দেশের সবচেয়ে বড় ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম ‘ভারত মার্কেট,’ আনছে অখিল ভারতীয় ব্যবসায়ী সংঘ

ব্যবসায়ীদের সংগঠন অখিল ভারতীয় ব্যবসায়ী সংঘ গত শুক্রবার একটি বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানিয়েছে যে, তারা আর কিছুদিনের মধ্যে একটি ন্যাশনাল ই-কমার্স মার্কেটপ্লেস ‘ভারত মার্কেট’ চালু করতে চলেছে। এই প্ল্যাটফর্মটি দেশের বিভিন্ন খুচরা ব্যবসায়ীদের জন্য তৈরি করা হয়েছে এবং এতে অনেকগুলি টেকনোলজি পার্টনারদের সহায়তা নেওয়া হয়েছে। প্রোডাক্টের প্রস্তুতকারকরা এই প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে সরাসরি ক্রেতার কাছে নিজেদের জিনিস পৌঁছে দিতে পারবেন। শুধু তাই নয়, এই প্ল্যাটফর্মে হোম ডেলিভারির অপশনও থাকছে।

CAIT এর তরফ থেকে জানানো হয়েছে, এই ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মে সারাদেশের ব্যবসায়ীরা যুক্ত হতে পারবেন। সিএআইটির সেক্রেটারি জেনারেল প্রবীণ খান্ডেলওয়াল জানিয়েছেন যে, এই উদ্যোগের মাধ্যমে তারা ভারতের ৯৫% ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের একত্র করার লক্ষ্য নিয়েছেন। এই ব্যবসায়ীরা এই উদ্যোগটির শেয়ারহোল্ডার হবেন পাশাপাশি এটিকে ব্যবসায়ীদের জন্যই চালু করা হবে।

এই দেশের বেশ কিছু অঞ্চলে পাইলট প্রজেক্ট এর উপর কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে যেখানে এই প্রোজেক্টের সফলতা উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। বেশ কিছু জরুরী পণ্যের সঙ্গে এই প্রজেক্টটি আপাতত প্রয়াগরাজ, গোরখপুর, বারানসি, লখনৌ, কানপুর এবং ব্যাঙ্গালুরুতে শুরু করা হয়েছে। এখানে খুচরা ব্যবসায়ী, ডিস্ট্রিবিউটার এবং উপভোক্তাদের কাছ থেকে ভালো রেসপন্স পাওয়া যাচ্ছে।

খান্ডেলওয়ালের বক্তব্য, আপাতত পাইলট প্রজেক্ট ভারতের ৯০ টি শহরে শুরু করে দেওয়া হয়েছে এবং আর কিছুদিনের মধ্যেই দেশের অন্যান্য শহরগুলিতে শুরু করা হবে। এই প্রোজেক্টের মাধ্যমে লকডাউনের সময় কনটেইনমেন্ট এলাকায় থাকা মানুষদের জরুরী পণ্য পরিবহন করা হবে। মনে করা হচ্ছে এই বছরের মধ্যে এই প্ল্যাটফর্মে এক কোটির থেকে বেশি খুচরা ব্যবসায়ী যুক্ত হবেন এবং কিছুদিনের মধ্যেই এটি বিশ্বের অন্যতম বড় একটি মার্কেটপ্লেস হিসেবে উঠে আসবে।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।