লক্ষ লক্ষ স্মার্টফোনে ম্যালওয়্যার ঢুকিয়ে হাতে নাতে ধরা পড়লো চীনা স্মার্টফোন কোম্পানি Gionee

প্রতি মাসেই আমরা স্মার্টফোনে ম্যালওয়্যারের থাবা বসানোর কথা শুনতে পাই। এক্ষেত্রে বেশির ভাগ সময়েই কোনো থার্ড পার্টি অ্যাপ্লিকেশনের হাত ধরে ফোনে ম্যালওয়্যার প্রবেশ করে। যার ফলে Google, তার Play Store থেকে একাধিক ম্যালিশিয়াস অ্যাপ রিমুভ করতে বাধ্য হয়। কিন্তু এবার ডিভাইসে ম্যালওয়্যারের অনুপ্রবেশ সহজ করে দেওয়ায় কাঠগড়ায় দাঁড়িয়েছে চীনা স্মার্টফোন নির্মাতা Gionee। রিপোর্ট অনুযায়ী, অযাচিত বিজ্ঞাপন এবং অন্যান্য উপায়ে ইউজারদের থেকে লাভ করতে ২০ মিলিয়নেরও বেশি স্মার্টফোনে ম্যালওয়্যার ইম্পলিমেন্ট করেছে এই স্মার্টফোন ব্র্যান্ডটি। আর এই কারণে Gionee-কে দোষী সাব্যস্ত করেছে চীনের জাজমেন্ট ডকুমেন্ট নেটওয়ার্ক।

GizChina নামক পোর্টালের সাম্প্রতিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, জিওনির সহযোগী প্রতিষ্ঠান শেনঝেন জিপু (Shenzhen Zhipu) টেকনোলজি কোম্পানি লিমিটেড, ২০১৮ সালের ডিসেম্বর মাস থেকে গতবছর অর্থাৎ ২০১৯-এর অক্টোবর পর্যন্ত ‘স্টোরি লক স্ক্রিন’ অ্যাপ্লিকেশনটির আপডেটের মাধ্যমে, একাধিক জিওনি স্মার্টফোনে ট্রোজান হর্স ঢুকিয়েছিল। জানা গিয়েছে, সংস্থাটি ‘ডার্ক হর্স প্ল্যাটফর্ম’ ব্যবহার করে, ইউজারদের অজান্তেই ২১.৭৫ মিলিয়ন ডিভাইসকে বিভিন্ন বিজ্ঞাপনদাতাদের জন্য উপলব্ধ করে তুলেছিল।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই ম্যালওয়্যার বিজ্ঞাপনগুলিকে ব্র্যান্ডের ডিভাইসে প্রবেশ করার সুযোগ দিয়ে উল্লিখিত সময়ের মধ্যে প্রায় ৩১.৪৬ কোটি টাকা অতিরিক্ত আয় করেছে জিওনি তথা শেনঝেন জিপু। কিন্তু শেষ রক্ষা হল না!

আপাতত চীনা আদালত, ইউজারদের ইনফরমেশন সিস্টেমকে অবৈধভাবে নিয়ন্ত্রণ করার অপরাধে শেনজেন জিপু কোম্পানিটিকে দোষী সাব্যস্ত করেছে এবং সংস্থার সাথে যুক্ত তিন ব্যক্তিকে কারাদণ্ড ও জরিমানা করেছে। এই মামলায় জু লি (Xu Li), ঝু ইং (Zhu Ying) এবং জিয়া ঝেংকিয়াং (Jia Zhengqiang) নামের তিন ব্যক্তিকে তিন বছরের কারাদণ্ড এবং পান কি (Pan Qi) নামের এক কর্মীকে ছয় মাসের কারাদন্ড দিয়েছে। প্রত্যেকের ওপরেই ২,০০,০০০ ইউয়ান (প্রায় ২২.৫৯ লক্ষ ডলার) জরিমানা হয়েছে।