ভ্যাকসিন নিলে মানুষ বদলে যাবে শিম্পাঞ্জিতে, প্রচারকারীদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিল Facebook

Facebook Start banning accounts for claim Covid-19 Vaccines would turn humans into chimpanzees
৩০০ অ্যাকাউন্ট ব্যান করলো Facebook

অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকার (Oxford Astrazeneca) তৈরী করা করোনার ভ্যাকসিন নিলেই মানুষ বদলে যাবে শিম্পাঞ্জিতে – সামাজিক মাধ্যমে এমন প্রচার আমরা অনেকেই দেখেছি। টিকাকরণ প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার ঢের আগে থেকে এই ধরনের নেতিবাচক প্রচার মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে। বিশেষ কিছু দেশে এগুলি ছড়িয়ে দেওয়ার বাড়তি প্রবণতা লক্ষ্য করা যায়। উদ্দেশ্য একটাই, প্রভাব খাটিয়ে মানুষকে ভুল পথে চালনা করা। এদের সাথে সত্যের কোন যোগাযোগ নেই, বরং স্বার্থ সিদ্ধির উপায় রূপে আন্তর্জাতিক স্তরে সক্রিয় এই ধরনের ভুয়ো তথ্য প্রচারকারী নেটওয়ার্ক গড়ে তোলা হয়েছে। এমনকি প্রচারের সঙ্গে বিশেষ রাষ্ট্রের মদত জড়িয়ে আছে! ফলে খুব স্বাভাবিকভাবেই ভুয়ো প্রচারগুলি রুখে দিতে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণের দরকার ছিলো। জনপ্রিয় সামাজিক মাধ্যম ফেসবুক (Facebook) এবার সেই পথেই হাঁটলো।

ভুয়ো তথ্য প্রচারকারী প্রায় ৩০০টি অ্যাকাউন্টকে তারা ব্যান করেছেন বলে ফেসবুকের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। এদের মধ্যে ফেসবুক ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রকৃতপক্ষে ৬৫, বাকিদের ইনস্টাগ্রামে (Instagram) সক্রিয় থাকতে দেখা যায়। সামাজিক মাধ্যমে উদ্দেশ্যমূলক মিথ্যে খবর ছড়িয়ে দেওয়ার জাল তৈরী করাই ছিলো এই অ্যাকাউন্টগুলির লক্ষ্য। আংশিকভাবে এই কাজে তারা কিছুটা সাফল্য লাভ করে। তবে উত্তরোত্তর সক্রিয়তা বাড়ানোর ফলে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ তাদের বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে খতিয়ে দেখার সিদ্ধান্ত নেয়।

তদন্ত শুরু হলে ফেসবুকের পর্যালোচনাকারী দলের সামনে মারাত্মক কিছু তথ্য উঠে আসে। দেখা যায়, করোনার টিকা সম্পর্কে নকল তথ্য প্রচারকারীদের মধ্যে একটি নিবিড় ঐক্য রয়েছে। অত্যন্ত সুচতুরভাবে এই জাল তৈরী করা হয়েছে যারা টার্গেট হিসেবে ভারত, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং লাতিন আমেরিকার দেশগুলিকে বেছে নিয়েছে। তাছাড়া এই ভুয়ো তথ্য প্রচারকারীদের সাথে রাশিয়ার গভীর সংযোগ খুঁজে পাওয়া যায়। এরপরেই তদন্তকারীরা উল্লিখিত অ্যাকাউন্টগুলির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে শুরু করেন।

কেবলমাত্র অ্যাস্ট্রাজেনেকা নয়, এছাড়াও ফাইজার সহ আরো ১৭টি ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারকের বিরুদ্ধে মিথ্যা রটনা ছড়িয়ে দেওয়া চলতে থাকে। গত বছরের শেষপর্ব থেকে চলতি বছরের মধ্যভাগ পর্যন্ত সামাজিক মাধ্যমে ভুয়ো তথ্য প্রচারকারীদের বাড়বাড়ন্ত ছিলো চোখে পড়ার মতো। টিকা নিলে মৃত্যু অবশ্যম্ভাবী বা টিকা প্রস্তুতকারীর মিথ্যাচার – এই ধরনের বক্তব্যকে সম্বল করে ভুয়ো খবর প্রচার জারি থাকে। অত্যন্ত দুর্বিনীত উপায়ে কুৎসামূলক ষড়যন্ত্রটিকে Facebook, Instagram ছাড়াও অন্যান্য সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হয়।

তবে এই মুহূর্তে আলোচ্য যে পদক্ষেপ Facebook গ্রহণ করেছে তা পুরো ঘটনায় কিছুটা রাশ টানতে সম্ভব হবে বলে সামাজিক মাধ্যমটির পক্ষ থেকে দাবী করা হয়েছে। একইসাথে অবশ্য তারা এটাও স্বীকার করে নিয়েছে যে এত সহজে ভুয়ো তথ্য প্রচারকারীরা ক্ষান্ত হবেনা। ব্যান করার পরেও এরা মিথ্যা রটনা ছড়ানোর নতুন উপায় খুঁজবে। তাই এদের ষড়যন্ত্র থেকে বাঁচতে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ মানুষকে সচেতন থাকার পরামর্শ দিয়েছেন।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

One of the newest members of the Techgup Family. Soumo grew his liking for gadgets almost a decade back while searching for his first smartphone, and started writing about tech recently in 2020