কেনাকাটার জন্য Flipkart ব্যবহার করেন? এক্ষুনি বদলে ফেলুন পাসওয়ার্ড

flipkart-users-need-to-reset-password-to-avoid-fraud

আপনি কি কেনাকাটার জন্য জনপ্রিয় ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম Flipkart ব্যবহার করেন? অথবা BigBasket থেকে কি কখনো নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস অর্ডার করেছেন? যদি এর উত্তর হ্যাঁ হয়, তবে আপনার পাসওয়ার্ডটি দ্রুত রিসেট (পরিবর্তন) করুন। হ্যাঁ, সম্প্রতি এমনই পরামর্শ দিয়েছেন সাইবার বিশেষজ্ঞরা। তাঁরা বলেছেন যে, সারা দেশে দ্রুত ক্রমবর্ধমান সাইবার জালিয়াতির মধ্যে আপনি যদি আপনার অর্থ সুরক্ষিত রাখতে চান, তবে নির্দিষ্ট সময় অন্তর যে কোনো অ্যাপের পাসওয়ার্ডগুলি পুনরায় সেট করুন। একইসাথে সাইবার বিশেষজ্ঞরা বিশেষত Flipkart ইউজারদের একটি আগাম কেলেঙ্কারি সম্পর্কে সতর্ক করেছেন।

কিন্তু হঠাৎ করে এরকম আগাম সতর্কতা জারি হওয়ার কারণ কি? আসলে কিছুদিন আগেই আমরা জানিয়েছিলাম যে, সাইবার জালিয়াতির কারণে দেশের অন্যতম জনপ্রিয় অনলাইন গ্রোসারি স্টোর BigBasket-এর কয়েক মিলিয়ন গ্রাহকের ব্যক্তিগত ডেটা ফাঁস হয়ে গেছে, এবং এই সমস্ত ডেটা ডার্ক ওয়েবে বিক্রির জন্য উপলব্ধ। এখন সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ (cyber security expert) রাজশেখর রাজাহারিয়া টুইট করে জানিয়েছেন, সাইবার অপরাধীরা BigBasket-এর ফাঁস হওয়া ডেটাবেস থেকে ই-কমার্স সংস্থা Flipkart এবং Amazon-এর অ্যাকাউন্টের সাথে মিলে যাওয়া গ্রাহকদের ইমেল অ্যাড্রেস এবং পাসওয়ার্ডের সেট বিক্রি করছে।

রাজশেখর রাজাহারিয়া টুইটে বলেছেন যে, “হ্যাকাররা Flipkart এর ইউজার ডেটা বলে BigBasket থেকে প্রাপ্ত ইমেল ও পাসওয়ার্ড বিক্রি করছে। যেহেতু বেশিরভাগ মানুষ প্রায় সমস্ত ওয়েবসাইটের জন্য একই পাসওয়ার্ড ব্যবহার করেন, সেকারণেই হ্যাকাররা মিল থাকা ডেটাগুলি ফ্লিপকার্টের নামে বেচতে পারছে। তাই আপনারা সবাই আপনাদের ফ্লিপকার্ট অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করুন। অন্যথায় আপনারা বড়ো ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারেন।” তবে যেহেতু Amazon ব্রাউজার পরিবর্তন হলে লগ-ইনের জন্য OTP পাঠায়, তাই এই ই-কমার্স সাইটির ইউজাররা নিশ্চিন্তে থাকতে পারেন।

রাজাহারিয়া আরও বলেছেন যে, “ফ্লিপকার্টের তরফ থেকে তাদের অ্যাকাউন্টগুলিকে আরও সুরক্ষিত করা উচিত। ফাঁস হওয়া ইমেল এবং পাসওয়ার্ডের কম্বিনেশনের সাহায্যে যে কেউ সহজেই VPN/TOR সহ যে কোনও জায়গা থেকে ফ্লিপকার্টে লগ-ইন করতে পারে। দয়া করে সমস্ত অ্যাকাউন্টের জন্য 2FA (two-factor authentication) বাধ্যতামূলক করা হোক।” এই টুইটে তিনি Telegram-এ বিক্রি হওয়া অ্যাকাউন্টের বিবরণও পোস্ট করেছেন।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, টুইটে উল্লেখিত কেলেঙ্কারির বিষয়ে Flipkart-এর বক্তব্য জানার জন্য সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে, একজন মুখপাত্র বলেন,” Flipkart গ্রাহকের ব্যক্তিগত তথ্যের সুরক্ষা বজায় রাখার দিকে পুরোপুরি মনোনিবেশ করেছে এবং যথাযথ প্রয়োজনীয় কঠোর ব্যবস্থা নিচ্ছে। এর পাশাপাশি প্রতারণামূলক ক্রিয়াকলাপ সম্পর্কে জনসচেতনতা তৈরি করতে আমরা বিভিন্ন মিডিয়া এবং সোশ্যাল চ্যানেলে সচেতনতামূলক প্রচারণা চালাই, নিরাপদে অনলাইনে কেনাকাটা করার জন্য গ্রাহকদের যথাযথ উপদেশ দিই, এবং অসাধু সাইবার হানা থেকে তাদের অ্যাকাউন্টগুলিকে নিরাপদ রাখি।” যদিও এই প্রসঙ্গে Amazon এবং BigBasket-এর তরফ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।