইবো ইলেক্ট্রিক ন্যানোজেনারেটর ডিভাইসটি বিশেষভাবে ডিজাইন করা ন্যানোকম্পোজিট পলিমার এবং কন্টাক্ট ইলেক্ট্রোড দ্বারা গঠিত; এটি জলের ফোঁটা থেকে কয়েক মিলিওয়াট (mW) শক্তি উৎপন্ন করতে পারে যা ঘড়ি, ডিজিটাল থার্মোমিটার, রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি ট্রান্সমিটার, হেল্থকেয়ার সেন্সরের মতো ছোট ইলেকট্রনিক ডিভাইসগুলিকে সহজেই পাওয়ার দেয়। এছাড়া, পাইজোইলেক্ট্রিক এফেক্টের মাধ্যমে এবং লবণাক্ত জলের ফোঁটা থেকে এটি সাধারণের তুলনায় আরো বিদ্যুৎ উৎপন্ন করতে পারে বলে জানানো হয়েছে।

রিপোর্ট অনুযায়ী, আইআইটির এই গবেষণার কাজে দেশের বিজ্ঞান-প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় এবং ইলেকট্রনিক্স তথা তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রক ‘এননেটরা’ (NNetRA) সহায়তা করেছে। সেক্ষেত্রে নতুন যন্ত্রটিকে কীভাবে ব্যবহারিক বিকল্প হিসাবে কাজে লাগানো যায় সেই নিয়ে আরো ভাবনা চিন্তা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন আইআইটি দিল্লির পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক নীরজ খারে।

বলে রাখি, এই মুহূর্তে খারে এবং তার টিম এই প্রতিষ্ঠানের ন্যানোস্কেল রিসার্চ ফেসিলিটি (NRF)-তে দীর্ঘস্থায়ী ট্রাইবো ইলেক্ট্রিক এফেক্ট ব্যবহার করে নষ্ট হওয়া যান্ত্রিক কম্পন থেকে বৈদ্যুতিক শক্তি সংগ্রহের কাজ করছেন। আবার যান্ত্রিক শক্তি সংগ্রহের ক্ষেত্রে ফেরোইলেক্ট্রিক পলিমার ব্যবহারের বিভিন্ন দিক নিয়ে একটি গ্রুপ ভারতীয় পেটেন্ট দায়ের করেছে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

A person who enjoys creating, buying, testing, evaluating and learning about new technology.