PUBG কে টেক্কা দিতে আসা FAU-G এর করুণ দশা, রেটিং নেমে ৩ এর ঘরে

fau-g-ratings-are-dropping-in-google-play-store.jpg

সমস্ত অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে কয়েকদিন আগেই ফৌ-জি (FAU-G) গেমটি গুগল প্লে-স্টোরে আত্মপ্রকাশ করেছে। সম্পূর্ণরূপে ভারতে প্রস্তুত এই গেমটি জনপ্রিয় পাবজি (PUBG) মোবাইল গেমের বিকল্পরূপেই প্লে-স্টোরে লঞ্চ করা হয়। এমনকি মানুষের ভাবাবেগকে চাগিয়ে তুলতে লঞ্চের জন্য বেছে নেওয়া হয় ভারতের ৭২তম প্রজাতন্ত্র দিবস অর্থাৎ গত ২৬শে জানুয়ারী দিনটিকে। প্রাথমিকভাবে গেমটিকে কেন্দ্র করে ভালো সাড়া মিললেও, খুব তাড়াতাড়ি খেলা ঘুরতে শুরু করে। আত্মপ্রকাশের মাত্র দুই সপ্তাহ পেরোতে না পেরোতেই লাগাতার খারাপ রেটিংয়ের মুখোমুখি হওয়ায় গেম প্রস্তুতকারকদের আপাতত নাজেহাল অবস্থা! অথচ আর কিছুদিনের মধ্যেই গেমটির অ্যাপ স্টোরে মুক্তি পাওয়ার কথা। সুতরাং ক্রমাগত খারাপ রেটিংয়ের হাত থেকে মুক্তি না পেলে ফৌ-জি গেমটি যে অচিরেই মুখ থুবড়ে পড়বে, সেই বিষয়ে কোন দ্বিমত নেই।

কিন্তু ঠিক কোন কারণে ভারতে তৈরী হওয়া ফৌ-জি গেমটির থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন মানুষ? উত্তর হিসেবে উঠে আসছে এর একাধিক কারণ। সেই কারণগুলির বিষয়ে বিস্তারিত বলার আগে জানিয়ে রাখা ভালো যে প্লে স্টোরে মুক্তির পর প্রথমদিকে ফৌ-জি (FAU-G) গেমটি খুব দ্রুত ৪.৫-স্টার রেটিং অর্জন করে। কিন্তু তারপরেই নেমে আসে বিপত্তি! উত্থানের মতই তীব্র গতিতে গেমের রেটিং নামতে থাকে এবং অচিরেই এভারেজ ৩.৫-স্টারের মাত্রায় পৌঁছয়। শুধু এটুকুই নয়, এরপরেও অসংখ্য মানুষের মুহূর্মুহু ১-স্টার রেটিংয়ের ফলে গেমটির দশা আরো করুণ হয়ে দাঁড়ায়। প্লে-স্টোরে গেমটির ইউজার রেটিং বর্তমানে ৩.১-স্টার – যা এখনো ক্রমাগত নিম্নগামী।

মেড ইন ইন্ডিয়া গেম ফৌ-জি’র শোচনীয় দুর্দশার পিছনে সবথেকে বড় কারণ হিসেবে কিন্তু উঠে আসছে সেই পাবজি প্রেমী তামাম জনতার কথা! কয়েকটি রিপোর্টের মতে ঘন্টার পর ঘন্টা ধরে পাবজিতে বুঁদ হয়ে থাকা হাজার হাজার গেমারের বিক্ষোভই ফৌ-জি’র (FAU-G) কপালে ১-স্টার রেটিং হয়ে আছড়ে পড়ছে! এই কারণেই গেমটির রেটিং পয়েন্ট নিরন্তর পতনের শিকার বলে সেই সমস্ত রিপোর্টে দাবী করা হয়েছে।

অবগতির জন্য জানিয়ে রাখি FAU-G গেমটির প্রস্তুতকারক সংস্থার নাম এনকোর গেমস (nCore Games)। প্রথমে কেবলমাত্র ভারতীয়রা এই গেমের আনন্দ উপভোগ করতে পারলেও সম্প্রতি প্রস্তুতকারক সংস্থার পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয় যে, সারা বিশ্বের ইউজারদের পক্ষেই এখন গেমটি খেলা সম্ভব। সুতরাং ভারতে বহু প্রতীক্ষিত এই গেমের ভয়াবহ পরিণামের পর বিশ্বজুড়ে এটি কতটা অভ্যর্থনার সম্মুখীন হয়, সেদিকে সকলেরই চোখ থাকবে।

গেমপ্লে’র কথা বলতে গেলে ফৌ-জি’র প্রারম্ভিক এপিসোডটি সাম্প্রতিক গালওয়ান ভ্যালির উত্তেজনাকে কেন্দ্র করে আবর্তিত হয়েছে। অন্যান্য মোডের সাথে খুব তাড়াতাড়ি এই গেমে ব্যাটেল রয়্যাল মোড যুক্ত করা হবে বলে প্রস্তুতকারক সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। এছাড়া ভবিষ্যতে গেমটির আপডেটে গেমারদের জন্য আরো অনেক নতুন হাতিয়ার যুক্ত করা হবে বলেও তারা জানিয়েছেন।

ক্রমাগত খারাপ রেটিংয়ের সঙ্গে অতিরিক্ত হিসেবে ফৌ-জি গেমটির কপালে জুটেছে আরো কিছু জঘন্য বদনাম। বহু সমালোচক দাবী করেছেন FAU-G কে কেন্দ্র করে দেখা দেওয়া প্রাথমিক উদ্দীপনা নেহাতই লোক-ঠকানো। তাদের অভিযোগ প্রথমদিকে এমন অসংখ্য মানুষ গেমটিকে ৫-স্টার রেটিং ও রিভিউ দিয়েছেন যারা কস্মিনকালে গেমটি খেলেও দেখেননি! অর্থাৎ ফৌ-জি ভক্তদের প্রাথমিক উচ্ছ্বাস স্রেফ ধাপ্পাবাজি, কেননা গেমটির রিভিউ প্রদানের ক্ষেত্রে প্রথমদিকে কোন যথার্থ পদ্ধতি গ্রহণ করা হয়নি। তবু আমাদের আশা সব কিছুর পরে FAU-G ভক্তদের মুখেও হাসি ফুটবে, সেই দিনটি হবে আক্ষরিক অর্থেই তাদের কাছে সুদিন।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন