আমেরিকান কোম্পানির সাথে দোস্তি টিকটকের, তবুও মন গলছে না ট্রাম্প প্রশাসনের

Donald Trump does not like the idea of oracle Tiktok deal

জাতীয় নিরাপত্তার কারণে আগেই ভারতে নিষিদ্ধ হয়েছে Tiktok। এরপর আমেরিকাতেও অ্যাপটিকে একই কারণে ব্যান করার দাবি তোলা হয়েছিল। ট্রাম্প প্রশাসন স্পষ্ট জানিয়েছিল যে, ২০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আমেরিকার কোনো কোম্পানিকে টিকটক তাদের ব্যবসা বিক্রি করে না দিলে, এদেশেও নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হবে। তবে সম্প্রতি একটি রিপোর্ট অনুযায়ী, আমেরিকায় হয়তো টিকটককে ব্যান করা হবেনা। কারণ Tiktok-এর কোম্পানি, ByteDance, আমেরিকান কোম্পানি Oracle-এর সাথে সমঝোতায় যেতে চাইছে। সেক্ষত্রে ট্রাম্প প্রশাসন টিকটককে আমেরিকায় ব্যবসা করার মান্যতা দিতে পারে।

রয়টার্সের রিপোর্ট অনুযায়ী, আমেরিকায় বেঁচে থাকতে Oracle এর সাথে হাত মেলাচ্ছে ByteDance। যদিও তারা চাইছে বেশির ভাগ মালিকানা নিজেদের হাতে রাখতে। বেজিং-এর এই কোম্পানির প্রস্তাব, তারা বেশির ভাগ মালিকানা নিজেদের হাতে রাখবে এবং আমেরিকায় Tiktok-এর একটি হেডকোয়ার্টার গড়ে তুলবে। তারা আমেরিকানদের জন্য ২০,০০০ চাকরি তৈরির প্রস্তাবও দিয়েছে। আমেরিকান কোম্পানি Oracle তাদের টেকনোলজি পার্টনার হবে এবং Tiktok-এর ডেটা ম্যানেজমেন্টের দায়িত্বে থাকবে, যে ডেটা চুরির জন্য সন্দেহ করা হচ্ছে এই অ্যাপটিকে।

আমেরিকায় বৈদেশিক কারবার নিয়ন্ত্রণ করে যে সংস্থা অর্থাৎ Committee on Foreign Investment in the United States (CFIUS)-এর কাছে ByteDance এই প্রস্তাবটি রেখেছে। আমেরিকায় Tiktok কী ভাবে চলবে সেটা তারাই ঠিক করবে। সূত্রের খবর, CFIUS-এর চেয়ারম্যান Mnuchin এবং কমার্স সেক্রেটারি উইলবার রস মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসে ByteDance-এর এই প্রস্তাব নিয়ে মিটিং করেন।

এদিকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প জানিয়েছেন, এই সমঝোতার বিষয়ে তিনি ওয়াকিবহাল এবং সমস্ত বিষয় বিবেচনা করে তিনি সিদ্ধান্ত নেবেন। ট্রাম্প ByteDance-এর প্রস্তাব মানবেন কিনা সেটা এখনও পরিষ্কার নয়। হোয়াইট হাউস, ByteDance বা Oracle কেউই এই বিষয়ে মুখ খুলতে চায়নি। এই প্রস্তাব মেনে নিলে অর্থাৎ ByteDance-কে বেশির ভাগ স্বত্ব দিয়ে দিলে ট্রাম্পের পক্ষে সেটা উলটপুরাণ হয়ে যাবে। আর সেই কারণেই তিনি এখনও নিশ্চুপ আছেন। কেউ কেউ বলছেন Oracle-ByteDance ডিল ট্রাম্প প্রশাসনের মন গলাতে পারিনি। কারণ এরফলে আমেরিকার বিরাট কোনো ফায়দা হবেনা। পাশাপাশি ব্যবসাও চীনের কোম্পানির দখলে থাকবে, যা ট্রাম্প চান না।

আইনজীবী Paul Marquardt-এর মতে, “এই লেনদেন একদমই সাধারণ নয়। এর সিদ্ধান্ত পেশাদার CFIUS কর্মচারীদের চেয়ে রাজনীতিবিদদের হাতে বেশি চলে গেছে।” ByteDance আশা করছে Oracle-এর চেয়ারম্যান ল্যারি এলিসন এবং চিফ এক্সিকিউটিভ সাফরা কাটজের সঙ্গে ট্রাম্পের সুসম্পর্ক এই চুক্তির সম্ভাবনা বাড়িয়ে তুলবে। ট্রাম্প গত মাসে বলেছিলেন, ByteDance-কে Tiktok-এর শেয়ার বিক্রি করে পাওয়া অর্থের একটা বড় অংশ আমেরিকা সরকারকে দিতে হবে কারণ তারাই এই লেনদেন সম্ভব করে তুলছে। ByteDance তাদের প্রস্তাবে অবশ্য এমন কোন লেনদেনের কথা উল্লেখ করেনি।