ইন্টারনেট ছাড়াই হবে অনলাইন পড়াশোনা, Google Meet ও Classroom-এ এল নতুন ফিচার

google-classroom-meet-offline-mode-50-new-features-workspace-education-students.jpg

করোনা অতিমারীর প্রকোপ বা লকডাউন একদিকে যেমন আমাদের থেকে অনেক কিছু কেড়ে নিয়েছে, তেমনই জীবন প্রবাহের ধারাতেও এসেছে পরিবর্তন৷ যেমন এখন ক্লাসরুমের ডেস্ক-বেঞ্চ ছেড়ে গোটা শিক্ষাব্যবস্থা নির্ভর করছে ডিজিটাল পঠনপাঠনের ওপর। এদিকে অতিমারী পরিস্থিতি অনেকটা স্বাভাবিক হলেও স্কুল-কলেজ এখনও খোলেনি। ফলত, লেখাপড়া চলছে অনলাইনেই এবং এই বিষয়ে সহায়ক হয়েছে ইন্টারনেট ও বিভিন্ন অ্যাপ। ব্যবহার বেড়েছে Google Meet, Google Classroom জাতীয় সফ্টওয়্যারের। সেক্ষেত্রে, ভার্চুয়াল পড়াশোনা আরো সহজ-সরল করার লক্ষ্যে টেক জায়ান্ট গুগল (Google) তার Classroom, Meet এবং Chrome-এর মত কিছু অ্যাপ্লিকেশনের জন্য নিয়ে এলো ৫০টির বেশি নতুন ফিচার।

রিপোর্ট অনুযায়ী, নতুন ফিচারগুলির মাধ্যমে শিক্ষকরা Google Meet-এর অনলাইন ক্লাসগুলিতে আরো বেশি নিয়ন্ত্রণ পাবেন। যেমন মিটিং হোস্ট অর্থাৎ শিক্ষক এবার থেকে মিটিং পাকাপাকি শেষ করার এবং সবাইকে মিউট করার অপশন পাবেন। এর ফলে শিক্ষকের ক্লাস নেওয়া হলে যাতে ছাত্রছাত্রীরা আর সেই ক্লাসে না থাকতে পারেন তা নিয়ন্ত্রণ করা যাবে, আবার শিক্ষার্থীদের শোরগোল বা শব্দ – প্রয়োজনমত বন্ধ করা যাবে। তবে শুধু অনলাইন ক্লাসে নয়, উক্ত অপশনগুলি উপলব্ধ হবে Meet-এর ‘Breakout Room’ ফিচারটিতেও। অন্যদিকে, ক্রোমবুকের ভিডিও মিটিংয়ের অডিও-ভিডিও কোয়ালিটি বা মাল্টি-টাস্কিং অপশনেও বিবিধ উন্নতি আনছে গুগল। আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই এইসব নতুন সুবিধা পাওয়া যাবে বলে মনে হচ্ছে।

এছাড়া অ্যান্ড্রয়েড, আইওএস বা ওয়েব ব্রাউজার সমস্ত প্ল্যাটফর্মেই Google Meet-এ কারা মিটিং রুমে জয়েন করতে পারবেন, কারা চ্যাট ট্যাব ব্যবহার করতে পারবেন বা স্ক্রিন শেয়ার করতে পারবে – সেই সমস্ত একাধিক কন্ট্রোল অপশন পাওয়া যাবে বলে জানা গিয়েছে। শুধু তাই নয়, শোনা যাচ্ছে এবার থেকে গুগল মিটের শিক্ষার্থীদের জন্য নির্দিষ্ট ইমোজি রিঅ্যাকশন অপশন থাকবে। তবে এই বৈশিষ্ট্যটিও থাকবে শিক্ষক এবং অ্যাডমিনদের নিয়ন্ত্রণে।

আবার Google Classroom এর অ্যান্ড্রয়েড ভার্সনে অফলাইন মোড যুক্ত হয়েছে। এরফলে স্টুডেন্টরা অফলাইনেই সমস্ত কাজ করতে পারবেন। যেমন তারা অ্যাসাইনমেন্ট রিভিউ করতে পারবেন, আবার Google Drive ও Google Docs এর মাধ্যমে যথাক্রমে অ্যাটাচমেন্ট অ্যাক্সেস ও অ্যাসাইনমেন্ট লিখতে পারবেন।

এখানেই শেষ নয়! গুগল মিট এবং ক্লাসরুমের মধ্যেকার কানেকশনটিকেও ঢেলে সাজাতে চাইছে গুগল। এক্ষেত্রে ক্লাসরুম থেকে জেনারেট করা মিটিংগুলিতে প্রথমে শিক্ষকদের যোগদান করতে হবে এবং ক্লাসরুমের রোস্টারে কারা কারা রয়েছে তা জানা যাবে মিট (Meet)-এ। তাছাড়া যেকোনো মিটিংয়ে ক্লাসরুমের প্রতিটি শিক্ষক ডিফল্ট মিটিং হোস্ট হিসেবে বিবেচিত হবেন এবং ওই মিটিংগুলিতে মাল্টিপল হোস্টিংয়ের কোনো সুযোগ থাকবেনা।

আসলে বর্তমানে অনলাইন ক্লাসকেই ভবিষ্যত বলে ধরা হচ্ছে। আর সেই কথা মাথায় রেখেই বোধহয় উক্ত প্ল্যাটফর্মগুলিকে আরো আকর্ষণীয় করে তুলতে চাইছে মার্কিনি সংস্থাটি।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন