Facebook আনছে ভ্যাকসিন ফাইন্ডার টুল, কি এর সুবিধা অবশ্যই জেনে নিন

facebook-brings-vaccine-finder-tool-for-india-to-fight-against-covid-19

করোনার লাগামছাড়া দ্বিতীয় সংক্রমণ রুখতে গোটা দেশে আজ থেকে শুরু হচ্ছে তৃতীয় দফার টিকাকরণ কর্মসূচি৷ ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে সবাইকেই ভ্যাকসিন দেওয়া হবে বলে সরকারের তরফে ইতিমধ্যে জানানো হয়েছে। এর জন্য কো-উইন ও আরোগ্য সেতু অ্যাপের মাধ্যমে নাম নথিভুক্ত করা আবশ্যক। তবে এই দুটি প্ল্যাটফর্ম ছাড়াও এখন ভ্যাকসিন সম্পর্কিত যাবতীয় তথ্য জানাবে Facebook। এই সপ্তাহেই ফেসবুক অ্যাপে যুক্ত হতে চলেছে নতুন আপডেট।

জুকারবার্গের সংস্থাটি ভারতীয় ইউজারদের জন্য চলতি সপ্তাহেই রোলআউট করতে চলেছে ‘ভ্যাকসিন ফাইন্ডার টুল’ (Vaccine Finder tool)। এটি অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএম, উভয় অপারেটিং সিস্টেমের অ্যাপে সাপোর্ট করবে। এই ভ্যাকসিন ফাইন্ডার টুলটি মোট ১৭ টি ভাষায় উপলব্ধ হবে। এর জন্য সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্টটি ভারত সরকারের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধেছে। এই টুলটি ইউজারদের নিকটবর্তী ভ্যাকসিন সেন্টারের খোঁজ পেতে সাহায্য করবে, এবং এর সাথে কোনো সেন্টারে ভ্যাকসিন কতক্ষণ দেওয়া হচ্ছে তাও জানা যাবে। এর জন্য ফেসবুককে প্রয়োজনীয় ডেটা সরবরাহ করবে কেন্দ্রীয় সরকারের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক৷

Facebook আরও জানিয়েছে যে, এই টুলে থাকবে একটি লিঙ্ক যার সাহায্যে Co-Win ওয়েবসাইটে নাম রেজিস্টার করা যাবে, এবং নেওয়া যাবে ভ্যাকসিনের জন্য অ্যাপয়েন্টমেন্ট৷ এছাড়াও, এই টুলটি ওয়াক-ইন অপশন (বিশেষ করে ৪৬ বছর বা তার বেশি বয়সীদের জন্য) শো করবে।

এই সংকটময় পরিস্থিতিতে কীভাবে ভারতের পাশে থাকবে Facebook, সে বিষয়ে বিস্তারিতভাবে জানিয়ে সংস্থাটি ভারতকে ১০ মিলিয়ন ডলার অনুদান হিসাবে দেওয়ার কথা নিশ্চিত করেছে। কয়েকদিন আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্টে একথা ঘোষণাও করেছিলেন ফেসবুক কর্ণধার মার্ক জুকারবার্গ।

এর পাশাপাশি বিভিন্ন জায়গায় ওষুধ, ৫০০০-এরও বেশি অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর, ভেন্টিলেটর, BiPAP মেশিনের মতো জীবনদায়ী চিকিৎসা সরঞ্জাম পৌঁছে দেওয়ার জন্য ভারতের বেশ কিছু এনজিও-র সঙ্গে পার্টনারশিপও করবে Facebook৷ এই লক্ষ্যে সংস্থাটি হাত মিলিয়েছে ইউনাইটেড ওয়ে, সোয়াস্থ (Swasth), হেমকুন্ট ফাউন্ডেশেন, আই অ্যাম গুরগাঁও, প্রজেক্ট মুম্বাই এবং ইউ-এস ইন্ডিয়া স্ট্র্যাটেজিক পার্টনারশিপ ফোরাম (USISPF)-এর সঙ্গে৷ এই দুর্বিষহ পরিস্থিতিতে ফেসবুক যে এক জীবনদায়ী মাধ্যম হিসেবে কাজ করছে, সেকথা নিঃসন্দেহে বলাই বাহুল্য।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন