তবে কি বন্ধ হবে ফেসবুক ? কো- ফাউন্ডারের কথায় জল্পনা

ফেসবুকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবার্গের প্রাক্তন রুমমেট ক্রিস হিউজ গতকাল তার একটি লেখায় ফেসবুক বন্ধ করে দেওয়ার আর্জি জানান। নিউ ইয়র্ক টাইমসে প্রকাশিত তার একটি লেখায় তিনি জানান মার্ক জুকারবার্গ এর ক্ষমতা এখন অনেক বেশি হয়ে গেছে এবং সেটি আমেরিকার একজন ব্যক্তির স্বাভাবিক ক্ষমতার পরিপন্থী।

২০০৪ সালে আমেরিকার হার্ভার্ড এ হিউজ মার্ক জুকারবার্গ এবং ডাস্টিন মস্কোভিত্স মিলে ফেসবুক প্রতিষ্ঠা করেন, যা এখন পৃথিবীর সবচেয়ে বড় সোশ্যাল নেটওয়ার্ক হয়ে দাঁড়িয়েছে। সারা বিশ্বে ফেসবুক এর রয়েছে প্রায় ২ বিলিয়নের বেশি ব্যবহারকারী। শুধুমাত্র ফেসবুক নয় ফেসবুক অধিকৃত হোয়াটসঅ্যাপ, ইনস্টাগ্রাম এবং মেসেঞ্জারের প্রতিটিতে রয়েছে প্রায় ১ মিলিয়নের বেশি করে ব্যবহারকারী। ২০০৭ সালে হিউজ ফেসবুক ছেড়ে দেন এবং তিনি তার লিংকডইন প্রোফাইলে লেখেন যে তিনি এই তিন বছরে প্রায় দেড় বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করেছেন।

হিউজ গতকাল তার লেখায় জানান যে ফেসবুকের ওপরে ওঠা বেশ কয়েকটি স্ক্যান্ডাল এর মধ্যে একটিতে ফেসবুকের ওপর তাদের ৮৭ মিলিয়ন ব্যাবহারকারির জরুরী তথ্য অসাংবিধানিকভাবে পাচার করার অভিযোগ উঠেছিল। এছাড়া এই বেশ কয়েক বছরে ফেসবুকের উপর নানা সাইবার মামলা দায়ের হয়েছে।

তিনি আরো বলেন মার্ক জুকারবার্গ একজন ভালো মানুষ। তবে তার সাফল্যের পন্থাটি তার পছন্দ নয়। শুধুমাত্র হিউজ একাই নন, তিনি ছাড়াও অনেক আইনজীবী, বড় বড় টেক কোম্পানির অধিকর্তারাও তার সঙ্গে একমত। এছাড়াও ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী সেনেটর এলিজাবেথ ওয়ারেনও হিউজের এই বক্তব্যের সঙ্গে সহমত পোষণ করছেন। এবার এখন এটাই দেখার ফেসবুক ও মার্ক জুকারবার্গ কিভাবে এই অভিযোগের মোকাবিলা করেন।

সব খবর পড়তে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন – এখানে ক্লিক করুন

পড়ুন : 27.5 কোটি ভারতীয়র ডেটা লিক, ফোন নাম্বার থেকে বাড়ির ঠিকানা এখন সার্বজনীন

Last Updated on