ফেসঅ্যাপের কামাল, 18 বছর পর উদ্ধার অপহৃত শিশু

কম বয়সীদের বৃদ্ধ বানিয়ে এখন ভাইরাল ফেসঅ্যাপ। মানুষ এই অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যবহার করে সোশ্যাল মিডিয়াতে তাদের বৃদ্ধ বয়সের ফটো পোস্ট করছেন। তবে এই ফেসঅ্যাপের আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স (এআই) প্রযুক্তি একটি পরিবারের জন্য খুশির খবর নিয়ে এলো। এই এআই প্রযুক্তির সাহায্যে, একজন বাবা-মা তার সন্তানকে প্রায় দুই দশক পরে খুঁজে পেয়েছেন। ঘটনা হলো, যখন এই শিশুটি 3 বছর বয়স ছিল, তখন তাকে অপহরণ করা হয়েছিল এবং এখন ফেসঅ্যাপের এআই প্রযুক্তির কারণে পুলিশ এই শিশুটিকে খুঁজে পেতে সক্ষম হয়েছে।

AI প্রযুক্তি জানিয়েছে এখন বাচ্চা কেমন দেখতে হবে:

এই ঘটনাটি ঘটেছে চীনে। আপনাকে জানিয়ে রাখি পুলিশ যে AI প্রযুক্তির সাহায্য নিয়েছে সেটি ডেভেলপ করেছে চীনের Tencent কোম্পানি। এই প্রযুক্তি শিশুটির শৈশবের ছবির ভিত্তিতে জানায় শিশুটি এখন কেমন দেখতে হবে। এরপর, তদন্তকারীরা এআই ল্যাবের ছবিটির সাথে ফেসিয়াল রিকগনিশন প্রযুক্তির মিল ঘটিয়ে একটি নির্ভুল ছবি বানায়।

এরপর সফটওয়্যারের সাহায্যে প্রায় 100 টি শিশুকে বেছে নেওয়া হয় এবং তাদের মধ্যে থেকে আসল শিশুটিকে তদন্তকারীরা খুঁজে পায়। ইউ ওয়ুফং নামে ওই শিশুটি বর্তমানে একজন কলেজ ছাত্র। ঝেং ঝেনহাই, যিনি এই মামলার তদন্ত করছিলেন, তিনি বলেন, “যখন ওয়ুফংকে আমরা সমস্ত কথা বলি, সে বিশ্বাস করতে অস্বীকার করে যে সে অপহরণকৃত শিশু ছিলেন। কিন্তু, ডিএনএ পরীক্ষা থেকে সবকিছু পরিষ্কার হয়ে যায়।

ওয়ুফং এর ডিএনএ তার পিতামাতার সাথে মিলে যায় । ঝেং বলেন, “অপহরণ হওয়ার পর পরই আমরা এই বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করি ।” 2001 সালের 6 মে ওয়ুফং হঠাৎ অদৃশ্য হয়ে যায় যখন তার বাবা একটি কনস্ট্রাকশন সাইটেকাজ করছিলো এবং সে সেখানে খেলছিল।

পড়ুন : ফেসঅ্যাপে ভয়? এভাবে নিজের তথ্য ডিলিট করুন

প্রযুক্তির সাম্প্রতিক খবর আর রিভিউস জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা Whatsapp গ্রুপে যুক্ত হোন আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube.

খবরটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

সব খবর পড়তে আমাদের WhatsApp গ্রুপে যুক্ত হোন – এখানে ক্লিক করুন