গুগল ওয়ান সাবস্ক্রিপশন নিলে পাবেন VPN পরিষেবা, সুরক্ষিত ভাবে চালান ইন্টারনেট

বর্তমানে ওয়েব ব্রাউজিংয়ের ক্ষেত্রে বারবার অন্যায় নজরদারির অভিযোগ উঠে আসে। মূলত সরকারি সংস্থা, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, হ্যাকার, এমনকি অন্য কোন মদতপুষ্ট জঙ্গী সংগঠনও এই নজরদারি চালিয়ে থাকে। এর থেকে ওয়েব ব্রাউজিংকে মুক্ত করার লক্ষ্যে বিভিন্ন OS প্ল্যাটফর্ম নিয়ত অনুসন্ধান চালিয়ে চলেছে। যেমন Google এবার নিজস্ব VPN পরিষেবা নিয়ে এলো। ২টিবি স্টোরেজসহ Google One সাবস্ক্রিপশনকারিরা এই পরিষেবার সুবিধা গ্রহণ করতে পারবেন।

গুগলের নিজস্ব ভিপিএন পরিষেবার সুবিধা পেতে আপনাকে Google One অ্যাপ্লিকেশনের হোম স্ক্রিন থেকে এটিকে সক্রিয় করতে হবে। এর ফলে মানুষের ইন্টারনেট নিরাপত্তা অনেকটাই সুরক্ষিত হবে। গুগলের তাদের ব্লগ পোস্টে দাবী করেছে – “এর ফলে ইন্টারনেট নিরাপত্তা এমন একটা স্তরে পৌঁছে যাবে, যার সাহায্যে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর যাবতীয় অনলাইন ট্রাফিককে এনক্রিপ্ট করা যাবে। এক্ষেত্রে নির্দিষ্ট ব্যক্তিটি কোন ব্রাউজার বা অ্যাপ ব্যবহার করছেন তা বিবেচ্য হবেনা।”

Google One 2TB প্ল্যানটি ব্যবহারের জন্য মাসিক ৯.৯৯ ডলার (প্রায় ৭৪০ টাকা) বা বাৎসরিক ৯৯.৯৯ ডলার (প্রায় ৭৪৫০ টাকা) খরচ করতে হবে। এই পরিষেবা গ্রহণ করলে Google Drive, Gmail, Google Photos এর স্টোরেজ বৃদ্ধির পাশাপাশি একজন Google Experts বা Pro Sessions এর মতো ফিচারগুলি অ্যাকসেস করতে পারবেন। তাছাড়া Google Store Rewards এ পাওয়া যাবে ১০ শতাংশ ক্যাশব্যাক।

Pro Sessions গুগলের নতুন সংযোজন, যার সাহায্যে আপনি সরাসরি একজন গুগল এক্সপার্টের সাথে কথা বলতে পারবেন। এছাড়া Google One সাবস্ক্রিপশনটিকে পরিবারের বাকি সদস্যদের সাথে শেয়ার করে নেওয়া যাবে। প্রয়োজন পড়লে তাদের ডিভাইসেও তারা ভিপিএনটি সক্রিয়ভাবে ব্যবহার করতে পারবেন।

আপাতত মার্কিন মুলুকের অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের জন্য ভিপিএন সহ গুগল ওয়ান পরিষেবা নিয়ে আসা হবে। পরবর্তীতে একাধিক দেশে অ্যান্ড্রয়েডের সাথেই iOS, উইন্ডোজ বা Mac ব্যবহারকারীদের জন্যও গুগল এই পরিষেবাটি নিয়ে আসতে পারে বলে জানা গেছে। আগামী কয়েক সপ্তাহেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও ব্রিটেনের গুগল ওয়ান ২টিবি সাবস্ক্রাইবাররা Pro Sessions ফিচারটি ব্যবহার করতে পারবেন।

One of the newest members of the Techgup Family. Soumo grew his liking for gadgets almost a decade back while searching for his first smartphone, and started writing about tech recently in 2020