জানেন কি? গুগলের এই অ্যাপের মাধ্যমে হ্যাক হচ্ছে আপনার ফোন

সাইবার সিকিউরিটি প্রোভাইডার ও রিসার্চার ক্যাসপারস্কি ল্যাবের একটি রিপোর্ট অনুযায়ী গুগল ক্যালেন্ডারের একটি ফিচারকে ব্যবহার করে হ্যাকাররা ইউজারের অর্থনৈতিক তথ্য হাতানোর চেষ্টা করছে। এর ফলে পুরো বিশ্বে 1.5 বিলিয়ন ইউজার ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারে।

গুগল ক্যালেন্ডার ব্যবহার করে যেকোন ব্যক্তি একটি ইভেন্ট তৈরি করে, তার ইনভাইটেশন কোন অজানা ব্যক্তিকে পাঠাতে পারে এবং তার নোটিফিকেশন সেই ব্যক্তির কাছে অটোমেটিক ভাবে চলে যায়। এই পদ্ধতিই হ্যাকাররা ব্যবহার করছে ইউজারদের স্ক্যাম করার জন্য।

ক্যাসপারস্কি একটি রিপোর্টে জানাচ্ছে,” গুগল ক্যালেন্ডার এমন ভাবে ডিজাইন করা যাতে যেকোন ব্যক্তি আপনাকে ইনভাইটেশন পাঠাতে পারে, ফলে জিমেইল ও গুগল ক্যালেন্ডারের কাছে এই ব্যাপারটি সম্পুর্ন স্বাভাবিক রূপে প্রতিপন্ম হচ্ছে।”

ক্যাসপারস্কি এই হ্যাকটি চিহ্নিত করার সময় বুঝতে পারে, হ্যাকাররা ক্যালন্ডারের নোটিফিকেশনের মাধ্যমে কোন ফিসিং ওয়েবসাইটের লিংক পাঠায়। লিংকে ক্লিক করলে ওই ফিসিং ওয়েবসাইট সরাসরি খুলে যাবে, সেখানে ইউজারকে বেশকিছু প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে তার বিনিময়ে তারা পুরস্কার হিসেবে পেয়ে যাবে কিছু নগদ অর্থ। সাইটটি একটি ফিক্সড পেমেন্ট এর জন্য ইউজারকে আবেদন করবে, এবং এই প্রক্রিয়ায় অংশ হিসেবে তার ক্রেডিট , ডেবিট কার্ড এর ডিটেল ও ব্যক্তিগত তথ্য দিতে বলবে। এই সব তথ্য হ্যাকারের কাছে সরাসরি পৌছে যাবে এবং তার মাধ্যমে তারা ওই ইউজারের টাকা বা তার পরিচয় চুরি করে নেবে।

ক্যাসপারস্কি একটি রিপোর্টে জানাচ্ছে,” ইমেইল ক্যালন্ডারের মতো বিশ্বস্ত সোর্স থেকে এই মেইল আসে বলে তা অনেকেই বুঝতে পারে না, কিন্তু এই ” ক্যালেন্ডার ফিসিং” খুবই উদ্বেগের বিষয়।”

এবার জেনে নেওয়া যাক কি ভাবে এই হ্যাকিং এর মোকাবিলা করা যাবে:

জিমেইল ক্যালন্ডার অ্যাপে গিয়ে গিয়ার আইকনে ক্লিক করতে হবে, ইভেন্ট মেনু তে গিয়ে সেটিংসে ক্লিক করতে হবে। সেখানে “no,only show invitation to which i have responded” এই ড্রপ ডাউন মেনুতে ক্লিক করতে হবে।

গুগলের তরফ থেকে জানানো হয়েছে “ক্যালন্ডার ফিসিং” এর মত স্প্যাম ও ফিসিং আটকাতে তারা খুবই তৎপর এবং তারা প্রতিনিয়ত কাজ করে চলেছে তাদের সার্ভিস ব্যবহার করে এই ধরনের ক্ষতিকারক কন্টেন্টের বিস্তার বন্ধ করতে।

গুগলের তরফ থেকে জানানো হয়েছে,” স্প্যাম আটকানো হল কোনদিন না শেষ হওয়া লড়াই, আমরা এক্ষেত্রে অনেক উন্নতি করেছি, কিন্তু কোন কোন ক্ষেত্রে স্প্যামাররা সফল হয়ে যায়। আমরা ইউজারদের স্প্যাম থেকে রক্ষার জন্য বদ্ধপরিকর, তাই আমরা বিভিন্ন ছবিতে স্প্যাম কনটেন্টকে স্ক্যান করি ও ইউজারদের সুবিধা দেওয়া হয়েছে যাতে তারা গুগল ক্যালন্ডার, ফর্ম, ড্রাইভ ও ফটোসে কোন স্প্যাম কনটেন্টকে রিপোর্ট করতে পারে, এবং তাদের ব্লক করতে পারে যাতে ভবিষ্যতে যোগাযোগ করার থেকে।”

“এছাড়াও গুগল ক্রোমের সেফ ব্রাউজিং ফিল্টারের সাহায্যে আমরা ইউজারদের কোন ক্ষতিকারক URL এর ব্যাপারে সচেতন করে থাকি তাদের সুরক্ষা পরিষেবা দেওয়ার অংশ হিসেবে।”

পড়ুন : আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টকে সুরক্ষিত করতে অবশ্যই করুন এই কাজ

সব খবর পড়তে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন – এখানে ক্লিক করুন

টেক ভিডিও দেখার জন্য আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন – এখানে ক্লিক করুন

সমস্ত খবরের আপডেট পেতে এখানে লাইক দিন!