স্মার্টফোন চুরি গেলে অর্থ সুরক্ষিত রাখতে অবশ্যই করুন এই ৭ টি কাজ

do-these-7-things-to-keep-your-money-safe-if-smartphone-lost
স্মার্টফোন চুরি গেলে করণীয়

বর্তমান অগ্রগতির যুগে স্মার্টফোন প্রত্যেকটি ব্যক্তির কাছেই একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ দৈনন্দিন ব্যবহৃত জিনিস। স্মার্টফোনে ইউজারের অনলাইন ব্যাংকিং ডিটেলস এবং মোবাইল ওয়ালেট সহ প্রচুর ব্যক্তিগত তথ্য মজুত থাকে। তাই স্মার্টফোন চুরি হওয়া যে কারোর কাছেই একটি অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক ব্যাপার। সাধারণত স্মার্টফোন চুরি করে চোরেরা সেগুলি পুনরায় বাজারে বিক্রি করে টাকা কামায়। তবে সম্প্রতি বিশ্বব্যাপী স্মার্টফোন চুরি হওয়ার পিছনে চোরেদের একটি অন্যরকম প্রবণতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এখন চোরেরা দ্রুত অর্থ উপার্জনের জন্য ডিভাইসটি পুনরায় বিক্রি করার পরিবর্তে ফোন ইউজারের ব্যাংকিং ডিটেলস এবং অন্যান্য ব্যক্তিগত ডেটা অ্যাক্সেস করার চেষ্টায় মোবাইল ফোন চুরি করছে। তাই স্মার্টফোন চুরি হয়ে গেলে, শুধুমাত্র স্মার্টফোনটির দিকে নজর না রেখে সঞ্চিত অর্থ যাতে অনলাইন জালিয়াতির হাত থেকে সুরক্ষিত থাকে, সেদিকেও মনোযোগ দেওয়া উচিত। সেই কারণে আজ আমরা স্মার্টফোন চুরি হয়ে গেলে অর্থ সুরক্ষিত রাখতে যে ৭ টি কাজ অবিলম্বে করতে হবে তা আপনাদের জানাবো।

আপনার টেলিকম অপারেটরকে কল করুন এবং অবিলম্বে আপনার SIM কার্ড ব্লক করুন

স্মার্টফোন চুরি গেলে আপনি অবিলম্বে আপনার SIM কার্ডটি ব্লক করুন, যাতে চোরেরা কোনো আর্থিক পরিষেবার (financial services) OTP বা অন্যান্য ব্যক্তিগত মেসেজের অ্যাক্সেস পেতে না পারে। তবে অবশ্যই আপনি একটি নতুন SIM কার্ড সহ একই মোবাইল নম্বর ব্যবহার করা চালিয়ে যেতে পারেন। যদিও আপনার পুরানো মোবাইল নম্বরের জন্য একটি নতুন SIM কার্ড পেতে কয়েকদিন সময় লাগতে পারে। এই সময়কালটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং চোরেরা এর সুযোগ নিতে পারে।

ইন্টারনেট এবং মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিসগুলির অ্যাক্সেস ব্লক করুন

যে মুহূর্তে আপনি আপনার মোবাইল ফোন হারাবেন, তৎক্ষণাৎ আপনি আপনার ব্যাংককে কল করুন এবং অনলাইন ব্যাংকিং সার্ভিসগুলি বন্ধ করুন। যদি চোরেরা আপনার ব্যাংকিং অ্যাকাউন্টগুলি অ্যাক্সেস করতে সক্ষম হয় তবে তারা সহজেই অর্থ স্থানান্তর করতে পারে। কারণ তারা আপনার মোবাইলে OTP পেতে থাকবে। তাই এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কারণ, আপনার টেলিকম অপারেটরের আপনার SIM ব্লক করতে কিছুটা সময় লাগতে পারে।

আপনি নিজে আপনার ব্যাংকে যান এবং আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্টের সাথে সম্পর্কিত মোবাইল নম্বর পরিবর্তন করুন

আপনার ফোন চুরি হয়ে যাওয়ার পরে ব্যাংকিং পরিষেবাগুলির জন্য একই ফোন নম্বর ব্যবহার না করা বাঞ্ছনীয়। মোবাইল নম্বর পরিবর্তন করতে, সমস্ত পাসওয়ার্ড রিসেট করতে এবং তারপরে আবার ইন্টারনেট ব্যাংকিং ব্যবহার করা শুরু করতে আপনি নিজে আপনার ব্যাংকে যান।

আপনার মোবাইল নম্বর পরিবর্তন করতে নিকটতম আধার কেন্দ্রে যান

যদি চোররা আধার প্রমাণীকরণে (Aadhaar authentication) অ্যাক্সেস পায়, তাহলে তারা আরও বড়ো কোনো স্ক্যামের মুখোমুখি আপনাকে দাঁড় করাতে পারে। তাই অতি অবশ্যই আপনার মোবাইল ফোন চুরি হওয়ার পরপরই আপনার মোবাইল নম্বর পরিবর্তন করতে আপনি নিকটতম আধার কেন্দ্রে যান।

চুরি হওয়া ফোনের ফোন নম্বরে আপনার লিঙ্ক করা ব্যাংক অ্যাকাউন্টগুলি থেকে UPI পেমেন্ট নিষ্ক্রিয় করুন

অনলাইন ব্যাংকিং পরিষেবাগুলি ব্লক করার পরে, UPI এবং সেই নির্দিষ্ট মোবাইল নম্বরের সাথে যুক্ত অন্যান্য মোবাইল ওয়ালেটগুলি নিষ্ক্রিয় (Deactivate) করতে ভুলবেন না। অ্যাপের মাধ্যমে বা কোনো ভেরিফায়েড হেল্পডেস্কে কল করে আপনার ফোন নম্বরের সাথে সংযুক্ত Paytm, Google Pay এবং অন্যান্য মোবাইল ওয়ালেটগুলির অ্যাক্সেস ব্লক করুন।

সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট, ইমেল এবং অন্যান্য অনলাইন পরিষেবাগুলির অ্যাক্সেস ব্লক করুন

আপনি অবিলম্বে চুরি যাওয়া মোবাইল নম্বরের সাথে সংযুক্ত আপনার সমস্ত email ID এবং সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টগুলি বন্ধ করুন। এর ফলে চোরেরা আপনাকে বা আপনার নিকট পরিজনদের কোনো স্ক্যামের জন্য টার্গেট করতে পারবে না।

নিকটতম থানায় যান এবং চুরির ঘটনাটি রিপোর্ট করুন

আপনি আপনার টাকা উপরিউক্ত সবকটি উপায়ে সুরক্ষিত করার পরে, নিকটবর্তী থানায় যান এবং ঘটনাটি জানান। এছাড়াও, FIR-এর একটি অনুলিপি (copy) নিতে ভুলবেন না, কারণ কেউ আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা চুরি করলে ব্যাংক বা ওয়ালেট সংস্থাগুলির কাছে প্রমাণ হিসেবে এটি প্রয়োজন হবে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।