ফোনে ফোনে ঘুরছে নকল FaceApp, আপনার টা সঠিক কিনা জেনে নিন

  

ফেসচেঞ্জিং রাশিয়ান অ্যাপ, ফেসঅ্যাপ (FaceApp) এখন ভারত সহ সমগ্র বিশ্বে ভাইরাল হয়েছে। এর সাথে এর প্রাইভেসী পলিসি নিয়েও অসন্তোষ ছড়াচ্ছে ব্যবহারকারীদের মধ্যে। তবে ব্যবহারকারীদের চিন্তা বাড়াচ্ছে নতুন একটি রিপোর্ট। যে রিপোর্টে জানানো হয়েছে রাশিয়ান অ্যাপ, ফেসঅ্যাপের ফেক ভার্সন বাজারে ছড়িয়ে পড়ছে। আর এই নকল ফেসঅ্যাপ ম্যালওয়্যার দ্বারা প্রভাবিত। মানুষ এই নকল অ্যাপ চিনতে না পেরে ডাউনলোড করছে। যা পরবর্তীতে তাদেরকে বিপদের মুখে ঠেলে দিতে পারে।

ফোবর্স এর একটি রিপোর্ট অনুসারে, সাইবার সিকিউরিটি কোম্পানি Kaspersky Labs প্রথম এই নকল অ্যাপের কথা তাদের ব্লগে জানায়। ব্লগে বলা হয়েছে ‘MobiDash’ নামে একটি অ্যাডওয়্যার ওই ম্যালওয়্যার প্রভাবিত অ্যাপের মধ্যে দেওয়া হয়েছে। যাতে ব্যবহারকারী এটিকে আসল ফেসঅ্যাপ মনে করে।

কিভাবে বুঝবেন কোনটি আসল আর কোনটি নকল ফেসঅ্যাপ :

প্রথমেই বলে রাখি কোনো রকম থার্ড পার্টি অ্যাপ স্টোর থেকে ফেসঅ্যাপ ডাউনলোড করবেন না। এছাড়াও গুগল প্লে স্টোর থেকে ফেসঅ্যাপ ডাউনলোড করার আগে অবশ্যই আমাদের দেওয়া তথ্য গুলোর সাথে মিলিয়ে নিন। আসল ফেসঅ্যাপের এইমুহূর্তে ডাউনলোড সংখ্যা 100 মিলিয়ন। এই অ্যাপটির সাইজ 10 এমবি। ফেসঅ্যাপ ডেভেলপ করেছে FaceApp Inc।

ফেসঅ্যাপ 2017 সালে লঞ্চ করা হয়েছিল এবং এখন এটি ওল্ড ফিল্টারের কারণে ভাইরাল হয়ে গেছে। অনেক ব্যবহারকারী এবং সেলেবরা তাদের ফটোতে ওল্ড ফিল্টার লাগিয়ে সেটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করছে। অভিনেতা, ক্রিকেটার, ফুটবলার এবং অন্যান্য অনেক সেলিব্রিটিদের এই বৃদ্ধ বয়সের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

পড়ুন : ফেসঅ্যাপ তো ‘ইউহি বদনাম হে’, গুগলের কাছে আছে আপনার পুরো কুন্ডলী

সব খবর পড়তে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন – এখানে ক্লিক করুন

টেক ভিডিও দেখার জন্য আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন – এখানে ক্লিক করুন