অক্টোবর থেকে বদলাচ্ছে ফেসবুকের নীতি, যেকোনো পোস্ট করা হতে পারে রিমুভ

Facebook changing terms from 1 october can restrict or remove your content

গত তিন-চার দিন থেকে Facebook ইউজাররা, Facebook-এর টার্মস অর্থাৎ নিয়মাবলী আগামী মাস থেকে আপডেট করা হবে এই নোটিফিকেশন পাচ্ছেন। অনেকেই এই নোটিফিকেশনটি পেয়ে বিভিন্ন আশঙ্কা করছেন, আবার অনেকে দাবি করছেন এই নোটিফিকেশন পাওয়ার পর তাদের প্রোফাইলের রিচ কমে গেছে। কিন্তু এই ধরণের আশঙ্কার কোনো কারণ নেই।

আসলে Facebook, বিগত কয়েক বছর ধরেই ইউজারদের গোপনীয়তা রক্ষার বিষয়ে সমস্যায় পড়েছে, এই কারণে সংস্থাটি তার ইউজার এবং বিভিন্ন দেশের সরকারগুলির কাছ থেকে প্রচুর সমালোচনা শুনেছে। আর তাই চলতি বছরের অক্টোবরে, ফেসবুক তার গাইডলাইনসে পরিবর্তন আনতে চলেছে।

আপনি যদি ফেসবুকের সক্রিয় ইউজার হন তবে এই নোটিফিকেশনটি হয়তো ইতিমধ্যেই দেখেছেন। কম্পিউটার বা স্মার্টফোন থেকে ফেসবুক খোলা থাকলে নীতি পরিবর্তন সংক্রান্ত এই নোটিফিকেশনটি দেখা যাবে। ওই নোটিফিকেশনে বলা হয়েছে – ফেসবুক, আইনী প্রভাব থেকে নিজেকে রক্ষা করতে আগামী ১লা অক্টোবর থেকে রেগুলেশনে পরিবর্তন আনবে। এই নীতি অনুযায়ী সংস্থাটি চাইলে ইউজারের কোনো পোস্ট রিমুভ করতে পারবে। প্রসঙ্গত, ফেসবুকের সিইও Mark Zuckerberg, দীর্ঘদিন আগেই ইউজারদের স্বাধীনতা সংক্রান্ত এই সমস্যাটির কথা বলেছেন।

যাইহোক, ১লা অক্টোবরের পরে, আপনি এখনকার মতই স্বচ্ছন্দ্যে Facebook করতে পারবেন। ফেসবুকের নীতি পরিবর্তনের পরেও আপনি ফেসবুকে ইচ্ছেমত পোস্ট করতে পারবেন, কিন্তু আপনার পোস্টের বিষয়বস্তু যদি ফেসবুকের গাইডলাইন না মানে তাহলে এটি অপসারণ করা হতে পারে। তবে ঠিক কোন কোন বিষয়বস্তু, ফেসবুকের নীতিগুলি অমান্য করবে, সেসম্পর্কে সংস্থাটি আপাতত কোনো নির্দেশিকা দেয়নি।

বেশ কিছুদিন আগে, নির্বাচনের আগে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলি ফেসবুকের মাধ্যমে নিজেদের অ্যাজেন্ডা ছড়িয়ে দিচ্ছে এমন অভিযোগ উঠেছিল, তখন অনেকেই এর জন্য ফেসবুকের সমালোচনা করেছিল। ফলে সংস্থাটি এই জাতীয় কন্টেন্ট ফ্ল্যাগ করার জন্য অতিরিক্ত কর্মী নিযুক্ত করে। এমনকি নিজের প্ল্যাটফর্ম থেকে ভুয়ো সংবাদ ছড়িয়ে পড়া রোধ করার জন্যেও বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে ফেসবুক।