দরকার নেই Messenger-এর, Facebook-এর মূল অ্যাপ দিয়ে করা যাবে ভয়েস ও ভিডিও কলিং

Facebook Testing voice and video call for main app
Facebook-এর মূল অ্যাপে আসছে ভিডিও এবং ভয়েস কলিং ফিচার

এবার থেকে ফেসবুকের (Facebook) মূল অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে ভিডিও এবং ভয়েস কলিং করতে আর কোন বাধা রইলো না। অর্থাৎ Facebook ব্যবহারকারীগণ মূল অ্যাপের মাধ্যমেই উক্ত কাজ দুটি করতে পারবেন। এক্ষেত্রে ইউজারকে আলাদা করে মেসেঞ্জার (Messenger) অ্যাপের দ্বারস্থ হতে হবে না। অবশ্য এখনই স্থায়ীভাবে নয় বরং ট্রায়াল হিসেবে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর উপরোক্ত ফিচারটি মূল অ্যাপ্লিকেশনে যুক্ত করা হবে বলে শোনা গিয়েছে। এভাবে ফেসবুকের মাধ্যমে সব ধরনের কলিং সম্ভব হলে তা অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহারের অভিজ্ঞতাকে অনেক সহজ ও সম্পূর্ণ করে তুলবে বলে প্রযুক্তিপ্রেমীদের অভিমত।

Facebook-এর মূল অ্যাপে আসছে ভিডিও এবং ভয়েস কলিং ফিচার

এ বিষয়ে অনেকেই অবগত যে বেশ কয়েক বছর আগেই ফেসবুক কর্তৃপক্ষ তাদের মূল অ্যাপ্লিকেশন থেকে মেসেজিং ও কলিংয়ের সুবিধাকে আলাদা করে দেয়। এরপর থেকে মেসেজিংয়ের জন্য আলাদাভাবে মেসেঞ্জার অ্যাপের ব্যবহার বাড়তে থাকে। ফেসবুকের বন্ধু তালিকায় থাকা সদস্যদের কল করার ক্ষেত্রে আমরা এই মেসেঞ্জার অ্যাপের উপরেই নির্ভর করেছি। কিন্তু মূল অ্যাপ্লিকেশনে ভিডিও ও ভয়েস কলিংয়ের সুবিধা জুড়লে পুনরায় আমাদের অ্যাপ ব্যবহার অভিজ্ঞতায় বদল আসবে।

উল্লেখ্য, গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ তাদের মালিকানাধীন অ্যাপ্লিকেশনদ্বয় অর্থাৎ মেসেঞ্জার (Messenger) ও ইনস্টাগ্রামে (Instagram) অভিন্ন মেসেজিং পদ্ধতির সূচনা করে। এজন্য দুই প্ল্যাটফর্মের সদস্যেরা বর্তমানে একটি অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করেই বন্ধুবান্ধব ও পরিচিতদের মেসেজ বা কল করতে পারেন। এজন্য তাদের ডিভাইসে দুটি অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোডের প্রয়োজন পড়ে না। ভবিষ্যতে নিজেদের অন্যান্য অ্যাপ্লিকেশনগুলিকেও ফেসবুক এভাবে জুড়ে দিতে পারে।

মূল অ্যাপ্লিকেশনে কলিংয়ের সুবিধা যুক্ত হলে মেসেঞ্জারের জনপ্রিয়তা কতটা ক্ষতিগ্রস্ত হবে? তখন কি মানুষ আগের মতো প্রয়োজনের উপরে নির্ভর করে অ্যাপটি ডাউনলোড করবেন? ফেসবুকের একজন মুখপাত্রের কাছে এই বিষয়ে মতামত চাইলে তিনি আমাদের আশ্বস্ত করেছেন। মূল অ্যাপে কলিংয়ের সুবিধা জুড়লেও মেসেজিং, অডিও এবং ভিডিও কল ফিচারের সম্পূর্ণ স্বাদ গ্রহণ করতে হলে মেসেঞ্জার (Messenger) অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করতেই হবে। ফলে এর জনপ্রিয়তা কমে যাওয়ার কোন সম্ভাবনা নেই বলে তিনি দাবী করেছেন।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

One of the newest members of the Techgup Family. Soumo grew his liking for gadgets almost a decade back while searching for his first smartphone, and started writing about tech recently in 2020