পুরানো স্কুটার বদলে আজই বাড়ি নিয়ে আসুন Ampere এর ইলেকট্রিক স্কুটার

exchange-old-scooter-for-new-ampere-electric-scooters

স্বল্প চলমান ব্যায় এবং রক্ষণাবেক্ষণের খরচ একদম কম বলে বৈদ্যুতিন বাইকের গ্রহণযোগ্যতা যে ধীরে ধীরে বাড়ছে তা অনুমেয়। তার ওপর অতীমারি পরিস্থিতিতে সংক্রমণের ভয়ে একশ্রেণীর মানুষ গণপরিবহনের পরিবর্তে ব্যক্তিগত যানবাহনেই বেশী সুরক্ষিত বোধ করছেন। ফলে নতুন ক্রেতা টানতে বৈদ্যুতিন টু-হুইলার নির্মাতারাও নানা অফার আনছে।

যেমন- গত জুনে Ether Energy চালু করেছিল টু-হুইলার এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রাম৷ অর্থাং এই প্রোগ্রামে গ্রাহকেরা যে কোনো সংস্থার দুই-চাকার গাড়ি এনে Ether এর নতুন স্কুটারের সাথে বিনিময় করার সুযোগ পাবেন। এই এক্সচেঞ্জ প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ করতে Ether হাত মিলিয়েছিল ওমনি চ্যানেল সেকেন্ড হ্যান্ড টু-হুইলার ব্রান্ড CredR এর সাথে।

এবার ভারতের আর এক ইলেকট্রিক টু-হুইলার ব্যান্ড Ampere Electric, CredR এর সাথে যৌথ উদ্যোগে চালু করলো একটি টু-হুইলার এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রাম। Ether Energy এর মতো এই এক্সচেঞ্জ অফারে গ্রাহকরা তাদের পেট্রোল চালিত টু-হুইলারের বিনিময়ে Ampere এর বৈদ্যুতিন স্কুটার কেনার সুযোগ পাবেন।

এই এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রামে গ্রাহককে তাদের ব্যবহৃত টু-হুইলারকে Ampere EV এর শোরুমে আনতে হবে। যেখানে সেটির ফিজিক্যাল ইন্সপেকশন এবং ডকুমেন্ট ভেরিফিকেশনের পর CredR এর প্রোপ্রিয়েটারি প্রাইসিং অ্যাপ্লিকেশানের মাধ্যমে টু-হুইলারটির একটি আনুমানিক মূল্য নির্ধারণ করা হবে। তারপর সমপরিমান টাকা Ampere এর যে স্কুটার গ্রাহক কিনতে চাইছেন তার মূল্য থেকে কেটে নেওয়া হবে৷ এরপর গ্রাহককে স্কুটার কেনার সময় শুধু সেই পরিবর্তিত দামটি দিতে হবে।

Ampere Electric এর প্রসঙ্গে আসলে সংস্থাটির স্বল্প গতি (সর্বোচ্চ গতি ২৫ কিমি/ঘন্টায় সীমাবদ্ধ) থেকে আরম্ভ করে উচ্চ গতির পাঁচটি স্কুটার বর্তমানে বাজারে উপলব্ধ৷ এগুলি হল, Zeal, Reo Elite, Reo এবং V48।  সংস্থাটি গত জুন মাসে ফ্ল্যাগশীপ স্কুটার Magnus Pro লঞ্চ করেছিল। এই স্কুটারটির বর্তমান দাম ৭৪,০৮৮ টাকা (এক্স-শোরুম)। স্কুটারটির সর্বোচ্চ গতিবেগ ৫৫ কিমি/ঘন্টা এবং এর ব্যাটারী একক চার্জে ৭০-৮০ কিমি পর্যন্ত চলতে পারে৷ এছাড়া কোম্পানীর সবচেয়ে সস্তা স্কুটারটি হল V48। এটি একটি স্বল্প গতির (২৫কিমি/ঘন্টা) স্কুটার এবং সিঙ্গেল চার্জে এর ব্যাটারীর রেঞ্জ ৪৫-৫০ কিমি৷ V48 এর এখন এক্স-শোরুম মূল্য ৩৪,৬৩৬ টাকা৷