দিল্লী থেকে কলকাতা, র‌্যানসমওয়্যার স্ক্যামে চুকাতে হচ্ছে মোটা টাকা

farms-giving-8-cr-to-rectify-ransomware

সম্প্রতি একটি ভারতীয় ফার্মকে র‌্যানসমওয়্যারের জন্য ৮ কোটি টাকার ভুগতান করতে হলো। জানা গিয়েছে তাদের সমস্ত অপারেশন এবং বাকি কাজকর্ম চালিয়ে যাওয়ার জন্য এই টাকা কোম্পানিকে দিতে হয়েছে। এই খবরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে সমস্ত ভারতীয় ফার্মগুলির মধ্যে। গত ১২ মাস যাবত ভারতের ৮২% ফার্ম এই ধরনের স্ক্যামে জর্জরিত। যে সমস্ত কোম্পানিগুলি এই ধরনের জালিয়াতির শিকার হয়েছে তাদের মধ্যে ৬৬% কোম্পানিকেই মুক্তিপণ দিতে হয়েছে।

মোবাইল কিনতে এখানে ক্লিক করুন

এই সমস্ত অ্যাটাকের ৯১% ক্ষেত্রেই ডেটা এনক্রিপশন সঠিকভাবে করা হয়েছিল যা পরবর্তীকালে অ্যাটাকের সময় চুরি করে নেওয়া হয়। জানা গিয়েছে ভারতের কোনো কোম্পানির উপর এই ধরনের অ্যাটাক হলে তাদেরকে মুক্তিপণ বাবদ গড়ে ৮ কোটি টাকা দিতে হয়।

এই ধরনের জালিয়াতি সবথেকে বেশি হয় দিল্লিতে, যেখানে গত বছরে দিল্লির কোম্পানীগুলির মধ্যে ৮৫% কোম্পানির উপরে এই ধরনের সাইবার অ্যাটাক করা হয়েছিল। এরপর এই তালিকায় রয়েছে বেঙ্গালুরুর নাম যেখানে ৮৩% কোম্পানির উপর এই অ্যাটাক হয়। এবং তৃতীয় স্থানে রয়েছে কলকাতা যেখানে ৮১% কোম্পানির উপরে এই ধরনের জালিয়াতি করা হয়েছিল।

মোবাইল কিনতে এখানে ক্লিক করুন

মূলত মুক্তিপণ জালিয়াতি হলো এক ধরনের মালওয়্যার নির্ভর জালিয়াতি যা যে কোন ব্যক্তির ফাইল এবং ডেটা সম্পূর্ণরূপে অ্যাক্সেস করে নিতে পারে। আপনি যদি ফাইল এনক্রিপশন ঠিক করে করেও থাকেন তাহলেও আপনার উপর এই জালিয়াতি করা সম্ভব। আপনার উপর এই জালিয়াতি করা হলে এবং আপনার ফাইল এর সমস্ত অ্যাক্সেস জালিয়াতের হাতে পৌঁছে গেলে তারা আপনার কাছ থেকে মুক্তিপণ দাবি করতে শুরু করে।

কিন্তু, সব সময় মুক্তিপণ দিয়ে দিলেই যে আপনি বেঁচে গেলেন তা নয়। হয়তো এই মুক্তিপণ জমা দিলে আপনি কিছুটা স্বস্তি পাবেন কিন্তু তাদের কাছে একটি ম্যাজিকাল ডিক্রিপশন কি থেকেই যায়। এটির মাধ্যমে আবার আপনার কোম্পানির উপরে জালিয়াতি করা যেতে পারে। তবে মুক্তিপণ জামা দিয়ে আপনারা আপনাদের ডেটা ফেরত নিয়ে নিতে পারবেন, যদিও তা সব সময় সম্ভবপর হয় না।

মোবাইল কিনতে এখানে ক্লিক করুন