Bitcoin ও অন্যান্য Cryptocurrency-র দামে পতন, Ethereum, Litecoin-এর উত্থান অব্যাহত

বিটকয়েনের বাজার মূল্যে সাময়িক পতন দেখা যায়। আজ ২.৪ % মূল্য হ্রাস হয়েছে এই ডিজিটাল কারেন্সির

ether-bitcoin-shiba-inu-dogecoin-price-today-altcoins-market-trading

চলতি সপ্তাহেও, ট্রেডমূল্যের ঊর্ধ্বমুখী ধারা বজায় রাখল বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মূল্যবান ক্রিপ্টোকয়েন ‘ইথার’ (Ether)। লাভের মুখ দেখল ‘টেথার’, ‘USD- কয়েন’-র মতো অল্টকয়েনগুলিও। তবে, দাম কমেছে বিশ্বসেরা ‘বিটকয়েন’ (Bitcoin) সহ আরও কিছু জনপ্রিয় অল্টকয়েনের। ডিজিটাল কয়েনের মূল্যের ঘনঘন ওঠানামা বর্তমানে ক্রিপ্টো বাজারের এক সাধারণ ঘটনায় পরিণত হয়েছে। এই কারণেই এধরনের হ্রাসবৃদ্ধি চিন্তার ভাঁজ ফেলছে না বিশেষজ্ঞদের কপালে, বরং বাজার মূল্যের গ্রাফে ছোটো মাত্রার ওঠানামার যথেষ্ট প্রয়োজনীয়তা আছে বলেই মত বিশেষজ্ঞ মহলের।

বেশ কিছুদিন একনাগাড়ে লাভের সিঁড়িতে ওঠার পর বৃহস্পতিবার, বিটকয়েনের বাজার মূল্যে সাময়িক পতন দেখা যায়। আজ ২.৪ % মূল্য হ্রাস হয়েছে এই ডিজিটাল কারেন্সির। CoinMarket Cap-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, আন্তর্জাতিক বাজারে এটি বর্তমানে ৬৪,৫৪২ ডলারে (প্রায় ৪৮,০৫,৮৫৫ টাকা) ট্রেড করছে। ভারতে এর বাজার মূল্য আরও বেশী, কয়েন প্রতি ৭১,০৬৬ ডলার ( প্রায় ৫২,৯১,৫৯৫ টাকা)।

বিটকয়েনের সাময়িক মূল্য হ্রাসের সঙ্গে পাল্লা দিয়েই নিন্মমুখী হয়েছে ‘পলকাডোট’ (Polkadot), ‘কারডানো'(Cardano), ‘শিবা ইনু’ (Shibainu), ‘ডোজকয়েন'(Dogcoin) -এর মতো বেশীরভাগ জনপ্রিয় অল্টকয়েন‌।

তবে ০.৯০ % মূল্য বৃদ্ধি করে এক্ষেত্রে ব্যতিক্রমি ‘ইথার’। বর্তমানে এর বাজারমূল্য ছুঁয়েছে ৫০৮৬ ডলারের (প্রায় ৩.৭৮ লাখ টাকা) গন্ডি। চলতি সপ্তাহেই, কিছুদিন পূর্বে , ৪,৮৪০ ডলারের নতুন সর্বোচ্চ রেকর্ড তৈরি করে এই কারেন্সি। ইথারের পথে হেঁটে ‘টেথার'(Tether), ‘ইউএসডি কয়েন'(USD Coin), ‘লাইটকয়েন'(LiteCoin), ‘চেনলিংক'(Chainlink) -এর মতো গুটিকয়েক ক্রিপ্টোকারেন্সিও অব্যাহত রেখেছে দৈনিক লাভের ধারা।

অক্টোবরে যুক্তরাষ্ট্রীয় মুদ্রাস্ফীতির হার ছিল ৬.২ শতাংশ। ফলস্বরূপ,স্বাভাবিকভাবেই ‘বিটকয়েন’ এর মতো ডিজিটাল অ্যাসেট এর মূল্য বৃদ্ধি পেয়ে ৬৮,৯৫০ ডলারের (প্রায় ৫১.৩ লাখ) নতুন রেকর্ড গড়ে। যদিও কদিন পরেই এর মূল্য কমতে থাকে। তবে, ট্রেডিং দুনিয়ার এই স্বাভাবিক উত্থান পতনে তেমন কোনো উদ্বেগের বিষয় দেখছেন না ক্রিপ্টো এক্সচেঞ্জ Coindcx- এর রিসার্চ টিম। বরং এধরনের হ্রাসবৃদ্ধি ডিজিটাল ট্রেডিং এর স্বাস্থ্যের পক্ষে যথেষ্ট লাভদায়ক বলেই অভিমত প্রকাশ তাদের।

অন্যদিকে, বিশ্বজুড়ে অব্যাহত রয়েছে ক্রিপ্টো মুদ্রা গ্রহণের সাম্প্রতিক ট্রেন্ড। নিউ ইয়র্কের সদ্য নির্বাচিত মেয়র ইরিক অ্যাডাম (Eric Adam) ঘোষণা করছেন,খুব শীঘ্রই শহরে চালু হতে চলেছে ‘NYCCoin’ নামে শহরের নিজস্ব সিটিটোকেন। যুক্তরাষ্ট্রীয় ক্রিপ্টোকেন্দ্র মিয়ামি শহরেও ইতিমধ্যে চালু হয়ছে ‘Miami Coin’ নামের ক্রিপ্টোমুদ্রা। থাইল্যান্ডের ক্রিপ্টো ফিনান্স ও এক্সচেঞ্জ ফার্মের সাথে সম্প্রতি চুক্তিবদ্ধ হয়েছে Mastercard। হংকং ও অষ্ট্রেলিয়াতেও, ব্যক্তিগত এবং ব্যবসায়িক পর্যায়ে চালু হতে চলেছে ক্রিপ্টো নির্ভর ক্রেডিট, ডেবিট ও প্রিপেড পরিষেবা।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।