ফেসবুকের বিরুদ্ধে মামলা, ফোনের ক্যামেরা ব্যবহার করে নজরে রাখছে ইউজারকে

facebook-accused-again-for-watching-instagram-users-through-cameras

Facebook-এর উপর ব্যক্তিগত তথ্যের অবৈধ ব্যবহার বিষয়ক অভিযোগ নতুন নয়। এবার ফের মোবাইল ক্যামেরার মাধ্যমে Instagram ব্যবহারকারীদের উপর নজরদারি করার জন্য Facebook-কে অভিযুক্ত করা হল। প্রসঙ্গত গত জুলাই মাসেও ফটো শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম, Instagram এর বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছিল যে, তারা ব্যবহারকারীদের অজান্তেই আইফোনের ক্যামেরা ব্যবহার করছে। যদিও সেইসময় Facebook এই অভিযোগ অস্বীকার করে এবং জানায় নতুন একটি বাগের কারণেই আইফোন ব্যবহারকারীরা ভুল নোটিফিকেশন পাচ্ছেন। আদতে Instagram কোনো ক্যামেরা ব্যবহার করছে না। তারা এই বাগটি ঠিক করার চেষ্টা করছে।

তবে সম্প্রতি ফের ইনস্টাগ্রামের বিরুদ্ধে একই অভিযোগ করেছেন কিছু মোবাইল ফোন ব্যবহারকারী। তারা জানিয়েছে, Instagram ব্যবহার করার সময় অনিচ্ছাকৃতভাবে ফোনের ক্যামেরা খুলে যাচ্ছে এবং তাদের ছবি তুলে নিচ্ছে। তারা সেই সময়ে ক্যামেরা তে কোনো রকম কাজ করতেও চাইছেন না। শুধুমাত্র ফীড স্ক্রল করার সময়ে এই ঘটনা ঘটছে বলে জানা গিয়েছে।

এই অভিযোগের ভিত্তিতে নিউ জার্সির সান ফ্রান্সিসকোর ফেডেরাল কোর্টে, Instagram ব্যবহারকারী ব্রিটানি কনডিটি জানান, ক্যামেরার ব্যবহার ইচ্ছাকৃত ভাবে করা হয়েছে ইউজারদের মূল্যবান ও লোভনীয় ডাটা চুরির জন্য। অভিযোগে বলা হয়, ইউজারদের বাড়ির মধ্যে ঢুকে তাদের একান্ত ব্যক্তিগত তথ্যের নাগাল পেলে Instagram এবং Facebook মূল্যবান ইনসাইট এবং মার্কেট রিসার্চ পেতে পারবে।

Facebook যদিও এবিষয়ে এখনও কোন মন্তব্য করেনি। গত মাসে দায়ের করা একটি অভিযোগে ফেসিয়াল রেকগনিশন প্রযুক্তির দ্বারা ১০০ মিলিয়ন Instagram ব্যবহারকারীদের বায়োমেট্রিক ডেটা অবৈধভাবে সংগ্ৰহ করার অভিযোগ উঠেছিল Facebook-এর উপর। ফের এই নতুন অভিযোগে ফেসবুক যে চরম অস্বস্তিতে পড়েছে তা বলে দিতে হয়না।