৯ হাজার টাকার কমে ৮ জিবি র‌্যাম, লঞ্চ হল Gionee K3 Pro

জিওনি কে৩ প্রো ফোনটি দুটি স্টোরেজের সাথে লঞ্চ হয়েছে।

আজই ভারতে লঞ্চ হবে Gionee Max। তার আগেই কোম্পানি চীনে Gionee K3 Pro লঞ্চ করলো। এই ফোনটিকে কোম্পানি বাজেট রেঞ্জে বাজারে এনেছে। জানিয়ে রাখি ভারতেও Gionee Max ফোনটি ৬,০০০ টাকার রেঞ্জে লঞ্চ হবে। Gionee K3 Pro এর বিশেষ বিশেষ ফিচারের কথা বললে এতে পাবেন ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা, ৪,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি, ৮ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম ও হেলিও পি৬০ প্রসেসর।

Gionee K3 Pro দাম:

জিওনি কে৩ প্রো ফোনটি দুটি স্টোরেজের সাথে লঞ্চ হয়েছে। এর ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের দাম প্রায় ৭,৫১৯ টাকা। আবার ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ পাওয়া যাবে প্রায় ৮,৫৯৩ টাকায়। ফোনটি জেড গ্রিন এবং পার্ল হোয়াইট কালারে কেনা যাবে। ভারতে এই ফোনটি কবে আসবে তা এখনও জানা যায়নি।

Gionee K3 Pro স্পেসিফিকেশন:

জিওনি কে৩ প্রো ফোনটি ৬.৫৩ ইঞ্চি এইচডি প্লাস ডিসপ্লের সাথে লঞ্চ হয়েছে। এর পিক্সেল রেজুলেশন ৭২০x১৬০০ এবং আসপেক্ট রেশিও ১৯:৯। ওয়াটার ড্রপ নচ স্ক্রিনটির স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৯০ শতাংশ। এই ফোনের পিছনে গ্লাস দেওয়া হয়েছে। ফোনটির ওজন ২০৫ গ্রাম। এছাড়াও এই ফোনে পাবেন ২ গিগাহার্টজ মিডিয়াটেক হেলিও পি৬০ প্রসেসর, ৮ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম ও ১২৮ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ বাড়ানো যাবে। অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে এখানে অ্যান্ড্রয়েড ৯ পাই আছে, যা ২০২০ সালে সত্যি লজ্জার বিষয়।

ফটোগ্রাফির জন্য জিওনি কে৩ প্রো ফোনের পিছনে আছে তিনটি ক্যামেরা। যার প্রাইমারি ক্যামেরা এফ/২.০ অ্যাপারচার সহ ১৬ মেগাপিক্সেল। এছাড়াও অন্য দুটি ক্যামেরা সম্পর্কে জানা যায়নি। এই ক্যামেরা সেটআপটি বর্গাকার আকৃতির। এখানে এলইডি ফ্ল্যাশ উপলব্ধ। ফোনের সামনে আছে ১৩ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা। সিকিউরিটির জন্য এতে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর ও ফেস আনলক ফিচার আছে। এছাড়াও এতে পাবেন ১০ ওয়াট চার্জিং সহ ৪,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি। চার্জিংয়ের জন্য এখানে ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট আছে।

A person who is very knowledgeable or enthusiastic about technology and especially high technology