সাবধান, ইন্টারনেটে ঘুরছে ভুয়ো ICICI ব্যাংকের ওয়েবসাইট লিংক, সতর্ক করল পুলিশ

delhi-police-warns-users-about-fake-icici-bank-website

দেশে উত্তরোত্তর বৃদ্ধিপ্রাপ্ত সাইবার জালিয়াতি রুখতে দিল্লি পুলিশের সাইবারক্রাইম বিভাগ নাগরিকদের একটি ভুয়ো ICICI ব্যাংক অনলাইন ব্যাংকিং URL সম্পর্কে সতর্ক করেছে, যা সম্প্রতি SMS-এর মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এই ভুয়ো মেসেজটিতে বলা থাকছে যে, এটি ICICI ব্যাংকের তরফ থেকে পাঠানো হচ্ছে। SMS-টির শেষে একটি URL-এর উল্লেখ থাকছে, যার সাহায্যে কোনো ব্যক্তিকে তাঁর KYC ডিটেলস যাচাই করার নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু এতে ক্লিক করলেই ইউজারকে একটি ভুয়ো অনলাইন ব্যাংকিং পেজে চালিত করা হচ্ছে।

দিল্লি পুলিশের সাইবারক্রাইম বিভাগ জানিয়েছে, ইউজারের login ID এবং পাসওয়ার্ড চুরি করতেই হ্যাকাররা এই ফাঁদ পেতেছে। যে মুহূর্তে কোনো ব্যক্তি এই লিঙ্কে ক্লিক করবেন, তৎক্ষণাৎ তাঁকে ICICI ব্যাংকের একটি ভুয়ো লগইন পেজে পুনঃনির্দেশিত করা হবে। এবং যদি ভুলবশত সেই ব্যক্তি তাঁর লগইন প্রমাণপত্রাদি (login credentials) এন্টার করেন, তাহলে হ্যাকাররা তাঁর যাবতীয় ব্যক্তিগত তথ্যের অ্যাক্সেস পেয়ে যেতে সক্ষম হবে।

মনে রাখবেন যে, ICICI ব্যাংকের সমস্ত অফিসিয়াল অনলাইন ব্যাংকিং এবং শপিং ওয়েবসাইটগুলিতে “icicibank.com” ডোমেইন নেম রয়েছে এবং সমস্ত সাইট HTTPS প্রোটোকল অনুসরণ করে। সম্প্রতি দিল্লি পুলিশের একজন কর্মকর্তা এই ভুয়ো SMS পেয়েছেন, এবং টুইটারে এই সন্দেহজনক SMS সম্পর্কে এক সাংবাদিকের প্রশ্নের উত্তরে নিশ্চিতভাবে জানিয়েছেন যে এটি একটি ফিশিং স্ক্যাম।

স্ক্যামাররা প্রায়শই WhatsApp এবং ইমেলের মাধ্যমেও ভুয়ো মেসেজ ছড়িয়ে পাসওয়ার্ড চুরি করার চেষ্টা করে। কেবলমাত্র সতর্কতা অবলম্বন করেই এই ধরনের স্ক্যামের হাত থেকে নিজেকে রক্ষা করা সম্ভব। তাই যে-কোনো অনলাইন ব্যাংকিং ওয়েবসাইট খোলার সময় সঠিক URL টাইপ করছেন কি না সে ব্যাপারে নিশ্চিত হয়ে নিন এবং অজানা সোর্স থেকে আসা মেসেজ বা ইমেলে থাকা কোনো লিংকে কখনও ক্লিক করবেন না। এছাড়াও, কেউ নিজেকে ব্যাঙ্কের কর্মচারী বলে দাবি করলেও কখনোই কারোর সাথে নিজের OTP শেয়ার করবেন না।

সম্প্রতি, দিল্লি পুলিশ সাইবারক্রাইম Amazon Prime video বা Netflix-এর মতো ভিডিও স্ট্রিমিং অ্যাপগুলিতে বিনামূল্যে অ্যাক্সেস দেওয়ার দাবি করে WhatsApp মেসেজের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া প্রতারণামূলক ও ম্যালিশিয়াস লিঙ্ক সম্পর্কে জনগণকে সতর্ক করেছে। টুইটে পুলিশ ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের এই ধরনের লিঙ্কে ক্লিক না করার পাশাপাশি WhatsApp-এ এই জাতীয় মেসেজ অন্যদের শেয়ার না করারও নির্দেশ দিয়েছে। টুইটে বলা হয়েছে যে, লিঙ্কগুলিকে একাধিক অ্যান্টিভাইরাস ইঞ্জিন দ্বারা ক্ষতিকারক (malicious) হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে এবং ব্লক করা হয়েছে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।